মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লাইফ সাপোর্টে ক্যাপ্টেন নওশাদ

স্টাফ রিপোর্টার।। 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইয়ুমের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। তিনি ভারতের নাগপুরের কিংসওয়ে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) আছেন। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। 

আজ সোমবার (৩০ আগস্ট) সকালে বিমানের উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সেখানে তার দুই বোন অবস্থান করছেন। বিমানের কান্ট্রি ম্যানেজার হাসপাতালে আছেন, সার্বিক পরিস্থিতি খোঁজ নিচ্ছেন তিনি।

এদিকে গতকাল রবিবার (২৯ আগস্ট) ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। কোনো কোনো অনলাইন পোর্টালও পরিবারের বরাত দিয়ে মৃত্যুর সংবাদ প্রকাশ করে।

গত ২৭ আগস্ট মাস্কাট-ঢাকা রুটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের শিডিউল ফ্লাইট বিজি-০২২ মোট ১২৪ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা আসার পথে পাইলট ক্যাপ্টেন নওশাদ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে মহারাষ্ট্রের নাগপুরের ড. বাবাসাহেব আম্বেদকর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইটটি জরুরি অবতরণ করে।

সেখান থেকে বিমানের পাইলটকে নাগপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উদ্বোধনের ৫মাসের মধ্যেই ‘বিপর্যয়’ রাম মন্দিরের, ছাদ চুইয়ে পানি পড়ছে

লাইফ সাপোর্টে ক্যাপ্টেন নওশাদ

প্রকাশের সময় : ০৩:৪১:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অগাস্ট ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার।। 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইয়ুমের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। তিনি ভারতের নাগপুরের কিংসওয়ে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) আছেন। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। 

আজ সোমবার (৩০ আগস্ট) সকালে বিমানের উপ-মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সেখানে তার দুই বোন অবস্থান করছেন। বিমানের কান্ট্রি ম্যানেজার হাসপাতালে আছেন, সার্বিক পরিস্থিতি খোঁজ নিচ্ছেন তিনি।

এদিকে গতকাল রবিবার (২৯ আগস্ট) ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। কোনো কোনো অনলাইন পোর্টালও পরিবারের বরাত দিয়ে মৃত্যুর সংবাদ প্রকাশ করে।

গত ২৭ আগস্ট মাস্কাট-ঢাকা রুটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের শিডিউল ফ্লাইট বিজি-০২২ মোট ১২৪ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা আসার পথে পাইলট ক্যাপ্টেন নওশাদ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে মহারাষ্ট্রের নাগপুরের ড. বাবাসাহেব আম্বেদকর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইটটি জরুরি অবতরণ করে।

সেখান থেকে বিমানের পাইলটকে নাগপুরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।