শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরের শার্শায় পরকীয়ায় যুবককে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

বেনাপোল প্রতিনিধি।। যশোরের শার্শায় প্রেম ঘটিত কারণে মনিরুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবককে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে শার্শা উপজেলার নাভারন কাজিরবেড় গ্রামে। মৃত মনিরুল ইসলাম মনিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে ও একজন পরিবহন শ্রমিক।
এলাকাবাসী জানান, শুক্রবার ভোররাতে হঠাৎ পাশের বাড়ির চিৎকার শুনে দেখা যায় বাড়ির ভিতরে আগুন জ্বলছে। আমরা প্রতিবেশীরা ছুটে এসে আগুন নিভাতে থাকি। এক পর্যায়ে দেখা যায় সাইকেলের নিচে এক যুবক চাপা পড়া অবস্থায় পুড়ে মারা গেছে। পরে থানায় বিষয়টি জানানো হলে শার্শা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে।
উপজেলার কাজিরবেড় গ্রামের সিরাজুল ইসলামের বাড়িতে নিচ তলায় ঝিনাইদহের কালিগঞ্জ এলাকার সাইদুর রহমান স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ভাড়া থাকতেন। সাইদুর রহমান একজন এনজিও কর্মী। ঘটনার রাতে সে বাড়িতে ছিলেন না। এলাবাসীর ধারনা সাইদুর রহমানের স্ত্রী বিথী খাতুনের সাথে নিহত লোকটি প্রেমের সম্পর্ক থাকতে পারে বলে স্থানীয়রা জানান।
শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুল আলম খান জানান, রাতেই খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির মালিক, ভাড়াটিয়ার স্ত্রীসহ চার জনকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। ঘটনা তদন্ত না করে কিছুই বলা সম্ভব হবে না। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

যশোরের শার্শায় পরকীয়ায় যুবককে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ০৭:৩৭:৪৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
বেনাপোল প্রতিনিধি।। যশোরের শার্শায় প্রেম ঘটিত কারণে মনিরুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবককে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে শার্শা উপজেলার নাভারন কাজিরবেড় গ্রামে। মৃত মনিরুল ইসলাম মনিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জ এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে ও একজন পরিবহন শ্রমিক।
এলাকাবাসী জানান, শুক্রবার ভোররাতে হঠাৎ পাশের বাড়ির চিৎকার শুনে দেখা যায় বাড়ির ভিতরে আগুন জ্বলছে। আমরা প্রতিবেশীরা ছুটে এসে আগুন নিভাতে থাকি। এক পর্যায়ে দেখা যায় সাইকেলের নিচে এক যুবক চাপা পড়া অবস্থায় পুড়ে মারা গেছে। পরে থানায় বিষয়টি জানানো হলে শার্শা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে।
উপজেলার কাজিরবেড় গ্রামের সিরাজুল ইসলামের বাড়িতে নিচ তলায় ঝিনাইদহের কালিগঞ্জ এলাকার সাইদুর রহমান স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ভাড়া থাকতেন। সাইদুর রহমান একজন এনজিও কর্মী। ঘটনার রাতে সে বাড়িতে ছিলেন না। এলাবাসীর ধারনা সাইদুর রহমানের স্ত্রী বিথী খাতুনের সাথে নিহত লোকটি প্রেমের সম্পর্ক থাকতে পারে বলে স্থানীয়রা জানান।
শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুল আলম খান জানান, রাতেই খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির মালিক, ভাড়াটিয়ার স্ত্রীসহ চার জনকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। ঘটনা তদন্ত না করে কিছুই বলা সম্ভব হবে না। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।