শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় দুর্ধর্ষ ডাকাতির মুল আসামী গ্রেফতার

 

মোস্তাফিজুর রহমান, লালমনিরহাট।।  

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতায় একরামুল হক নামে এক ঔষধ ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনায় সাড়ে ১৯ লক্ষ টাকা ডাকাতির বিষয় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ওই মামলায় আটক লিংকন হোসেন (১৮) ওরফে নির্জন।

বুধবার  (১৫ সেপ্টেম্বর ) লালমনিরহাট আমলী আদালত-৪ এর বিচারক আহসান হাবিবের কাছে ওই ডাকাতির ঘটনায় নিজে জড়িত ও কারা কারা জড়িত এবং কি ভাবে ডাকাতি করা হয়েছে তার বর্নণা দেন লিংকন হোসেন।

গ্রেফতারকৃত লিংকন হোসেন নির্জন বড়খাতা ইউপির আদর্শ গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে।

এর আগে গত (৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ওই উপজেলার বড়খাতা এলাকায় ঔষধ ব্যবসায়ী একরামুল হকের বাড়িতে  দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় একরামুল হকের বৃদ্ধা মা আমিনা বেগম (৮০) ও স্ত্রী ফেরদৌসী বেগম (৪০)কে বেঁধে মারধর করে আলমারী ভেঙ্গে সাড়ে ১৯ লক্ষ টাকা লুট করে দূর্বৃত্তরা।

ভুক্তভুগি ঔষধ ব্যবসায়ী একরামুল হক  বলেন, আমার ব্যবসায়ী ও মসজিদের প্রায় সাড়ে ১৯ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। আমি অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতার করে আমার টাকা উদ্ধারের ব্যবস্থা করতে প্রসাশনের সু-দৃষ্টি কামনা করছি।

হাতীবান্ধা থানার (তদন্ত ওসি) ও মামলার আয়ু রফিকুল ইসলাম বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামী ডাকাতির বিষয় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ঘটনার সাথে জড়িত আরও কয়েকজন কে দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

এর আগে,ঘটনার সাথে জড়িত বড়খাতা ইউনিয়নের আদর্শগ্রাম এলাকার শাকিল (১৮) পিতা মমিন, মমিন (৩৫) পিতা জহুরুল, রব্বু (১৮) পিতা লাভলু, সাগর (১৯) পিতা সহিদার, লিংকন (২০) পিতা সেকেন্দার আলী কে গ্রেফতার করেন।

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় দুর্ধর্ষ ডাকাতির মুল আসামী গ্রেফতার

প্রকাশের সময় : ০৫:৪০:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

 

মোস্তাফিজুর রহমান, লালমনিরহাট।।  

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতায় একরামুল হক নামে এক ঔষধ ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনায় সাড়ে ১৯ লক্ষ টাকা ডাকাতির বিষয় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ওই মামলায় আটক লিংকন হোসেন (১৮) ওরফে নির্জন।

বুধবার  (১৫ সেপ্টেম্বর ) লালমনিরহাট আমলী আদালত-৪ এর বিচারক আহসান হাবিবের কাছে ওই ডাকাতির ঘটনায় নিজে জড়িত ও কারা কারা জড়িত এবং কি ভাবে ডাকাতি করা হয়েছে তার বর্নণা দেন লিংকন হোসেন।

গ্রেফতারকৃত লিংকন হোসেন নির্জন বড়খাতা ইউপির আদর্শ গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে।

এর আগে গত (৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ওই উপজেলার বড়খাতা এলাকায় ঔষধ ব্যবসায়ী একরামুল হকের বাড়িতে  দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় একরামুল হকের বৃদ্ধা মা আমিনা বেগম (৮০) ও স্ত্রী ফেরদৌসী বেগম (৪০)কে বেঁধে মারধর করে আলমারী ভেঙ্গে সাড়ে ১৯ লক্ষ টাকা লুট করে দূর্বৃত্তরা।

ভুক্তভুগি ঔষধ ব্যবসায়ী একরামুল হক  বলেন, আমার ব্যবসায়ী ও মসজিদের প্রায় সাড়ে ১৯ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। আমি অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতার করে আমার টাকা উদ্ধারের ব্যবস্থা করতে প্রসাশনের সু-দৃষ্টি কামনা করছি।

হাতীবান্ধা থানার (তদন্ত ওসি) ও মামলার আয়ু রফিকুল ইসলাম বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামী ডাকাতির বিষয় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ঘটনার সাথে জড়িত আরও কয়েকজন কে দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

এর আগে,ঘটনার সাথে জড়িত বড়খাতা ইউনিয়নের আদর্শগ্রাম এলাকার শাকিল (১৮) পিতা মমিন, মমিন (৩৫) পিতা জহুরুল, রব্বু (১৮) পিতা লাভলু, সাগর (১৯) পিতা সহিদার, লিংকন (২০) পিতা সেকেন্দার আলী কে গ্রেফতার করেন।