শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব নারী নেতাদের নেটওয়ার্ক গঠনের প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা ব্যুরো ।।

লিঙ্গ সমতা নিশ্চিত করতে নারী নেতৃবৃন্দের একটি নেটওয়ার্ক গঠনের ওপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়াও বিশ্বে লিঙ্গ সমতা নিশ্চিত করতে বিশ্বনেতাদের সামনে ৩টি প্রস্তাব রেখেছেন তিনি। একইসঙ্গে করোনাকালের বাস্তবতা নিয়ে বৈঠকে, কোভিড-১৯-এর প্রভাব বিশেষত নারীদের জন্য কঠিন বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

গতকাল মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতির আহ্বানে নারী নেতাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে তিনি এ প্রস্তাব রাখেন।

লিঙ্গ সমতার বিষয়ে উপদেষ্টা বোর্ড প্রতিষ্ঠার জন্য বিশ্ব নেতাদের প্রশংসা করে প্রথম প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রত্যেক পর্যায়ে, বিশেষ করে তৃণমূল পর্যায়ে লিঙ্গ চ্যাম্পিয়ন প্রয়োজন এবং আমরা দৃষ্টান্ত স্থাপনের মাধ্যমে নেতৃত্ব দিতে পারি। উপদেষ্টা বোর্ড কে স্থানীয়করণ করা দরকার বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

দ্বিতীয়ত প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নারী নেতৃত্বাধীন সংগঠনগুলোকে পর্যাপ্ত রাজনৈতিক ও আর্থিকভাবে সাহায্য-সহযোগিতা করা প্রয়োজন। এ ধরনের প্রচেষ্টায় সহায়তার ক্ষেত্রে জাতিসংঘের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তৃতীয় প্রস্তাবে লিঙ্গ সমতার জন্য সাধারণ কর্মসূচি জোরদার করতে নেতৃবৃন্দের একটি সম্মেলন ডাকার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুধু আমরা নয়, সকল নেতার এতে যোগদান করা উচিত এবং লিঙ্গ সমতার অগ্রগতির জন্য দৃঢ় প্রতিশ্রুতি উপস্থাপন করা উচিত।

বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ বিশ্বে ৭ম অবস্থানে আছে। বর্ধিত সংখ্যক নারী কর্মীবাহিনীতে যোগ দিচ্ছে।

স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের প্রায় ৭০ শতাংশ ও তৈরি পোশাককর্মীদের ৮০ শতাংশের বেশি নারী, তারা মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামনের সারিতে রয়েছে বলে এ সময় উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিশ্ব নারী নেতাদের নেটওয়ার্ক গঠনের প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশের সময় : ০১:০৮:২৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

ঢাকা ব্যুরো ।।

লিঙ্গ সমতা নিশ্চিত করতে নারী নেতৃবৃন্দের একটি নেটওয়ার্ক গঠনের ওপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়াও বিশ্বে লিঙ্গ সমতা নিশ্চিত করতে বিশ্বনেতাদের সামনে ৩টি প্রস্তাব রেখেছেন তিনি। একইসঙ্গে করোনাকালের বাস্তবতা নিয়ে বৈঠকে, কোভিড-১৯-এর প্রভাব বিশেষত নারীদের জন্য কঠিন বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

গতকাল মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতির আহ্বানে নারী নেতাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে তিনি এ প্রস্তাব রাখেন।

লিঙ্গ সমতার বিষয়ে উপদেষ্টা বোর্ড প্রতিষ্ঠার জন্য বিশ্ব নেতাদের প্রশংসা করে প্রথম প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের প্রত্যেক পর্যায়ে, বিশেষ করে তৃণমূল পর্যায়ে লিঙ্গ চ্যাম্পিয়ন প্রয়োজন এবং আমরা দৃষ্টান্ত স্থাপনের মাধ্যমে নেতৃত্ব দিতে পারি। উপদেষ্টা বোর্ড কে স্থানীয়করণ করা দরকার বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

দ্বিতীয়ত প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নারী নেতৃত্বাধীন সংগঠনগুলোকে পর্যাপ্ত রাজনৈতিক ও আর্থিকভাবে সাহায্য-সহযোগিতা করা প্রয়োজন। এ ধরনের প্রচেষ্টায় সহায়তার ক্ষেত্রে জাতিসংঘের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তৃতীয় প্রস্তাবে লিঙ্গ সমতার জন্য সাধারণ কর্মসূচি জোরদার করতে নেতৃবৃন্দের একটি সম্মেলন ডাকার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শুধু আমরা নয়, সকল নেতার এতে যোগদান করা উচিত এবং লিঙ্গ সমতার অগ্রগতির জন্য দৃঢ় প্রতিশ্রুতি উপস্থাপন করা উচিত।

বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ বিশ্বে ৭ম অবস্থানে আছে। বর্ধিত সংখ্যক নারী কর্মীবাহিনীতে যোগ দিচ্ছে।

স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের প্রায় ৭০ শতাংশ ও তৈরি পোশাককর্মীদের ৮০ শতাংশের বেশি নারী, তারা মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামনের সারিতে রয়েছে বলে এ সময় উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।