শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বঙ্গোপসাগরে ফিশিং ট্রলার ডুবিতে জেলের মৃত্যু

নাজমুল ইসলাম, শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ।।
বঙ্গোপসাগরে দুটি ফিশিং ট্রলার ডুবির খবর পাওয়া গেছে। এঘটনায় রুহুল আমীন খান (৪৫) নামে এক জেলে মারা গেছেন। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর)  সকাল ৭টার দিকে পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলা জেলে পল্লীর অদূরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
বনবিভাগ জানিয়েছে, বৈরী আবহাওয়ার মধ্যে কূলে ফেরার সময় নাম বিহীন ট্রলার দুটি ডুবে যায়। দুই ট্রলারে ২০ জন জেলে ছিলেন। পরে অন্য ট্রলারের জেলেরা সাগরে ভাসমান জেলেদের উদ্ধার করে। ট্রলারে ওঠানোর পর পরই জেলে রুহুল আমীন মারা যান। এসব জেলেদের বাড়ি পাথরঘাটার চরদুয়ানী এলাকায়।
দুবলা জেলে পল্লী টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রহ্লাদ চন্দ্র রায় দুপুর দুইটার দিকে মুঠোফোনে জানান, প্রচন্ড ঢেউয়ে টিকতে না পেরে নাম বিহীন ট্রলার দুটি অফিস কিল্লার দিকে আসছিল। এমন সময় ট্রলার দুটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। ডুবে যাওয়া দুই ট্রলারের ২০ জেলের মধ্যে ট্রলার মালিক রুহুল আমীনের মৃত্যু হয়।
ডুবে যাওয়া অপর ট্রলারের মালিক চরদুয়ানীর মৎস্য ব্যবসায়ী মো. নাছির উদ্দিন জানান, উদ্ধারকারী ট্রলারের জেলেরা মোবাইল ফোনে তাকে দুর্ঘটনার খবর জানায়। নিহত রুহুল আমীন নিজেই একটি ট্রলারের মালিক। উদ্ধারকারীরা মৃত ও জীবিত জেলেদের চরদুয়ানী নিয়ে আসছে বলে জানান তিনি।

বঙ্গোপসাগরে ফিশিং ট্রলার ডুবিতে জেলের মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ০৬:১৫:১৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
নাজমুল ইসলাম, শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ।।
বঙ্গোপসাগরে দুটি ফিশিং ট্রলার ডুবির খবর পাওয়া গেছে। এঘটনায় রুহুল আমীন খান (৪৫) নামে এক জেলে মারা গেছেন। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর)  সকাল ৭টার দিকে পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলা জেলে পল্লীর অদূরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
বনবিভাগ জানিয়েছে, বৈরী আবহাওয়ার মধ্যে কূলে ফেরার সময় নাম বিহীন ট্রলার দুটি ডুবে যায়। দুই ট্রলারে ২০ জন জেলে ছিলেন। পরে অন্য ট্রলারের জেলেরা সাগরে ভাসমান জেলেদের উদ্ধার করে। ট্রলারে ওঠানোর পর পরই জেলে রুহুল আমীন মারা যান। এসব জেলেদের বাড়ি পাথরঘাটার চরদুয়ানী এলাকায়।
দুবলা জেলে পল্লী টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রহ্লাদ চন্দ্র রায় দুপুর দুইটার দিকে মুঠোফোনে জানান, প্রচন্ড ঢেউয়ে টিকতে না পেরে নাম বিহীন ট্রলার দুটি অফিস কিল্লার দিকে আসছিল। এমন সময় ট্রলার দুটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। ডুবে যাওয়া দুই ট্রলারের ২০ জেলের মধ্যে ট্রলার মালিক রুহুল আমীনের মৃত্যু হয়।
ডুবে যাওয়া অপর ট্রলারের মালিক চরদুয়ানীর মৎস্য ব্যবসায়ী মো. নাছির উদ্দিন জানান, উদ্ধারকারী ট্রলারের জেলেরা মোবাইল ফোনে তাকে দুর্ঘটনার খবর জানায়। নিহত রুহুল আমীন নিজেই একটি ট্রলারের মালিক। উদ্ধারকারীরা মৃত ও জীবিত জেলেদের চরদুয়ানী নিয়ে আসছে বলে জানান তিনি।