রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চন্দনাইশ সাতবাড়ীয়ায় জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকি নিয়ে চলছে ভূমি অফিসের কার্যক্রম

ঝুঁকিপূর্ণ চন্দনাইশ সাতবাড়ীয়া ইউনিয়ন ভুমি অফিস

ইসমাইল ইমন, চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি ।।
চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার গুরুত্বপূর্ণ থানা, চন্দনাইশ উপজেলার সাতবাড়ীয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসটি দীর্ঘ দিন যাবৎ জরাজীর্ণ এবং ঝুঁকিপূর্ণ। যে কোন সময় এ ইউনিয়ন ভূমি অফিসে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এই ভূমি অফিসে বৈদ্যুতিক লাইনের অসুবিধা সহ রয়েছে একাধিক সমস্যা।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, চন্দনাইশ সাতবাড়ীয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ২ কক্ষ বিশিষ্ট একতলা ভবনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ ভবনে সাতবাড়ীয়া, বৈলতলী, বরমা ইউনিয়নের মানুষের মোট ১৪টি মৌজার কাজ করার জন্য স্বাধীনতা পূর্ববর্তী সাতবাড়ীয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবনটি নির্মাণ করা হয়। দীর্ঘ সময় ধরে ইউনিয়ন ভূমি অফিসটি সংস্কার না করায় ছাদের আস্তর ভেঙে পড়ে ছাদ নষ্ট হয়ে যায়।বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টির সময় ছাদ থেকে পানি পড়ে মূল্যবান কাগজ পত্র সময় নষ্ট হয়ে যায়। উক্ত অফিসে দৈনন্দিন কর্মকান্ডে আসা জনসাধারণের জন্য নেই পানিপান করার সুব্যবস্থা। উক্ত অফিসে ৬ জনের কর্মস্থলে ৩ টি পদ খালি রয়েছে বলে জানিয়েছেন দায়িত্বরত কর্মকর্তারা।
এ ব্যাপারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহফুজা জেরিন  জানান তিনি সদ্য এই উপজেলায় যোগদান করেছেন। তিনি সরেজমিনে সরেজমিন পরিদর্শন করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

চন্দনাইশ সাতবাড়ীয়ায় জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকি নিয়ে চলছে ভূমি অফিসের কার্যক্রম

প্রকাশের সময় : ০১:০৮:০১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
ইসমাইল ইমন, চট্টগ্রাম মহানগর প্রতিনিধি ।।
চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার গুরুত্বপূর্ণ থানা, চন্দনাইশ উপজেলার সাতবাড়ীয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসটি দীর্ঘ দিন যাবৎ জরাজীর্ণ এবং ঝুঁকিপূর্ণ। যে কোন সময় এ ইউনিয়ন ভূমি অফিসে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এই ভূমি অফিসে বৈদ্যুতিক লাইনের অসুবিধা সহ রয়েছে একাধিক সমস্যা।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, চন্দনাইশ সাতবাড়ীয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের ২ কক্ষ বিশিষ্ট একতলা ভবনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ ভবনে সাতবাড়ীয়া, বৈলতলী, বরমা ইউনিয়নের মানুষের মোট ১৪টি মৌজার কাজ করার জন্য স্বাধীনতা পূর্ববর্তী সাতবাড়ীয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবনটি নির্মাণ করা হয়। দীর্ঘ সময় ধরে ইউনিয়ন ভূমি অফিসটি সংস্কার না করায় ছাদের আস্তর ভেঙে পড়ে ছাদ নষ্ট হয়ে যায়।বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টির সময় ছাদ থেকে পানি পড়ে মূল্যবান কাগজ পত্র সময় নষ্ট হয়ে যায়। উক্ত অফিসে দৈনন্দিন কর্মকান্ডে আসা জনসাধারণের জন্য নেই পানিপান করার সুব্যবস্থা। উক্ত অফিসে ৬ জনের কর্মস্থলে ৩ টি পদ খালি রয়েছে বলে জানিয়েছেন দায়িত্বরত কর্মকর্তারা।
এ ব্যাপারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহফুজা জেরিন  জানান তিনি সদ্য এই উপজেলায় যোগদান করেছেন। তিনি সরেজমিনে সরেজমিন পরিদর্শন করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।