সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হবিগঞ্জের বহুলায় শাশুড়িকে খুনের অভিযোগে পুত্রবধূ আটক

মীর দুলাল, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ।।
হবিগঞ্জ শহরতলীর বহুলা গ্রামে শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পুত্রবধূর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুত্রবধূ নাজমা চৌধুরীকে আটক করেছে পুলিশ।
স্থানীয় সূত্র জানা যায়  পুত্রবধূ নাজমা চৌধুরীর সাথে তার শাশুড়ী শফর চাঁন বিবির প্রায়ই তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ঝগড়া চলছিল। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তাদের মধ্যে  বাকবিতন্ডা হয়। পরে শাশুড়ীকে কুপিয়ে আহত করলে স্হানীয় লোকজন উদ্বার করে হবিগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতাল নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা করায়।
বুধবার (৬ অক্টোবর) ভোর ৩ টায় তার শাশুড়ী শফর চাঁন বিবি (৭০) পুনরায় অসুস্থ হয়ে পড়লে সদর হাসপাতাল নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত তাকে ঘোষণা করেন।
এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুত্রবধূ নাজমা চৌধুরীকে আটক করেছে।
হবিগঞ্জ সদর থানার পুলিশের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মৃতদেহ উদ্বারের পর সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেন।
হবিগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মাসুক আলী জানান, লাশ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।ঘটনায় জড়িত পুত্রবধূ নাজমা চৌধুরীকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

হবিগঞ্জের বহুলায় শাশুড়িকে খুনের অভিযোগে পুত্রবধূ আটক

প্রকাশের সময় : ১২:৫৩:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ অক্টোবর ২০২১
মীর দুলাল, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ।।
হবিগঞ্জ শহরতলীর বহুলা গ্রামে শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পুত্রবধূর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুত্রবধূ নাজমা চৌধুরীকে আটক করেছে পুলিশ।
স্থানীয় সূত্র জানা যায়  পুত্রবধূ নাজমা চৌধুরীর সাথে তার শাশুড়ী শফর চাঁন বিবির প্রায়ই তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ঝগড়া চলছিল। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তাদের মধ্যে  বাকবিতন্ডা হয়। পরে শাশুড়ীকে কুপিয়ে আহত করলে স্হানীয় লোকজন উদ্বার করে হবিগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতাল নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা করায়।
বুধবার (৬ অক্টোবর) ভোর ৩ টায় তার শাশুড়ী শফর চাঁন বিবি (৭০) পুনরায় অসুস্থ হয়ে পড়লে সদর হাসপাতাল নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত তাকে ঘোষণা করেন।
এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুত্রবধূ নাজমা চৌধুরীকে আটক করেছে।
হবিগঞ্জ সদর থানার পুলিশের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মৃতদেহ উদ্বারের পর সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেন।
হবিগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মাসুক আলী জানান, লাশ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।ঘটনায় জড়িত পুত্রবধূ নাজমা চৌধুরীকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।