শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হবিগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে শতাধিক আহত

মীর দুলাল, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি।। 

বিগঞ্জ শায়েস্তানগর পয়েন্টসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষ  পুলিশসহ কমপক্ষে শতাধিক গুরুতর আহত হয়।

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) ২ ঘঠিকায় হতে বিকাল পর্যন্ত  বিভিন্ন স্থানে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে।

গুরুতর আহত পুলিশ সদস্য ও বিএনপি নেতাকর্মীদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গুরুতর আহত অবস্থায় জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ রাজিব আহমেদ রিংগন ও ছাত্রদল নেতা সাইদুর রহমানকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসা ও তার মুক্তির দাবিতে হবিগঞ্জ শহরে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে বিএনপি।

এতে দলটির কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীসহ স্থানীয় নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশ বাঁধা দিলে নেতাকর্মীদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বাঁধে!

এ সময় বিএনপি নেতাকর্মী ইটপাটকেল ছুঁড়ে ও অন্যদিক থেকে পুলিশ টিয়ার গ্যাস এবং রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

এর আগে, শহরের পইল রোড, বেবিস্ট্যান্ড, ছিড়াখানা রোডসহ কয়েকটি স্থানে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়।

হবিগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজা আক্তার শিমুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে হবিগঞ্জে সমাবেশের ঘোষণা দেয় বিএনপি।

সেই সমাবেশে যোগ দিতে ইতোমধ্যে হবিগঞ্জে পৌঁছেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবেদিন ফারুক।

সেই সমাবেশে যাওয়ার সময় সমর্থক ও নেতাকর্মীদের মুখোমুখি হয় পুলিশের সাথে।

ওই সময় পুলিশ বাধা দিলে বাকবিতণ্ডা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

হবিগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে শতাধিক আহত

প্রকাশের সময় : ১১:৩২:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ ডিসেম্বর ২০২১

মীর দুলাল, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি।। 

বিগঞ্জ শায়েস্তানগর পয়েন্টসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষ  পুলিশসহ কমপক্ষে শতাধিক গুরুতর আহত হয়।

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) ২ ঘঠিকায় হতে বিকাল পর্যন্ত  বিভিন্ন স্থানে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করেছে।

গুরুতর আহত পুলিশ সদস্য ও বিএনপি নেতাকর্মীদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গুরুতর আহত অবস্থায় জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ রাজিব আহমেদ রিংগন ও ছাত্রদল নেতা সাইদুর রহমানকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

জানা যায়, বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসা ও তার মুক্তির দাবিতে হবিগঞ্জ শহরে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে বিএনপি।

এতে দলটির কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীসহ স্থানীয় নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশ বাঁধা দিলে নেতাকর্মীদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বাঁধে!

এ সময় বিএনপি নেতাকর্মী ইটপাটকেল ছুঁড়ে ও অন্যদিক থেকে পুলিশ টিয়ার গ্যাস এবং রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

এর আগে, শহরের পইল রোড, বেবিস্ট্যান্ড, ছিড়াখানা রোডসহ কয়েকটি স্থানে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়।

হবিগঞ্জ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজা আক্তার শিমুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে হবিগঞ্জে সমাবেশের ঘোষণা দেয় বিএনপি।

সেই সমাবেশে যোগ দিতে ইতোমধ্যে হবিগঞ্জে পৌঁছেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবেদিন ফারুক।

সেই সমাবেশে যাওয়ার সময় সমর্থক ও নেতাকর্মীদের মুখোমুখি হয় পুলিশের সাথে।

ওই সময় পুলিশ বাধা দিলে বাকবিতণ্ডা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।