মঙ্গলবার, ০৬ জুন ২০২৩, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

প্রধানমন্ত্রীকে বিব্রত করতে আমার পদত্যাগের গুঞ্জন : গওহর রিজভী

ফাইল ছবি

ডেস্ক রিপোর্ট ।।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক উপদেষ্টা থেকে পদত্যাগের গুঞ্জন উঠার প্রেক্ষিতে ড. গওহর রিজভী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিব্রত করতে আমার পদত্যাগের গুঞ্জন ছড়ানো হয়।
 গুলশানের এক বই প্রকাশনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।
রাজধানীর গুলশানের একটি ক্লাবে সাবেক পররাষ্ট্র সচিব হেমায়েত উদ্দিনের লেখা ‘ডিপ্লোম্যাসি ইন অবসকিউরিটি’ শীর্ষক বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন ড. গওহর রিজভী।
বই প্রকাশের অনুষ্ঠানে মন্ত্রী, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সাবেক আমলা ও কূটনীতিকের উপস্থিতিতে পুরো আয়োজন রীতিমতো মিলনমেলায় পরিণত হয়। অনুষ্ঠানের মাঝামাঝিতে বিদায় নেন গওহর রিজভী।
যাওয়ার পথেই সাংবাদিকরা গওহর রিজভীর মুখোমুখি হন। প্রশ্ন করেন- আপনি নাকি পদত্যাগ করেছেন, জল্পনা-কল্পনার রহস্য কী? জবাবে গওহর রিজভী বলেন, ‘দেখেন ১১ বছর ধরেই এমনটি শুনছি। ১৩ বছর ধরে আছি আমি। প্রায় প্রতি দুই বছর পর পর আমার পদত্যাগের গুঞ্জন রটে। এটা যারা ছড়ায় তারা হয় আমাকে সরিয়ে দিতে চায়, না হয় প্রধানমন্ত্রীকে বিব্রত করতে চায়। তবে আমি আপনাদের নিশ্চিত করতে চাই- প্রধানমন্ত্রী এতে বিব্রত নন, আর আমি তো আছিই।’
একপর্যায়ে এক সাংবাদিক জানতে চান- ২০২২ সালের ৭ এপ্রিল পর্যন্ত গওহর রিজভীর ছুটিতে থাকার তথ্য সত্য কিনা? জবাবে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, ওই সময় পর্যন্ত আমার দেশের বাইরে একটা কাজে থাকার কথা ছিল। আমি গিয়েছিলাম কাজটি করতে, এখন এসেছি, আবার যাব। ওই যাওয়া-আসার মধ্যেই কাজটি হয়ে যাবে।

প্রধানমন্ত্রীকে বিব্রত করতে আমার পদত্যাগের গুঞ্জন : গওহর রিজভী

প্রকাশের সময় : ০৩:০০:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২১
ডেস্ক রিপোর্ট ।।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক উপদেষ্টা থেকে পদত্যাগের গুঞ্জন উঠার প্রেক্ষিতে ড. গওহর রিজভী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিব্রত করতে আমার পদত্যাগের গুঞ্জন ছড়ানো হয়।
 গুলশানের এক বই প্রকাশনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।
রাজধানীর গুলশানের একটি ক্লাবে সাবেক পররাষ্ট্র সচিব হেমায়েত উদ্দিনের লেখা ‘ডিপ্লোম্যাসি ইন অবসকিউরিটি’ শীর্ষক বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন ড. গওহর রিজভী।
বই প্রকাশের অনুষ্ঠানে মন্ত্রী, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সাবেক আমলা ও কূটনীতিকের উপস্থিতিতে পুরো আয়োজন রীতিমতো মিলনমেলায় পরিণত হয়। অনুষ্ঠানের মাঝামাঝিতে বিদায় নেন গওহর রিজভী।
যাওয়ার পথেই সাংবাদিকরা গওহর রিজভীর মুখোমুখি হন। প্রশ্ন করেন- আপনি নাকি পদত্যাগ করেছেন, জল্পনা-কল্পনার রহস্য কী? জবাবে গওহর রিজভী বলেন, ‘দেখেন ১১ বছর ধরেই এমনটি শুনছি। ১৩ বছর ধরে আছি আমি। প্রায় প্রতি দুই বছর পর পর আমার পদত্যাগের গুঞ্জন রটে। এটা যারা ছড়ায় তারা হয় আমাকে সরিয়ে দিতে চায়, না হয় প্রধানমন্ত্রীকে বিব্রত করতে চায়। তবে আমি আপনাদের নিশ্চিত করতে চাই- প্রধানমন্ত্রী এতে বিব্রত নন, আর আমি তো আছিই।’
একপর্যায়ে এক সাংবাদিক জানতে চান- ২০২২ সালের ৭ এপ্রিল পর্যন্ত গওহর রিজভীর ছুটিতে থাকার তথ্য সত্য কিনা? জবাবে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, ওই সময় পর্যন্ত আমার দেশের বাইরে একটা কাজে থাকার কথা ছিল। আমি গিয়েছিলাম কাজটি করতে, এখন এসেছি, আবার যাব। ওই যাওয়া-আসার মধ্যেই কাজটি হয়ে যাবে।