সোমবার, ০৫ জুন ২০২৩, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

যশোরে একই রাতে শিক্ষক-ডাক্তার ও ব্যাংকারের বাড়ীতে চুরি

প্রতীকী ছবি

যশোর প্রতিনিধি ।।

শোর একই রাতে কাজীপাড়া কাঁঠালতলা এলাকায় তিন বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটেছে। চোরেরা শিক্ষক, ডাক্তার ও একজন ব্যাংকারের বাসায় চুরির ঘটনা ঘটেছে। নগদ টাকা সহ প্রায় ৬০ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে গেছে চোরেরা। এখনও পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ করেনি কেউ।

জানা যায়, শহরের পুরাতন কসবা রায়পাড়া এলাকার ক্যান্টনমেন্ট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিকেকানন্দ পালের বাসায় বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চোরেরা ছাদ দিয়ে প্রবেশ করে ফ্যান পানির ট্যাপ ঝরনার যন্ত্রাংশ ও বিদ্যুতের বিভিন্ন ধরনের ক্যাবল চুরি করে নিয়ে যায়।যার আনুমানিক মুল্য প্রায় ২০ হাজার টাকা হবে বলে প্রাথমিক ধারনা দেন শিক্ষক বিবেকানন্দ পাল।

ঐরাতে একই এলাকার শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ প্রকাশ চন্দ্রের চেম্বারে গভীর রাতে প্রবেশ করে চোরেরা তার চেম্বার থেকে কিছু পরিক্ষা নিরীক্ষা করা যন্ত্রপাতি ও নগদ ৪/৫শত টাকাসহ ১০হাজার টাকার মালামাল নিয়ে যায়। এসসয় কিছু কাগজ পত্র তছনছ করে চোরেরা।

একই এলাকার নুর ইসলাম নামে এক ব্যাংকারের বাসায় প্রবেশ করে চোরেরা সিড়ি ঘরের নীচ থেকে বিদ্যুতের বিভিন্ন তার বোর্ড, মিটারসহ অন্যান্য তারও মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়।

ব্যাংকার নুর ইসলাম বলেন, চুরি হয়ে যাওয়া মালামালের মুল্য আনুমানিক মুল্য ৩০ হাজার টাকা হবে বলে জানান তিনি।

একই রাতে তিনটি চুরির ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তরা থানায় অভিযোগ করবেন বলে জানান তারা।

এবিষয়ে যশোর কোতয়ালী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শেখ তাসমিম আলম বলেন, চুরির ঘটনার সংবাদের বিষয়ে এখনও পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করতে আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 নজরুল/বার্তাকণ্ঠ

 

সেনাবাহিনী দখলে নিলো কেএনএফের আস্তানা ও প্রশিক্ষণ ক্যাম্প

যশোরে একই রাতে শিক্ষক-ডাক্তার ও ব্যাংকারের বাড়ীতে চুরি

প্রকাশের সময় : ০৫:৪৭:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২২

যশোর প্রতিনিধি ।।

শোর একই রাতে কাজীপাড়া কাঁঠালতলা এলাকায় তিন বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটেছে। চোরেরা শিক্ষক, ডাক্তার ও একজন ব্যাংকারের বাসায় চুরির ঘটনা ঘটেছে। নগদ টাকা সহ প্রায় ৬০ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে গেছে চোরেরা। এখনও পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ করেনি কেউ।

জানা যায়, শহরের পুরাতন কসবা রায়পাড়া এলাকার ক্যান্টনমেন্ট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিকেকানন্দ পালের বাসায় বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চোরেরা ছাদ দিয়ে প্রবেশ করে ফ্যান পানির ট্যাপ ঝরনার যন্ত্রাংশ ও বিদ্যুতের বিভিন্ন ধরনের ক্যাবল চুরি করে নিয়ে যায়।যার আনুমানিক মুল্য প্রায় ২০ হাজার টাকা হবে বলে প্রাথমিক ধারনা দেন শিক্ষক বিবেকানন্দ পাল।

ঐরাতে একই এলাকার শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ প্রকাশ চন্দ্রের চেম্বারে গভীর রাতে প্রবেশ করে চোরেরা তার চেম্বার থেকে কিছু পরিক্ষা নিরীক্ষা করা যন্ত্রপাতি ও নগদ ৪/৫শত টাকাসহ ১০হাজার টাকার মালামাল নিয়ে যায়। এসসয় কিছু কাগজ পত্র তছনছ করে চোরেরা।

একই এলাকার নুর ইসলাম নামে এক ব্যাংকারের বাসায় প্রবেশ করে চোরেরা সিড়ি ঘরের নীচ থেকে বিদ্যুতের বিভিন্ন তার বোর্ড, মিটারসহ অন্যান্য তারও মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়।

ব্যাংকার নুর ইসলাম বলেন, চুরি হয়ে যাওয়া মালামালের মুল্য আনুমানিক মুল্য ৩০ হাজার টাকা হবে বলে জানান তিনি।

একই রাতে তিনটি চুরির ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তরা থানায় অভিযোগ করবেন বলে জানান তারা।

এবিষয়ে যশোর কোতয়ালী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শেখ তাসমিম আলম বলেন, চুরির ঘটনার সংবাদের বিষয়ে এখনও পর্যন্ত থানায় কেউ অভিযোগ করতে আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 নজরুল/বার্তাকণ্ঠ