বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্য পাওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান আর নেই

সংগৃহীত ছবি

নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি, বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্য পাওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট এস এম ফজলুর রহমান জিন্নাহ আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শহরের আলাদাতপুর এলাকার নিজ বাসভবনে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। করোনায় আক্রান্ত ছিলেন তিনি।

বাদ আছর গার্ড অব অনার শেষে শহরের আলাদাতপুর পৌর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে। ২ মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন এই নেতা।

জানা গেছে, ১৯৬৯ ও ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নড়াইলে জনসভা করতে গেলে তখন অ্যাডভোকেট এস এম ফজলুর রহমান জিন্নাহ তার সঙ্গে ছিলেন।

ফজলুর রহমান নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি, নড়াইল জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি, নড়াইল জজ কোর্টের সাবেক পিপি, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহসভাপতি ও উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেছেন।

এই নেতার মৃত্যুতে তার পরিবারের প্রতি শোক জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, সহসভাপতি ও পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা, যুগ্ম-সম্পাদক বাবুল কুমার সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশিষ কুন্ডু মিটুল, সাংগঠনিক সম্পাদকসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্য পাওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান আর নেই

প্রকাশের সময় : ০১:১৭:১০ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২

নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি, বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্য পাওয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট এস এম ফজলুর রহমান জিন্নাহ আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শহরের আলাদাতপুর এলাকার নিজ বাসভবনে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। করোনায় আক্রান্ত ছিলেন তিনি।

বাদ আছর গার্ড অব অনার শেষে শহরের আলাদাতপুর পৌর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে। ২ মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন এই নেতা।

জানা গেছে, ১৯৬৯ ও ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নড়াইলে জনসভা করতে গেলে তখন অ্যাডভোকেট এস এম ফজলুর রহমান জিন্নাহ তার সঙ্গে ছিলেন।

ফজলুর রহমান নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি, নড়াইল জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি, নড়াইল জজ কোর্টের সাবেক পিপি, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহসভাপতি ও উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেছেন।

এই নেতার মৃত্যুতে তার পরিবারের প্রতি শোক জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু, সহসভাপতি ও পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা, যুগ্ম-সম্পাদক বাবুল কুমার সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশিষ কুন্ডু মিটুল, সাংগঠনিক সম্পাদকসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।