Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১বৃহস্পতিবার , ৩১ মার্চ ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পুতিনকে ভয়ে সঠিক তথ্য দিচ্ছেন না উপদেষ্টারা: যুক্তরাষ্ট্র

ডেস্ক রিপোর্ট
মার্চ ৩১, ২০২২ ২:৪৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তার উপদেষ্টাদের দ্বারা বিভ্রান্ত। তারা ইউক্রেনের যুদ্ধ কতটা খারাপ যাচ্ছে এবং পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞাগুলো কতটা ক্ষতিকর তা বলতে ভয় পাচ্ছেন।

বুধবার (৩০ মার্চ) হোয়াইট হাউস ও ইউরোপীয় কর্মকর্তারা এমন দাবি করেছেন।

হোয়াইট হাউসের কমিউনিকেশন ডিরেক্টর কেট বেডিংফিল্ড এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের কাছে তথ্য আছে, পুতিন রাশিয়ান সামরিক বাহিনী দ্বারা বিভ্রান্ত হয়েছেন। এ কারণে পুতিন এবং তার সামরিক নেতৃত্বের মধ্যে ক্রমাগত উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

তিনি বলেন, ইউক্রেনে হামলা চালানো ‘রাশিয়ার জন্য একটি কৌশলগত ত্রুটি, তা দেখানোর জন্যই যুক্তরাষ্ট্র এখন এ তথ্য সামনে এনেছে’।

ক্রেমলিন এ দাবি সম্পর্কে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করেনি আবং ওয়াশিংটনে রাশিয়ান দূতাবাস মন্তব্যের জন্য অনুরোধ করা হলে তারা কোনও সাড়া দেয়নি।

একজন জ্যেষ্ঠ ইউরোপীয় কূটনীতিক বলেছেন, মার্কিন মূল্যায়ন ইউরোপীয় চিন্তাধারার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ।

ওই কূটনীতিক বলেন, পুতিন ভেবেছিলেন প্রকৃত অবস্থার চেয়ে অভিযান ভালোভাবে চলছে। এটি হলো ‘জ্বি হুজুর’ ধরনের লোক দিয়ে নিজেকে ঘিরে রাখা কিংবা খুব লম্বা টেবিলের শেষ প্রান্তে তাদের সঙ্গে বসে থাকার সমস্যা।

এদিকে, বেসামরিক নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ার জন্য ইউক্রেনের অবরুদ্ধ বন্দর শহর মারিউপোলে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে রাশিয়া।

উল্লেখ্য, পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য ২০০৮ সাল থেকে আবেদন করে ইউক্রেন। মূলত, এ নিয়েই রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। তবে সম্প্রতি ন্যাটো ইউক্রেনকে পূর্ণ সদস্যপদ না দিলেও ‘সহযোগী দেশ’ হিসেবে মনোনীত করায় দ্বন্দ্বের তীব্রতা আরও বাড়ে। ন্যাটোর সদস্যপদের আবেদন প্রত্যাহারে চাপ প্রয়োগ করতে যুদ্ধ শুরুর দুই মাস আগ থেকেই ইউক্রেন সীমান্তে প্রায় দুই লাখ সেনা মোতায়েন রাখে মস্কো। কিন্তু এই কৌশল কোনো কাজে না আসায় গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দুই ভূখণ্ড দনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় রাশিয়া। ঠিক তার দুদিন পর ২৪ তারিখ ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এরপর রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী স্থল, আকাশ ও সমুদ্রপথে ইউক্রেনে এই হামলা শুরু করে।

এ দিকে চলমান এই যুদ্ধে ইতোমধ্যে ইউক্রেন ছেড়েছেন প্রায় ৩৯ লাখ মানুষ। এ ছাড়া জাতিসংঘ জানিয়েছে, রুশ অভিযানে ইউক্রেনের এক হাজার ১৭৯ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন।

যুদ্ধে ইউক্রেনের ১৩শ’ সেনা এবং রাশিয়ার ১৭ হাজার ৩০০ সৈন্য নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেন। তবে রাশিয়া বলছে, যুদ্ধে তাদের ১ হাজার ৩৫১ সেনা নিহত এবং ইউক্রেনের আড়াই হাজারের বেশি সেনা নিহত হয়েছেন।

সূত্র : রয়টার্স

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।