Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১শুক্রবার , ১ এপ্রিল ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মেধাবী ছাত্রী সুমাইয়া পঙ্গু হতে চলেছে, চিকিৎসায় সহায়তা দিন

আশরাফুজ জামান বাবু, ঝিকরগাছা প্রতিনিধি
এপ্রিল ১, ২০২২ ১০:৪৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

স্বপ্ন ছিল লেখাপড়া শিখে সরকারি চাকরি করবে। দরিদ্র পিতামাতার অভাবের সংসারে স্বাচ্ছন্দ্য ফিরিয়ে আনবে। কিন্তু একটি দুর্ঘটনা সব স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ করে দিলো। ১৭ বছর বয়সী সুমাইয়া খাতুন এখন বিছানায় শুয়ে তার স্বপ্নগুলোকে ধুঁকে ধুঁকে মরতে দেখছে।
ঝিকরগাছা উপজেলার নির্বাসখোলা ইউনিয়নের নোয়ালি মোড়লপাড়ার এরশাদ আলীর, আবেদা খাতুন দম্পতির তিন সন্তানের মধ্যে সবার ছোট মেয়ে সুমাইয়া। ২০২১ সালে নোয়ালি নবারুণ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ৪.১৭ পয়েন্ট নিয়ে মানবিক বিভাগ থেকে এস এস সি পাশ করে মেধাবী সুমাইয়া। তারপর উচ্চ শিক্ষার জন্য ভর্তি হয় পাশের গ্রামের রঘুনাথনগর মহাবিদ্যালয়ে।
গত ২/৩/২১ ইং তারিখ ছিল কলেজের নবীন বরন অনুষ্ঠান। অন্য শিক্ষার্থীদের মতো সুমাইয়াও সেদিন পরিপাটি হয়ে ভ্যানে চড়ে কলেজের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়। পথিমধ্যে ভ্যানের চাকার সাথে ওড়না পেচিয়ে রাস্তার ওপর পড়ে যায়। ঠিক সেইসময় পেছন থেকে আসা একটি ইটভর্তি ট্রলি গড়ি তার শরীরের ওপর উঠে যায়। মারাত্মক আহত অবস্থায় যশোর পংগু হাসপাতালে ভর্তি করে পরীক্ষা নীরিক্ষা করার পর দেখা যায় তার মাজার হাড় ভেঙে গেছে। ডাঃ আব্দুর রউফের তত্বাবধানে ৪/৩/২২ তারিখে অপারেশন করে হাড় জোড়া লাগানো হয়। এখন পর্যন্ত সুমাইয়া খাতুনের দিনমজুর পিতা ধারদেনা করে তিন লক্ষ টাকা খরচ করে মেয়ের চিকিৎসা করিয়েছে কিন্তু আর সম্ভব হচ্ছে না। বর্তমানে বিনা চিকিৎসায় মেয়েটি ঘরে শুয়ে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে। তার চিকিৎসা শেষ করতে এখনও প্রায় দুই লক্ষ টাকা প্রয়োজন। এজন্য সুমাইয়ার পিতা সমাজের বিত্তবান মানুষের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছেন।
আসুন যে যেভাবে পারি সুমাইয়ার পাশে দাড়ায়। তার ভবিষ্যৎ স্বপ্ন পুরণে সহযোগিতার হাত বাড়ায়…
সুমাইয়ার ব্যাংক একাউন্ট নং ৩৪২১৩২৪২ জনতা ব্যাংক, ঝিকরগাছা শাখা। মোবাইল ও নগদ একাউন্ট নং ০১৭৭১২৫১৯২৬
বার্তা/এন

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।