Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১রবিবার , ৩ এপ্রিল ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নওয়াজ শরিফের ওপর হামলা

ডেস্ক রিপোর্ট
এপ্রিল ৩, ২০২২ ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

আস্থাভোটের আগে পাকিস্তানে যখন দানা বাঁধছে অস্থিরতা তখনই দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ওপর হামলার অভিযোগ উঠল।

শনিবার (২ এপ্রিল) লন্ডনে নওয়াজ শরিফের ওপর এই হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে পাকিস্তানি এক সাংবাদিক দাবি করেছেন।  খবর এনডিটিভির। লন্ডনে নওয়াজের দফতরের ঠিক বাইরেই এই ঘটনা ঘটে।

লন্ডনে অতর্কিতেই নওয়াজ শরিফের ওপর এ হামলার ঘটনা ঘটে। ইমরান খানের রাজনৈতিক দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) এক কর্মী এই হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠেছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।

আহমাদ নুরানি নামের পাকিস্তানি ওই সাংবাদিক টুইটারে ফ্যাক্টফোকাস নামের পাকিস্তানি এক সংবাদমাধ্যমকে বলেন, নওয়াজ শরিফের ওপর লন্ডনে হামলার ঘটনা ঘটেছে। পিটিআইর এক কর্মী এই হামলা চালিয়েছেন। কখনো কোনো অবস্থাতেই কারো ওপর শারীরিক হামলা সহ্য করা হবে না। পিটিআই সব কিছু পেরিয়ে গেল এবার।

ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। আর এই ঘটনার পরেই কড়া ভাষায় ইমরান খানের সমালোচনা করেছেন মরিয়ম নেওয়াজ। ঘটনা প্রসঙ্গে একটি টুইট করেছেন তিনি। সেখানে ইমরানের গ্রেফতারের দাবিতেও আওয়াজ তুলেছেন তিনি।

ঘটনার সময়ে দেহরক্ষী থাকলেও অভিযুক্ত যুবককে ঠেকানো সম্ভব হয়নি। তার ওপরেও হামলা হয় বলে অভিযোগ। 
এদিকে সরকারের ভাগ্য নির্ধারণে জাতীয় পরিষদে ভোট হওয়ার একদিন আগে সরাসরি সাধারণ মানুষের ফোন ধরছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। রেডিও, টেলিভিশন ও ডিজিটাল মিডিয়ায় তার এই প্রশ্ন ও জবাবের অধিবেশন সম্প্রচার করা হচ্ছে। এ সময়ে তিনি বলেন, রাজনীতিবিদদের ছাগলের মতো কিনে নেওয়া হচ্ছে।

শনিবার (২ এপ্রিল) স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে পাঁচটা থেকে ইমরান খানের কাছে সরাসরি ফোন কল আসা শুরু হয়েছে। ০৫১-৯২১০৮০৯ নম্বরে ফোন করে যে কেউ তাকে প্রশ্ন করতে পারছেন। তাদের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আলাপ করছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী।

তবে এই অধিবেশন কতক্ষণ স্থায়ী হবে, তা এখন পর্যন্ত জানা সম্ভব হয়নি। অধিবেশনের শুরুতে ইমরান খান বলেন, আপনাদের টেলিফোন কল ধরার আগে আমি দেশের জনগণের জন্য পাঁচ মিনিট সময় নিয়ে কিছু বলতে চাই। কারণ পাকিস্তান এখন এক চূড়ান্ত সময়ে দাঁড়িয়ে আছে। এটি দেশের ভবিষ্যতের জন্য এক যুদ্ধ।

সাবেক এই কিংবদন্তি ক্রিকেট তারকা বলেন, আমার সামনে দুটো পথ আছে। আমি ধ্বংসাত্মক কিংবা সম্মানজনক পথ বেছে নিতে পারি। সম্মানের পথটি কঠিন হলেও সেই পথই আমাদের জন্য ভালো। এই পথ ধরে দেশে বিপ্লব হয়েছে। এরপর দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে তিনি আলোচনা করেন।
 

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।