Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১বৃহস্পতিবার , ১২ মে ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

অশনি’র প্রভাবে খুলনাসহ ৫ বিভাগে ভারি বৃষ্টির আশঙ্কা

বার্তাকণ্ঠ ডেস্ক
মে ১২, ২০২২ ৩:১৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভারতের অন্ধ্র উপকূলে থাকা ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’ আরো দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি আরো দুর্বল হয়ে বৃহস্পতিবারের মধ্যে নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। বাংলাদেশ ও ভারতের আবহাওয়া বিভাগ থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

অশনির প্রভাবে বুধবার (১১ মে) সন্ধ্যা ৬টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশের ৫ বিভাগে ভারি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর।

আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে (ক্রমিক নম্বর-১৮) অধিদফতর জানিয়েছে, ভারতের অন্ধ্র উপকূল ও তৎসংলগ্ন পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘অসনি’ উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ৩২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ২৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে এক হাজার ১৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে এক ১৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিলো। এটি আরো উত্তর বা উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে পরবর্তীসময়ে ১২ ঘণ্টার মধ্যে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে।

ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার যা দমকা বা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর খুবই বিক্ষুব্ধ রয়েছে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। সেইসঙ্গে তাদের গভীর সাগরে বিচরণ না করতে বলা হয়েছে বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে।

তবে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ বুধবার সন্ধ্যায় সর্বশেষ বুলেটিন জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় অশনি দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি আরো উত্তর ও উত্তরপূর্বে ইয়ানাম, কাকিনাদা ও তুনি উপকূলের দিকে এগিয়ে বৃহস্পতিবারের মধ্যে নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে।

অন্যদিকে, ভারি বর্ষণের সতর্কবাণীতে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ‘অসনি’র অগ্রবর্তী অংশের প্রভাবে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তীসময়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, ঢাকা ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরণের ভারি (২৩ থেকে ৪৩ মিলিমিটার) থেকে অতিভারি (৮৯ মিলিমিটার বা এর বেশি) বর্ষণ হতে পারে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টা প্রায় সব বিভাগেই বৃষ্টি হয়েছে। রংপুর বিভাগে বৃষ্টির প্রবণতা কম ছিলো। এ সময় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে সিলেটে, ১৬৯ মিলিমিটার।

বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঢাকার আকাশে রোধ-মেঘের লুকোচুরি ছিলো। দুপুর থেকে শুরু হয় বৃষ্টি। রাত পর্যন্ত দফায় দফায় বৃষ্টি হয়েছে। বুধবার ঢাকায় ৩৬ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
 
%d bloggers like this: