Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১মঙ্গলবার , ১৭ মে ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন

অবিলম্বে বিএনপি নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা বন্ধের আহবান যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র

Link Copied!

অবিলম্বে সারাদেশে বিএনপি নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা বন্ধের আহবান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র নেতা-কর্মিরা। সাম্প্রতি সাবেক মন্ত্রী ও বিএনপি’র কেন্দ্রীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মিদের ওপর হামলার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র নেতা-কর্মীদের বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র নেতারা এ আহবান জানান। ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দির বাসায় ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে ‘ছাত্রলীগ-যুবলীগের হামলার’ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদে স্থানীয় সময় রোববার (১৫ মে) বিকেলে জ্যাকসন হাইটসের ডাইভারসিটি প্লাজায় এ সমাবেশের আয়োজন করে। সভায় আওয়ামী লীগ সরকার দলীয় নেতা-কর্মীদের দ্বারা দেশের বিভিন্ন স্থানে বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মিদের উপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। এ খবর জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম বাংলা প্রেস।
স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন কমিটি যুক্তরাষ্ট্রের উদ্যোগে আয়োজিত উক্ত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জিল্লুর রহমান জিল্লু এবং সঞ্চালনা করেন কমিটির সদস্য সচিব মিজানুর রহমান ভূইয়া। সভায় বক্তারা ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ দলীয় নেতা-কর্মীদের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে  শেখ হাসিনা সরকারকে ‘ভোটার বিহীন অবৈধ সরকার’ অ্যাখ্যায়িত করে অবিলম্বে সরকারের পদত্যাগ দাবী করেন। অন্যথায় দেশ ও প্রবাসে ব্যাপক গণ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে হাসিনা সরকারের পতন ঘটানো হবে জানান। এসময় বক্তারা বলেন, আমরা বাংলাদেশে শ্রীলঙ্কার মতো পরিস্থিতি চাই না।
সমাবেশে বিপুল সংখ্যক বিএনপি নেতা-কর্মী অংশ নেন। তারা খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার নেতৃত্বে দল ও দেশকে এগিয়ে নেওয়ার পক্ষে এবং সরকার বিরোধী নানা শ্লোগান দেয়।
সভায় বক্তারা বলেন, খন্দকার মোশাররফ হোসেন একজন সজ্জন ব্যক্তিত্ব, প্রথিতযশা রাজনীতিবিদ। তার বাড়িতে সামাজিক অনুষ্ঠানে সরকার দলীয় নেতা-কর্মীদের হামলা গণতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থার জন্য অশনিসংকেত। বিনা ভোটের সরকার তার অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখতে বেপরোয়া আচরণ করছে। সরকারি দলের নেতা-কর্মীরা দিনদিন হিংস্র হয়ে উঠছে। যা সমাজে ভয়াবহ বিপর্যয় ডেকে আনবে।
বক্তারা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, প্রশাসনের উপস্থিততে এরকম জঘন্য ঘটনা ঘটলেও প্রশাসন নিরব ভূমিকা পালন করছে। জনগণের মাঝে ভীতি সৃষ্টি করে মানুষের প্রতিবাদী কণ্ঠকে রোধ করতেই সরকারি দলের দুর্বৃত্তরা এই হামলা চালাচ্ছে। আমরা এ ধরনের কাপুরুষোচিত হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।
বক্তারা আরও বলেন, শুধু মোশাররফ হোসেন নয়, ঈদের মতো সার্বজনীন সামাজিক অনুষ্ঠানেও সরকারি দলের দুর্বৃত্তরা বিভিন্ন বিরোধী দল ও ভিন্নমতের নেতা-কর্মীদের উপরও একই কায়দায় সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে। সরকারকে এই দুর্বৃত্তায়নের পথ পরিহার করে গণতান্ত্রিক পথে ফিরে আসার ও প্রশাসনকে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানানো হয় সমাবেশ থেকে।

সমাবেশে বিএনপি নেতা আলহাজ সোলায়মান ভূইয়া, সামসুল ইসলাম মজনু, হেলাল উদ্দিন, জসিম ভূইয়া, মো: আনোয়ারুল ইসলাম, মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, ফিরোজ আহমেদ, শরীফ লস্কর, মাকসুদুল হক চৌধুরী, এম এ বাসেত, এমলাক হোসেন ফয়সাল, এম এ সবুর, ফারুক হোসেন মজুমদার, নীরা রব্বানী, মুক্তিযোদ্ধা সুরুজ্জামান, পারভেজ সাজ্জাদ, বদরুল হক, যুক্তরাষ্ট্র যুবদল নেতা আতিকুল হক আহাদ, আহবাব চৌধুরী খোকন, যুবদল নেতা আবু সাঈদ আহমদ, যুবদল নেতা মিজানুর রহমান, সারোয়ার খান বাবু, আমানত হোসেন আমান, শেখ হায়দার আলী, আনোয়ার হোসেন, সাইফুর খান হারুন, নিউইয়র্ক ষ্টেট বিএনপি নেতা মওলানা মোহাম্মদ আতিকুল্লাহ সহ সাইদুর রহমান ডিউক ও নূর মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর সরকার প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।