মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহে বাঁওড়ে ভেসে উঠল হাজার হাজার মণ মরা মাছ

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মাজদিয়া বাঁওড়ে মারা গেছে বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় তিন হাজার মণ মাছ। অক্সিজেন সংকটে মাছগুলো মারা গেছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য কর্মকর্তারা।
এলাকাবাসী জানান, এক হাজার ৪৪৪ বিঘার কালীগঞ্জ উপজেলার মাজদিয়া বাঁওড়। গত শনিবার কালবৈশাখীতে বাঁওড়ের পানির স্রোতনএকদিকে চলে যায়। এতে মাছ ফিরে আসার সময় কাঁদার মধ্যে চলে যায়। এর পর অল্প অল্প মাছ মরতে শুরু করে। মরা মাছগুলো ভেসে তীরে আসে। রোববার সকালে বাঁওড়ের দুই পাশে হাজার হাজার মণ মরা মাছ ভেসে আসে।স্থানীয় যুবক কনক কুমার জানান, গত শনিবার কিছু মাছ মরার পর আশপাশের মানুষ মাছগুলো নিয়ে যায়। এরপর রোববার সকালে বাঁওড়ের দুই পাশে হাজার হাজার মণ মরা মাছ ভেসে আসে। বড় বড় ৭-৮ কেজি ওজনের মাছও মরে গেছে। বাঁওড়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মহাদেব কুমার জানান, শনিবার ঝড়ের পর মাছ মারা গেছে। প্রায় তিন হাজার মণ মাছ মারা গেছে। এই বাঁওড়ে এর আগে কখনও এমন ঘটনা ঘটেনি। বাঁওড়টিতে প্রায় ৩০০ মানুষের কর্মসংস্থান রয়েছে। মাছগুলো মরে যাওয়ায় তারা অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।
কালীগঞ্জ উপজেলা মৎস্য অফিসের সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা হাসান সাজ্জাদ জানান, এ খবর শুনে তিনি বাঁওড় পরিদর্শন করেছেন। অক্সিজেন সংকটের কারণে বিপুল পরিমাণ মাছ মারা গেছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। মারা যাওয়া মাছগুলো দ্রুত তুলে নেওয়ার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয় এমন কাজ থেকে বিরত থাকুন- এসপি 

ঝিনাইদহে বাঁওড়ে ভেসে উঠল হাজার হাজার মণ মরা মাছ

প্রকাশের সময় : ১২:১৬:৫৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ মে ২০২২
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মাজদিয়া বাঁওড়ে মারা গেছে বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় তিন হাজার মণ মাছ। অক্সিজেন সংকটে মাছগুলো মারা গেছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য কর্মকর্তারা।
এলাকাবাসী জানান, এক হাজার ৪৪৪ বিঘার কালীগঞ্জ উপজেলার মাজদিয়া বাঁওড়। গত শনিবার কালবৈশাখীতে বাঁওড়ের পানির স্রোতনএকদিকে চলে যায়। এতে মাছ ফিরে আসার সময় কাঁদার মধ্যে চলে যায়। এর পর অল্প অল্প মাছ মরতে শুরু করে। মরা মাছগুলো ভেসে তীরে আসে। রোববার সকালে বাঁওড়ের দুই পাশে হাজার হাজার মণ মরা মাছ ভেসে আসে।স্থানীয় যুবক কনক কুমার জানান, গত শনিবার কিছু মাছ মরার পর আশপাশের মানুষ মাছগুলো নিয়ে যায়। এরপর রোববার সকালে বাঁওড়ের দুই পাশে হাজার হাজার মণ মরা মাছ ভেসে আসে। বড় বড় ৭-৮ কেজি ওজনের মাছও মরে গেছে। বাঁওড়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মহাদেব কুমার জানান, শনিবার ঝড়ের পর মাছ মারা গেছে। প্রায় তিন হাজার মণ মাছ মারা গেছে। এই বাঁওড়ে এর আগে কখনও এমন ঘটনা ঘটেনি। বাঁওড়টিতে প্রায় ৩০০ মানুষের কর্মসংস্থান রয়েছে। মাছগুলো মরে যাওয়ায় তারা অনেকেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।
কালীগঞ্জ উপজেলা মৎস্য অফিসের সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা হাসান সাজ্জাদ জানান, এ খবর শুনে তিনি বাঁওড় পরিদর্শন করেছেন। অক্সিজেন সংকটের কারণে বিপুল পরিমাণ মাছ মারা গেছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে। মারা যাওয়া মাছগুলো দ্রুত তুলে নেওয়ার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।