Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১শুক্রবার , ৩ জুন ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মেট্রো ওয়াশিংটন আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সা. সম্পাদক নুরুল আমিন নুরু

নোমান ইবনে সাবিত, নিউ ইয়র্ক থেকে
জুন ৩, ২০২২ ৮:১৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পেলেন নুরুল আমিন নুরু। দলের ভাবমুর্তি প্রশ্নবিদ্ধ করতে অতি সাম্প্রতি সভাপতির অনুমোদনহীন সভা আহবান, দলের ভিতর কোন্দল সৃষ্টি এবং ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের ভেতরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিক হারুন চৌধুরীকে অপদস্থ করার অপরাধে মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদকের পদ থেকে মাহমুদুন নবী বাকীকে অব্যহতি দেওয়ার পর ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন নুরুল আমীন নুরু। এ খবর জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম বাংলা প্রেস।
গত বুধবার (১ জুন)মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয় বলে বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাদেক এম খান জানিয়েছেন।
উল্লেখ্য, গত ৪ এপ্রিল বাংলাদেশ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ৫০তম বার্ষিকী এবং ৫২তম স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে ভার্জিনিয়া প্রবাসী লেখক সাংবাদিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুণ চৌধুরী যোগ দিতে গেলে মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মাহমুদুন নবী বাকী তাকে লাঞ্ছিত করেন। এ ঘটনায় মেট্রো ওয়াশিংটন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।
ঐদিন বাংলাদেশ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ৫০তম বার্ষিকী এবং ৫২তম স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য ওয়াশিংটন ডিসির বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত এম শহিদুল ইসলামের আমন্ত্রন পেয়ে ওইদিন বিকেলে দূতাবাসে হাজির হন হারুণ চৌধুরী। দূতাবাসে আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে হারুণ চৌধুরীকে দেখেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ভার্জিনিয়ার মানাসাস প্রবাসী আওয়ামী লীগ নামধারী কথিত নেতা মাহমুদুন নবী বাকী। হারুণ চৌধুরীকে অকথ্য ভাষায় গালাগালির এক পর্যায়ে আপনি কিসের মুক্তিযোদ্ধা? এখানে কেন এসেছেন বলে তাকে অপদস্থ করেন? বাকী’র এমন অসদাচরণে হতবাক হয়ে পড়েন উপস্থিত আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী, সাংবাদিকসহ অনেকেই। এ সময় দূতাবাসের অনুষ্ঠান অনুকূলে রাখার জন্য স্থানীয় আইনজীবী ও আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ আলমগীর ও নিউ ইয়র্ক প্রবাসী সাংবাদিক লাবলু আনসার মুক্তিযোদ্ধা হারুণ চৌধুরীকে শান্ত থাকার অনুরোধ করেন। ফলে মাহমুদুন নবী বাকীর অসভ্য ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ সহ্য করেও বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুণ চৌধুরী নিশ্চুপ থাকেন যাতে দূতাবাসের পরিবেশ বিনষ্ট না হয়।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।