Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১মঙ্গলবার , ২৮ জুন ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন

যুক্তরাষ্ট্রে পরিত্যক্ত লরিতে ৪৬ মরদেহ

ডেস্ক রিপোর্ট
জুন ২৮, ২০২২ ৯:৫৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের সান আন্তোনিও শহরের উপকণ্ঠে একটি পরিত্যক্ত লরিতে অন্তত ৪৬ জনের মৃতদেহ পাওয়া গেছে, যাদেরকে অভিবাসনপ্রত্যাশী বলে ধারণা করা হচ্ছে।

একটি স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, এ ছাড়া আরও এক ডজনের বেশি লোককে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিগুলোতে একটি বড় ট্রাকের চারপাশে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক জরুরি উদ্ধারকর্মীকে দেখা গেছে।

কেএসএটি টিভি চ্যানেলের তথ্যমতে, গাড়িটি সান আন্তোনিওর দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে রেললাইনের পাশে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, সান আন্তোনিও পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তারা পলাতক গাড়িচালককে খুঁজছেন।

টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের সান আন্তোনিও মূলত মার্কিন-মেক্সিকান সীমান্ত থেকে প্রায় ২৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্সেলো এব্রার্ড বলেন, দেশটির দূত ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন। তবে তিনি বলেন, নিহতদের জাতীয়তা এখনও জানা যায়নি।

কীভাবে এই মানুষগুলো মারা গেল তা তাৎক্ষণিকভাবে স্পষ্ট নয় এবং স্থানীয় পুলিশ এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানায়নি।

টেক্সাসের রিপাবলিকান গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট এই প্রাণহানির জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে দায়ী করেছেন এবং এই নিহতের ঘটনাকে ‘তার মারাত্মক উন্মুক্ত সীমান্ত নীতির ফলাফল’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

তবে অ্যাবটের বিরোধী পক্ষ ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী বেটো ও’রউরকে বলেন, মরদেহ উদ্ধারের প্রতিবেদনগুলো ভয়াবহ ছিল। ‘মানবপাচারের চক্রগুলোকে ভেঙে ফেলার জন্য এবং আইনিভাবে অভিবাসনের জন্য জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানান।

অভিবাসন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে একটি বিতর্কিত রাজনৈতিক সমস্যা। গত বছর রেকর্ড সংখ্যক অনথিভুক্ত অভিবাসীকে মেক্সিকো থেকে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে আসায় আটক করা হয়েছিল। তাদের অনেকেই অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ ও অনিরাপদ পথে অনুপ্রবেশ করেছিলেন।

সূত্র : বিবিসি

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।