Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১বৃহস্পতিবার , ১১ আগস্ট ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

তাইওয়ানে হামলা হলে চীনকে দাঁতভাঙা জবাবের হুঁশিয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের

ডেস্ক রিপোর্ট
আগস্ট ১১, ২০২২ ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

তাইওয়ানে হামলা হলে চীনকে দাঁতভাঙা জবাবের হুঁশিয়ারি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। একই সঙ্গে চীনকে কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে বলেও হুমকি দিয়েছেন মার্কিন স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। এর মধ্যেই তাইওয়ান ঘিরে সপ্তাহব্যাপী চীনা সামরিক মহড়া সমাপ্তির ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সামরিক বাহিনী। এর আগে চীনের সঙ্গে তীব্র উত্তেজনার মধ্যেই পাল্টা সামরিক মহড়া শুরু করে তাইওয়ান।

মার্কিন স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইপে সফরের পর চীন-তাইওয়ান উত্তেজনার পারদ বেড়েই চলেছে। যত সময় গড়াচ্ছে ততই তীব্র হচ্ছে সংকট। তাওয়ানকে ঘিরে চীনের সামরিক মহড়ার মধ্যেই এবার পাল্টা ব্যবস্থা নিল তাইপে। মঙ্গলবার (০৯ আগস্ট) তাইওয়ানের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলীয় এলাকায় শুরু করেছে সরাসরি গোলাবর্ষণের মহড়া।

তাইওয়ানের দাবি, চীনের হুমকি মোকাবিলায় নিজেদের প্রস্তুতির অংশ হিসেবেই এ তৎপরতা। বহির্বিশ্বের আগ্রাসন প্রতিহত করতে তাইওয়ানের সাধারণ মানুষ যে কোনো ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত বলে জানান অঞ্চলটির সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র।

তাইওয়ান সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল লৌ উই জে বলেন, আমাদের মাতৃভূমি রক্ষায় সেনাবাহিনী সদা প্রস্তুত। আমরা যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পিছপা হব না। একবিন্দুও ছাড় দেয়া হবে না।

এর মধ্যেই তাইওয়ানের চারপাশ ঘিরে নিজেদের সামরিক মহড়া অব্যাহত রেখেছে চীনা সামরিক বাহিনী। বিশ্লেষকরা বলছেন, শি জিনপিং প্রশাসন যে তৎপরতা শুরু করেছে তাতে যে কোনো মুহূর্তে তাইওয়ান দখলে নিতে পারে বেইজিং। এ ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো চাপ কাজে আসবে না বলেও মনে করছেন তারা।

ন্যাশনাল সোসাইটি অব তাইওয়ান স্টাডিসের ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াং জি বলেন, এক চীন নীতির বিষয়ে বেইজিং বারবার সবাইকে সতর্ক করে আসছে। চীন বলছে, তারা এ ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দেবে না। সুতরাং এটা স্পষ্ট যে, চীন যে কোনো পদক্ষেপ নিতে পারে। যুক্তরাষ্ট্র তাইওয়ানের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ার নামে দীর্ঘদিন ধরে এ অঞ্চলে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির চেষ্টা করছে। তবে তাদের এ চেষ্টা সফল হবে না।

এমন পরিস্থিতিতে বুধবার (১০ আগস্ট) তাইওয়ান ইস্যুতে একটি শ্বেতপত্র প্রকাশ করেছে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এতে জাতিসংঘের বিভিন্ন চুক্তি ও আন্তর্জাতিক আইনের বিষয় উল্লেখ করে তাইওয়ানকে নিজেদের ভূখণ্ড দাবি করা হয়।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।