Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১মঙ্গলবার , ৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পররাষ্ট্রমন্ত্রী অসুস্থ থাকায় ভারত সফরে যেতে পারেনি: তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
সেপ্টেম্বর ৬, ২০২২ ৬:২৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিছুটা অসুস্থ থাকায় ভারতে সফরে যেতে পারেনি বলে জানিয়েছেন… তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ৷ কিছুটা অসুস্থ থাকলে অফিস করা যায়, কিন্তু এরকম হাই লেভেল ভিজিট করা কঠিন বা সম্ভব নয়।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন প্রধানমন্ত্রীর দিল্লি সফর থেকে বাদ পড়া প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ভারতের প্রধানমন্ত্রী যখন বিদেশ যান, তখন সব সময় ভরতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন্তু তার সফর সঙ্গী হয় না। এখানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে যেটা বলা হয়েছে সেটা হলো, পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিছুটা অসুস্থ সে কারণে তিনি যাননি। এটিই আমাকে ধরে নিতে হবে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী অসুস্থ থাকলে অফিস করছেন কীভাবে, জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কিছুটা অসুস্থ থাকলে অফিস করা যায়। কিন্তু এরকম হাই লেভেল ভিজিট করা কঠিন বা সম্ভব নয়। আমিওতো কিছুটা অসুস্থ থাকলেও অফিস করি। কিন্তু সে অসুস্থ অবস্থায় আমার পক্ষে কি বিদেশ সফর করা সম্ভব, সম্ভব না।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, পররাষ্ট্রমন্ত্রী অসুস্থ থাকার কারণে সফর নির্ধারিত থাকার পরও তিনি যাননি।’

তথ্যমন্ত্রী বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সমালোচনা করে বলেন, ‘গতকাল মির্জা ফখরুল ইসলাম যে কথাটি বলেছেন, সেটা বিএনপি ও বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার জন্য প্রযোজ্য। বেগম খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন ভারতে সফর গিয়েছিলেন, সফর থেকে ফেরার পর তাকে যখন জিজ্ঞেস করা হলো গঙ্গার পানির ন্যায্য হিস্যা নিয়ে কী কথা হয়েছে।

‘তখন বেগম খালেদা জিয়া বলেছিলেন, আল্লাহ আমি ওটা ভুলেই গিয়েছিলাম। যাদের নেত্রী ভারত সফরে গিয়ে গঙ্গার পানি ন্যায্য হিস্যার কথা বলতে ভুলে যান, তারা আবার এসব কথা বলে। তারাই সব সময় ভারতকে সব দিয়েছেন কিছু আনেনি।’

তিনি বলেন, আমাদের সরকার বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার ও রক্তের অক্ষরে লেখা। এই সরকারের আমলেই আমাদের দুই দেশের সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় উন্নীত হয়েছে। কিন্তু আমাদের সম্পর্ক ন্যায্যতার ভিত্তিতে। আমাদের সরকার পারস্পরিক সম্পর্কের মাধ্যমে সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় উন্নীত করেছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, আমাদের সরকার ভারত থেকে অনেক কিছু আদায় করেছে। প্রধানমন্ত্রী পর পর তিন বার রাষ্ট্র পরিচালনা করছেন। এরমধ্যে প্রথমবার ভারত থেকে ২০ পণ্যবাদে সকল পণ্যের ওপর ট্যারিফ সুবিধা আদায় করেছেন। ১৯৭৪ সালের মৈত্রী চুক্তি অনুযায়ী ছিটমহলগুলো আমাদের হস্তান্তর করার কথা ছিল। কিন্তু বিএনপি কয়েক দফা ক্ষমতায় ছিল, এরশাদ সাহেব ক্ষমতায় ছিল, তারপর আরও জরুরি সরকার ক্ষমতায় ছিল, কেউ ছিটমহলের অধিকার আদায় করতে বা আনতে পারেনি। সেটা শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগ সরকার ভারতের সাথে আলোচনা করে আদায় করেছে।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।