Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১মঙ্গলবার , ৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন

ইবিতে খেলোয়াড়দের প্রধান ফটক অবরোধ, বাস আটকে ভোগান্তিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

ইবি প্রতিনিধি
সেপ্টেম্বর ৬, ২০২২ ৯:৩৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বঙ্গবন্ধু আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় ক্রীড়া চ্যাম্পিয়নশিপ প্রতিযোগিতায় ১১ টি ইভেন্টে অংশগ্রহণের দাবিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) প্রধান ফটক অবরোধ করেছে খেলোয়াড়রা। মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত টানা ২ ঘণ্টা এই অবরোধ চলে। এতে ক্যাম্পাস থেকে কুষ্টিয়া,ঝিনাইদহ ও শৈলকূপাগামী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের  বহনকারী দুপুর ২ টার বাসগুলো আটকা পড়ে। ফলে ব্যাপক ভোগান্তির শিকার হন তারা।

জানা যায়, অবরোধের ফলে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের বহনকারী মোট ৪৭টি বাস আটকা পড়ে। এতে প্রায় ২ হাজার ৫০০ শিক্ষক-শিক্ষার্থী ভোগান্তির শিকার হন। টানা ২ ঘণ্টা অবরোধের পর বিকেল ৪ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন দাবি মেনে নেয়ার আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় আন্দোলনকারীরা।

ভোগান্তির শিকার এক শিক্ষক অধ্যাপক ড. জহুরুল ইসলাম বলেন, আমাদের মধ্যে অনেক বৃদ্ধ শিক্ষক রয়েছেন। এভাবে আটকে রেখে সবাইকে ভোগান্তিতে ফেলা ঠিক হয় নি। তাদের দাবি নিয়ে তারা আলাদাভাবে প্রশাসনের সাথে বসতে পারতো। এভাবে সবাইকে আটকে রেখে দাবি আদায় কোনোভাবেই আন্দোলনের নিয়ম হতে পারে না।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্রিকেট ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক  হোসাইন মুহাম্মদ বুলবুল বলেন, প্রশাসন ১১টি গেমে অংশগ্রহণ করার জন্য রেজিষ্ট্রেশন করে। পরে, বাজেট সংকট দেখিয়ে ১১টি ইভেন্টের মধ্যে ৪টি ইভেন্টে অংশগ্রহণের কথা বলেছিলো। অথচ, এর আগে দুইবার ১১টি ইভেন্টে অংশগ্রহণ করেছিলো আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়। আমরা ১১টি ইভেন্টেই খেলার জন্যই অবরোধ কর্মসূচি গ্রহণ করেছিলাম। আমাদের দাবি মেনে নেওয়ায় আমরা প্রশাসনকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

এদিকে একই দাবিতে গতকাল সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিমনেশিয়ামে তালা লাগায় আন্দোলনকারী খেলোয়াড়রা। এসময় শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিভাগের পরিচালক ড. সোহেল জিমনেশিয়ামের ভিতরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালামের বাসভবনের সামনে বিক্ষোভ  করে আন্দোলনকারীরা। এসময় উপাচার্য আলোচনার আশ্বাস দিলে তারা চলে যায়। এর আগে তারা ড. সোহেলকে ৯ দফা দাবি সংবলিত একটি স্মারকলিপি প্রদান করে।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।