Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১বৃহস্পতিবার , ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন

মিয়ানমারকে অস্থিতিশীল করার পেছনে পশ্চিমারা…

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ৮, ২০২২ ১১:০৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

মিয়ানমারকে অস্থিতিশীল করার পেছনে পশ্চিমাদের হাত রয়েছে বলে দাবি করেছেন দেশটির সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং। মিয়ানমারের বিভিন্ন বিদ্রোহী গোষ্ঠীকে অস্ত্র সরবরাহের পেছনে বাইরের দেশের হাত রয়েছে বলে দাবি জান্তাপ্রধানের।মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে রোহিঙ্গা গণহত্যার জন্য দেশটির সামরিক বাহিনীকে দায়ী করা হয়। এ ছাড়া স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চির সরকারকে উৎখাত ও বিক্ষোভ দমন করতেও হত্যাকাণ্ড চালানোর অভিযোগ আছে মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে। তবে দেশটির সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং বলছেন ভিন্ন কথা। তার দাবি, মিয়ানমারের বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোকে অর্থ ও অস্ত্র দিচ্ছে পশ্চিমা দেশগুলো।

রাশিয়া সফরে গিয়ে বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) দেশটির বার্তা সংস্থা আরআইএকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে পশ্চিমাদের দিকে আঙুল তুলে জান্তাপ্রধান বলেন, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। দেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে পশ্চিমারা। যদিও মিয়ানমারের সংকট এখন সরকারের নিয়ন্ত্রণে আছে বলে দাবি করেছেন জান্তাপ্রধান। পরিকল্পনা অনুযায়ী, আগামী বছর দেশটিতে সাধারণ নির্বাচন আয়োজনে যা যা করা দরকার, সামরিক সরকার তা-ই করবে বলেও জানান হ্লাইং। নির্বাচন আয়োজনের ব্যাপারে যেসব প্রতিশ্রুতি জান্তা সরকার দিয়েছিল, তার সবই পূরণের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন মিন অং হ্লাইং।

গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে অং সান সু চির সরকারকে হটিয়ে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে নেয় দেশটির সামরিক বাহিনী। এরপর থেকেই মিয়ানমারজুড়ে শুরু হয় বিক্ষোভ। আর সেই বিক্ষোভ দমনে সামরিক বাহিনী একদিকে সাধারণ মানুষের ওপর গুলি চালিয়েছে, অন্যদিকে গণহারে গ্রেফতার করেছে স্থানীয় রাজনীতিবিদদের। তবে এখন পর্যন্ত রাশিয়া ও চীনের সমর্থন পেয়ে এসেছে জান্তা সরকার।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।