Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১সোমবার , ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ব্যারিস্টার সুমনের খেলা দেখতে ঝুঁকি নিয়ে গাছের ডালে দর্শক

জাহাঙ্গীর আলম, ঠাকুরগাঁও
সেপ্টেম্বর ১২, ২০২২ ১০:৫৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

তিনটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ খেলার জন্য ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমি দল ৮ সেপ্টেম্বর ঠাকুরগাঁওয়ে আসেন।ঢাকা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমনের দল বনাম রাণীশংকৈল সোহেল রানা ফুটবল ক্লাব একাদশের খেলা আজ বিকালে অনুষ্ঠিত হয়।
রবিবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাণীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় কাশিপুর (ডিকে) কলেজ মাঠে এস আর এফ সি একাদশের সঙ্গে খেলা হয় ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমির। তার এ ফুটবল ম্যাচ দেখতে মাঠে হাজির হয় প্রায় হাজার হাজার মানুষ।
মাঠের কোনায় কোনায় খেলা দেখতে আসা দর্শকরা অবস্থান নেন টিনের চাল , বিল্ডিংয়ের ছাদে ও উঁচু গাছের ডালে। মাঠের কোনায় কোনায় দর্শক ভরে গেলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উঁচু গাছের ডালে উঠে ব্যারিস্টার সুমনের খেলা উপভোগ করেন শত শত দর্শক। খেলা দেখতে আসা দিনাজপুর জেলা থেকে আগত এক দর্শক জানান, মাঠে জায়গা নেই বাহির থেকে খেলা দেখা যায় না। আমি ব্যারিস্টার সুমনের একজন ভক্ত উনার খেলা দেখতে পারব না এটা কখনো হয় তাই উনার খেলা দেখতে উঁচু গাছের ডালে উঠেছি। এ সময় লক্ষ্য করা যায় কলেজের ছাদ থেকেও মহিলারাও ব্যারিস্টার সুমনের খেলা উপভোগ করছেন। খেলা শেষে বিশেষ করে খেলা দেখতে আসা জনসাধারণ ব্যরিস্টার সুমনের সাথে সেলফি ও ভিডিও তোলার জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েন। তবে খেলায় কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন হয়। কোনো ধরনের হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।
এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম সুজন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যক্ষ সইদুল হক, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আজম মুন্না ,উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)ইন্দ্রজিৎ সাহা,রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জাহিদ ইকবাল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাজউদ্দীন আহমদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা , উপজেলার ১নং ধর্মগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ও উপজেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা কর্মীবৃন্দসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।
খেলা শেষে জনসাধারণের উদ্দেশ্যে ব্যরিস্টার সুমন বলেন, ঠাকুরগাঁওয়ে ৩দিন থেকে অবস্থান করছি। এ জেলার মানুষজন যে এত ভাল, অতিথি পরায়ন সেটা জানা ছিল না। ঠাকুরগাঁও জেলা ঘুরে দেখেছি, এ জেলার মানুষজন খুবই শান্তিপ্রিয় মনে হয়েছে। তাদের দেশে মনে হয়েছে ব্রিটিশদের মতো। এ জেলায় একটি পুরাতন বিমানবন্দর রয়েছে। সেটি চালু করা জরুরী। কখনও দেশরত্ন শেখ হাসিনা আমাকে যদি জিজ্ঞেস করেন তুমি এমপি চাও নাকি ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর চাও, আমি ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর চাইব।
খেলা শেষে হাজারো মানুষের ঢল দেখে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন ব্যারিস্টার সুমন।
খেলায় হারজিত কোন ব্যাপার না কিন্তু বর্তমানে দেশের ফুটবল যে আইসিইউতে ঢুকে গেছে সে জায়গা থেকে উত্তোরন করতে ভুমিকা রাখতে হবে। ভবিষ্যতে এ জেলার মানুষজনকে তার নিজ এলাকা সিলেটের হবিগঞ্জে আমন্ত্রণ জানিয়ে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তিনি। কোন রকম অপ্রিতিকর ঘটনা ছাড়া খেলা সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করায় খেলা পরিচালনা কমিটিকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান ব্যারিস্টার সুমন।
উল্লেখ্য যে, ঠাকুরগাঁওয়ে তিনটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ খেলতে ৮ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ঠাকুরগাঁও আসেন ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাদশ দল।গত ৯ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ঠাকুরগাঁও রোড কলোনি মাঠে স০-১গোলে পরাজিত হন ঠাকুরগাঁও রোড কলোনি একাদশের বিপক্ষে। গতকাল ১০ সেপ্টেম্বর শনিবার জেলার হরিপুর উপজেলার কারবুলার মাঠে ব্যারিস্টার সুমনের দল ৪-০ গোলে পরাজিত করে হরিপুর একাদশকে। সেখানে ব্যারিস্টার সুমন একাই তিন গোল করেন।আজ শেষ ম্যাচে ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাদশকে ১-৩গোলে হারিয়ে জয় পায় এস আর এফ সি একাদশ দল রাণীশংকৈল। আগামী কাল সকালে তিনি ঠাকুরগাঁও ছেড়ে চলে যাবেন।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।