Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১শুক্রবার , ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন

৬৫০ কি.মি. পথ পায়ে হেঁটে পরিভ্রমণ করবে জবি শিক্ষার্থী মাসফিকুল

।। জবি সংবাদদাতা।।
সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২২ ৩:৫২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

প্রথম বারের মত সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর থেকে রাঙ্গামাটির তিন মুখ পিলার পর্যন্ত ক্রস কান্ট্রি হাইকিং করতে যাচ্ছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষার্থী মাসফিকুল হাসান টনি। এক্ষেত্রে ৬৫০কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে পরিভ্রমণ করবেন এই শিক্ষার্থী।

হাইকিং ফোর্স বাংলাদেশের আয়োজনে এবং অ্যালবাট্রোসের পৃষ্ঠপোষকতায় আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে এই অভিযান শুরু করবেন টনি। হাইকিং পথে তিনি সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলোর পরিবেশ পর্যবেক্ষণ করবেন।
বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান তিনি। মাসফিকুল হাসান টনি বলেন, শুরু থেকেই পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক ইস্যুগুলো নিয়ে কাজ করছি। তারই ধারাবাহিকতায় এবার ক্রস কান্ট্রি করতে নতুন একটি রুটে যাচ্ছি৷ এর মধ্যে রয়েছে সাতক্ষীরা জেলার ভোমরা স্থলবন্দর থেকে রাঙ্গামাটি জেলার তিনমুখ পিলার। যেখানে মিয়ানমার, ভারত এবং বাংলাদেশের বর্ডার মিলিত হয়েছে।
তিনি বলেন, ইউনিসেফের তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে সবচেয়ে ঝুঁকিতে থাকা দেশগুলোর অন্যতম। এখানকার জনসংখ্যার প্রায় ৪০ শতাংশ শিশু। জলবায়ু পরিবর্তন ছাড়াও নদী বিধৌত ব-দ্বীপ বাংলাদেশ আরও প্রাকৃতিক সংকটের মুখোমুখি হয়। তবে উষ্ণায়নের ফলে হিমালয়ের হিমবাহ গলতে থাকায় সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি এবং প্রাণঘাতী দুর্যোগ ঝুঁকি আরও বাড়ছে। বন্যা, ঘুর্ণিঝড়, খরা, জলোচ্ছ্বাস, টর্নেডো, ভূমিকম্প, নদী ভাঙন, জলাবদ্ধতা ও পানি বৃদ্ধি এবং মাটির লবণাক্ততাকে প্রধান প্রাকৃতিক বিপদ হিসেবে চিহ্নিত করেছে বাংলাদেশ সরকার। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এই দুর্যোগগুলো হয়৷ তাই আমি যাত্রাপথে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলোর পরিবেশ পর্যবেক্ষণ করার পাশাপাশি মানুষের জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করবো।
জানা যায়, সলো ক্রস কান্ট্রি ওয়েফারিং মিশন ২০২২ এর প্রতিপাদ্য বিষয় ‘ওয়াক ফর লাইফ এন্ড আর্থ, স্টপ গ্লোবাল ওয়ার্মিং।’ এই মিশনে দেশের ১৩ টি জেলার প্রায় ৬৫০ কি.মি পথ পরিভ্রমণ করবে টনি। যেখানে থাকবে দেশের সবচেয়ে বড় নদী মেঘনা সহ প্রায় ১০ টি নদী। পাশাপাশি সুন্দরবন, সমুদ্র উপকূলীয় প্রায় ৫০কি.মি পথ এবং প্রায় ১২০কি.মি পাহাড়ি পথ থাকবে।
বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের সার্বিক সহযোগিতা ও অ্যাডভেঞ্চার এন্ড আউটডোরস এর সৌজন্যে মিশনটি পরিচালিত হবে।
প্রসঙ্গত, এর আগে ২০২০ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শিক্ষার্থী দেশের সবচেয়ে দীর্ঘ রূট বাংলাবান্ধা (তেতুঁলিয়া) টু শাহপরীর দ্বীপ (টেকনাফ), সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগীয় অঞ্চলসহ দেশের ২৫ টি জেলায় পায়ে হেঁটে ভ্রমণ করেন। সেই মিশনে বিভিন্ন জন কল্যাণমূলক (বন ও পরিবেশ, কারিগরী শিক্ষা, ধর্ষণ ইত্যাদি) প্রতিপাদ্য নিয়ে তিনি কাজ করেন।

 

বার্তা /এন

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।