Barta Kontho
নিবন্ধন নম্বর: ৪৬১শুক্রবার , ৭ অক্টোবর ২০২২
  1. 1st Lead
  2. 2nd Lead
  3. অপরাধ
  4. আইটি বিশ্ব
  5. আইন ও আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আবহাওয়া
  8. ইসলাম
  9. খেলাধুলা
  10. চাকুরি
  11. ছবি ঘর
  12. জাতীয়
  13. জেলার খবর
  14. ট্রাভেল
  15. নির্বাচন

বিইউবিটিতে শুরু হয়েছে আইসিপিসি এশিয়া ঢাকা আঞ্চলিক প্রতিযোগিতা

জবি সংবাদদাতা
অক্টোবর ৭, ২০২২ ১০:৪৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজিতে (বিইউবিটি) শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতার এশিয়া ঢাকা আঞ্চলিক পর্ব। শুক্রবার (৭ অক্টোবর) বিকেল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মিলনায়তনে এই প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের উদ্যোগে বিশ্বের মর্যাদাপূর্ণ কম্পিউটিং এই ইভেন্ট আয়োজন করেছে। গত ৩ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের ১১৭টি কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭৪৫ দলের প্রিলিমিনারি প্রতিযোগিতাটি সম্পূর্ণ হয়। অনলাইন প্রিলিমিনারি প্রতিযোগিতার ভিত্তিতে ১০৪টি কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬৫টি টিমকে চূড়ান্ত প্রতিযোগিতার জন্য নির্বাচন করা হয়। বাংলাদেশের ১০৪ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৬৫ জন প্রশিক্ষকের তত্ত্বাবধানে ৪৯৫ জন শিক্ষার্থীর সমন্বয়ে ১৬৫ টি দল এই প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে।
প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মেজবাহউদ্দিন আহমেদ।
উপস্থিত ছিলেন বিইউবিটি ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ শামসুল হুদা এবং সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য অধ্যাপক ফৈয়াজ খান।
মেজবাউদ্দীন আহমেদ বলেন, প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া সবাইকে ধন্যবাদ। স্বপ্ন ও লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। পরিশ্রমের মাধ্যমে সাফল্য পাওয়া যাবে। যদি লক্ষ্য না থাকে থেমে থাকতে হবে।
প্রধান অতিথি বলেন, জীবন সহজ করতে হবে, সহজ করে আনন্দ উপভোগ করতে হবে। জানিতে হবে কি করতে হবে। নতুন প্রজন্ম পারে অনেক কিছু যারা পুরনোরা পাবে না।
অনুষ্ঠানে বিইউবিটির উপাচার্য ফৈয়াজ খান বলেন, দেশে এ ধরনের আয়োজনের লক্ষ্য হচ্ছে শিক্ষার্থী প্রোগ্রামিং শেখার আগ্রহকে আরও বাড়িয়ে দেওয়া। শিক্ষার্থীদের বিশ্বমানের প্রোগ্রামার হিসেবে গড়ে তুলতে এই আয়োজন বড় ভূমিকা রাখবে।
প্রতিযোগিতা সম্পর্কে প্রস্তুতি নির্বাহী কমিটির সভাপতি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক আলী নূর বলেন, আমাদের জন্য দ্বিতীয় বারের মতো এটি। আয়োজন করা গর্বের।
অধ্যাপক আলী নূর বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে এটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। মেধা চর্চা ঘটবে, তরুণদের মাধ্যমে আরো একটা এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ। অনুষ্ঠান আয়োজনে সহযোগিতা করেছে দেশের প্রধান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা।
দুই দিন ব্যাপী প্রোগ্রামিংপ্রতিযোগিতা আগামীকাল চূড়ান্ত অনসাইট প্রতিযোগিতা, সমাপনী অনুষ্ঠান এবং পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান থাকছে।
উল্লেখ্য, ইতি পুর্বে বিইউবিটি ২০১৪ সালে এসিএম-আইসিপিসি এশিয়া ঢাকা আঞ্চলিক প্রতিযোগিতার আয়োজন করার গৌরব অর্জন করেছে এবং ইভেন্টটি একটি বিশাল সাফল্য অর্জন করে যা তখন সবার কাছ থেকে অনেক প্রশংসা অর্জন করেছে।

বার্তা /এন

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
%d bloggers like this: