শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সিত্রাংয়ের তান্ডবে গাছ উপড়ে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে যোগাযোগ বন্ধ

বরগুনার তালতলীতে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের তান্ডবে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ৭টি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে গাছপালা উপড়ে পরে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙ্গে গেছে। এতে গত দুই দিন ধরে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে অনেক এলাকা। গাছ ও বিদ্যুতের খুটি অপসারণ করে নতুন ভাবে কাজ শুরু করছে বিদ্যুৎ বিভাগ।
জানা যায়,উপজেলা হাসপাতালে পূর্ব দিকে আমতলী ও তালতলী সড়কে চাম্বল গাছ উপড়ে মেইন লাইনের খুটি ভেঙে গেছে।এতে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে আমতলী ও তালতলীগামী যান চলাচল। এছাড়াও উপজেলার পাজরাভাঙ্গা ও বেহলা এলাকায় গাছ উপড়ে পড়ে দুটি বিদ্যুৎ খুটি ভেঙে যায়। ঔ সব এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রয়েছে। তবে দ্রুত গাছ ও ভেঙ্গে যাওয়া খুটি অপসারণ করার কাজ চলছে। গত দুই দিন বিদ্যুৎ না থাকায় মোবাইল নেটওয়ার্কের ভোগান্তিতে রয়েছে মানুষ।
পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ এর তালতলী উপকেন্দ্রের ইনচার্জ রুহুল মোর্শেদ বলেন, উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সিত্রাং এর তান্ডবে গাছপালা উপড়ে বিদ্যুতের তারে উপড়ে পড়েছে। আমাদের বেশ কয়টি বিদ্যুতের খুঁটিও উপড়ে পড়েছে। এজন্য ঔসব এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে অস্থায়ী ভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। গাছ ও বিদ্যুৎ এর খুটি অপসারণ করে নতুনভাবে সরবরাহ করা হবে।
তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম সাদিক তানভীর বলেন, সিত্রাং এর তান্ডবে উপজেলা যেসব স্থানে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সেগুলোর তালিকা সংগ্রহ চলছে । ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা পেলে খুব শিগগিরই জানানো হবে। এছাড়া সে সকল স্থানে গাছ উপড়ে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে গেছে ওই গাছগুলো অপসারণের কাজ চলছে।
বার্তাকণ্ঠ/এন

ব্রায়ান লারার অপরাজিত ৪০০ রানের রেকর্ড, দু’দশক আজ

সিত্রাংয়ের তান্ডবে গাছ উপড়ে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে যোগাযোগ বন্ধ

প্রকাশের সময় : ০১:২২:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ অক্টোবর ২০২২
বরগুনার তালতলীতে ঘূর্ণিঝড় সিত্রাংয়ের তান্ডবে বেশ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ৭টি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে গাছপালা উপড়ে পরে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙ্গে গেছে। এতে গত দুই দিন ধরে বিদ্যুৎ-বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে অনেক এলাকা। গাছ ও বিদ্যুতের খুটি অপসারণ করে নতুন ভাবে কাজ শুরু করছে বিদ্যুৎ বিভাগ।
জানা যায়,উপজেলা হাসপাতালে পূর্ব দিকে আমতলী ও তালতলী সড়কে চাম্বল গাছ উপড়ে মেইন লাইনের খুটি ভেঙে গেছে।এতে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে আমতলী ও তালতলীগামী যান চলাচল। এছাড়াও উপজেলার পাজরাভাঙ্গা ও বেহলা এলাকায় গাছ উপড়ে পড়ে দুটি বিদ্যুৎ খুটি ভেঙে যায়। ঔ সব এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রয়েছে। তবে দ্রুত গাছ ও ভেঙ্গে যাওয়া খুটি অপসারণ করার কাজ চলছে। গত দুই দিন বিদ্যুৎ না থাকায় মোবাইল নেটওয়ার্কের ভোগান্তিতে রয়েছে মানুষ।
পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ এর তালতলী উপকেন্দ্রের ইনচার্জ রুহুল মোর্শেদ বলেন, উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সিত্রাং এর তান্ডবে গাছপালা উপড়ে বিদ্যুতের তারে উপড়ে পড়েছে। আমাদের বেশ কয়টি বিদ্যুতের খুঁটিও উপড়ে পড়েছে। এজন্য ঔসব এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে অস্থায়ী ভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। গাছ ও বিদ্যুৎ এর খুটি অপসারণ করে নতুনভাবে সরবরাহ করা হবে।
তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম সাদিক তানভীর বলেন, সিত্রাং এর তান্ডবে উপজেলা যেসব স্থানে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে সেগুলোর তালিকা সংগ্রহ চলছে । ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা পেলে খুব শিগগিরই জানানো হবে। এছাড়া সে সকল স্থানে গাছ উপড়ে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে গেছে ওই গাছগুলো অপসারণের কাজ চলছে।
বার্তাকণ্ঠ/এন