শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইবির ‘ক্রীড়া বিজ্ঞান’ বিভাগের ব্যবহারিক পরীক্ষা ৬ নভেম্বর

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ‘শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান’ বিভাগের ব্যবহারিক পরীক্ষা আগামী ৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) বিভাগটির ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞপ্তি সূত্রে, ব্যবহারিক পরীক্ষার জন্য ৬ নভেম্বর সকাল ১০টায় পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান ভবনস্থ বিজ্ঞান অনুষদের ডিনের কার্যালয়ে ভর্তিচ্ছুদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। বহুনির্বাচনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ব্যবহারিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

ব্যবহারিক পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদেরকে দৌড়, লাফ, শটপুট নিক্ষেপ ইত্যাদি খেলায় অংশগ্রহণ করে শারীরিক সক্ষমতা প্রমাণ করতে হবে। এছাড়া বিশেষ কৃতিত্ব অর্জনকারী শিক্ষার্থীদেরকে তাদের নিজ নিজ খেলায় দক্ষতার প্রমাণ দিতে হবে। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদেরকে খেলাধুলায় অংশগ্রহণের উপযোগী পোশাক এবং প্রয়োজনীয় ক্রীড়া উপকরণ সাথে নিয়ে আসতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ আগস্ট স্বতন্ত্র পদ্ধতিতে শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ১৭ সেপ্টেম্বর বহুনির্বাচনী পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। ন্যূনতম ৩০ নম্বর পেয়ে ভর্তি উত্তীর্ণ হয়েছেন ১২৬ জন শিক্ষার্থী। তবে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) সনদধারীদের ক্ষেত্রে পাসমার্ক ধরা হয়েছে ২০ নম্বর।

বার্তাকণ্ঠ/এন

ইবির ‘ক্রীড়া বিজ্ঞান’ বিভাগের ব্যবহারিক পরীক্ষা ৬ নভেম্বর

প্রকাশের সময় : ০৫:৪৪:৪৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ অক্টোবর ২০২২

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ‘শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান’ বিভাগের ব্যবহারিক পরীক্ষা আগামী ৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) বিভাগটির ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সমন্বয়কারী অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বিজ্ঞপ্তি সূত্রে, ব্যবহারিক পরীক্ষার জন্য ৬ নভেম্বর সকাল ১০টায় পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞান ভবনস্থ বিজ্ঞান অনুষদের ডিনের কার্যালয়ে ভর্তিচ্ছুদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। বহুনির্বাচনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ব্যবহারিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

ব্যবহারিক পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদেরকে দৌড়, লাফ, শটপুট নিক্ষেপ ইত্যাদি খেলায় অংশগ্রহণ করে শারীরিক সক্ষমতা প্রমাণ করতে হবে। এছাড়া বিশেষ কৃতিত্ব অর্জনকারী শিক্ষার্থীদেরকে তাদের নিজ নিজ খেলায় দক্ষতার প্রমাণ দিতে হবে। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদেরকে খেলাধুলায় অংশগ্রহণের উপযোগী পোশাক এবং প্রয়োজনীয় ক্রীড়া উপকরণ সাথে নিয়ে আসতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ আগস্ট স্বতন্ত্র পদ্ধতিতে শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ১৭ সেপ্টেম্বর বহুনির্বাচনী পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। ন্যূনতম ৩০ নম্বর পেয়ে ভর্তি উত্তীর্ণ হয়েছেন ১২৬ জন শিক্ষার্থী। তবে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) সনদধারীদের ক্ষেত্রে পাসমার্ক ধরা হয়েছে ২০ নম্বর।

বার্তাকণ্ঠ/এন