শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে শিক্ষক গ্রেপ্তার

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার এক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে। ওই ঘটনায় এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) উপজেলার নেকমরদ রেসিডেনসিয়াল স্কুল এন্ড কলেজে এ শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটে। পরে রাতে রাণীশংকৈল থানায় মামলা দায়ের করা হলে তুলারাম পাল (৩৮) নামের এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃত শিক্ষক তুলারাম উপজেলার নেকমরদ ইউনিয়নের আলসিয়া ভকরগাঁও গ্রামের ক্ষিতিস চন্দ্রের ছেলে ।
ঐ শিক্ষার্থীর বাবা আশরাফুল ইসলাম জানান, তার মেয়ে এক বছর ধরে ঐ বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করত। আগে থেকেই ঐ শিক্ষক তার মেয়েকে বিভিন্ন রকম যৌন নিপীড়নের চেষ্টা করত। কিন্তু তার মেয়ে কাউকে কিছু জানায়নি। ঘটনার দিন সকালে তার মেয়ে স্কুলে গেলে তাকে একা অন্য রুমে নিয়ে যায় ঐ শিক্ষক। এসময়  তার মেয়েকে শ্রেণিকক্ষে একা পেয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। পরে ঐ শিক্ষার্থী চিৎকার করলে আসে পাশে থাকা সবাই ছুটে আসে এবং শিক্ষক তুলারাম কে আটকে রাখে। পরে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঐ শিক্ষক কে থানায় নিয়ে যায়।
রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জাহিদ ইকবাল জানান, ছাত্রীর বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের পর অভিযোগটি আমলে নিয়ে মামলা রুজু করা হয়েছে। এসময় অভিযুক্ত শিক্ষককে বুধবার সকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।
বার্তাকণ্ঠ/এন

ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে শিক্ষক গ্রেপ্তার

প্রকাশের সময় : ১০:১১:৪৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ অক্টোবর ২০২২
ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার এক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে। ওই ঘটনায় এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) উপজেলার নেকমরদ রেসিডেনসিয়াল স্কুল এন্ড কলেজে এ শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটে। পরে রাতে রাণীশংকৈল থানায় মামলা দায়ের করা হলে তুলারাম পাল (৩৮) নামের এক শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃত শিক্ষক তুলারাম উপজেলার নেকমরদ ইউনিয়নের আলসিয়া ভকরগাঁও গ্রামের ক্ষিতিস চন্দ্রের ছেলে ।
ঐ শিক্ষার্থীর বাবা আশরাফুল ইসলাম জানান, তার মেয়ে এক বছর ধরে ঐ বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করত। আগে থেকেই ঐ শিক্ষক তার মেয়েকে বিভিন্ন রকম যৌন নিপীড়নের চেষ্টা করত। কিন্তু তার মেয়ে কাউকে কিছু জানায়নি। ঘটনার দিন সকালে তার মেয়ে স্কুলে গেলে তাকে একা অন্য রুমে নিয়ে যায় ঐ শিক্ষক। এসময়  তার মেয়েকে শ্রেণিকক্ষে একা পেয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। পরে ঐ শিক্ষার্থী চিৎকার করলে আসে পাশে থাকা সবাই ছুটে আসে এবং শিক্ষক তুলারাম কে আটকে রাখে। পরে ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঐ শিক্ষক কে থানায় নিয়ে যায়।
রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জাহিদ ইকবাল জানান, ছাত্রীর বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের পর অভিযোগটি আমলে নিয়ে মামলা রুজু করা হয়েছে। এসময় অভিযুক্ত শিক্ষককে বুধবার সকালে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।
বার্তাকণ্ঠ/এন