শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নিজের সন্তানকে হত্যা করে থানায় আত্মসমর্পণ করলেন মা

জয়পুরহাট পৌর শহরের বারিধারা (থানার সামনে) মহল্লায় ৪ বছরের নিজের শিশু সন্তানকে চার্জার তার দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করে ঘাতক মা মৌমিতা পাল (৩৪)। হত্যার পর তিনি থানায় গিয়ে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন।
বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সকালে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত শিশু কণিনীকা ব্যাংক কর্মকর্তা নয়ন কুমার পালের মেয়ে। তার স্থায়ী বাড়ি বগুড়ার নন্দীগ্রামে। তারা এখানে ভাড়া থাকতেন বলে জানা গেছে।
এব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম জানান,  আজ সকালের দিকে শিশুটির ‘ঘাতক মা’ শিশুটিকে হত্যা করে থানায় এসে তিনি বলেন নিজের মেয়েকে মোবাইলের চার্জারের তার দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে মেরে ফেলেছেন।  খবরে পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘাতক মাকে পুলিশ হেফোজতে রাখা হয়েছে।
বার্তাকণ্ঠ/এন

নিজের সন্তানকে হত্যা করে থানায় আত্মসমর্পণ করলেন মা

প্রকাশের সময় : ০১:৪৯:২৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ অক্টোবর ২০২২
জয়পুরহাট পৌর শহরের বারিধারা (থানার সামনে) মহল্লায় ৪ বছরের নিজের শিশু সন্তানকে চার্জার তার দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করে ঘাতক মা মৌমিতা পাল (৩৪)। হত্যার পর তিনি থানায় গিয়ে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন।
বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সকালে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত শিশু কণিনীকা ব্যাংক কর্মকর্তা নয়ন কুমার পালের মেয়ে। তার স্থায়ী বাড়ি বগুড়ার নন্দীগ্রামে। তারা এখানে ভাড়া থাকতেন বলে জানা গেছে।
এব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম জানান,  আজ সকালের দিকে শিশুটির ‘ঘাতক মা’ শিশুটিকে হত্যা করে থানায় এসে তিনি বলেন নিজের মেয়েকে মোবাইলের চার্জারের তার দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে মেরে ফেলেছেন।  খবরে পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘাতক মাকে পুলিশ হেফোজতে রাখা হয়েছে।
বার্তাকণ্ঠ/এন