শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আগাম নির্বাচনের দাবিতে ইমরান খানের ‘লং মার্চ’

ছবি-সংগৃহীত

পাকিস্তানে আগাম নির্বাচনের দাবিতে গতকাল শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) রাজধানী ইসলামাবাদে ‘লং মার্চ’ শুরু করেছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ইমরান খানের নেতৃত্বে রাজপথের এই আন্দোলন সেদেশের সরকারকে বেশ চাপের মুখে ফেলেছে।

সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা ইমরান গত এপ্রিল মাসে তার জোটের কিছু অংশীদারদের দল ত্যাগের পর এক অনাস্থা ভোটে ক্ষমতাচ্যুত হন। তবে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটিতে এখনো নিজের ব্যাপক জনসমর্থন বজায় রাখতে পেরেছেন ইমরান।

আগামী সপ্তাহব্যাপী প্রায় ৩৮০ কিলোমিটার পথ লং মার্চ করে লাহোর থেকে ইসলামাবাদে যাবেন ইমরান। এ সময় পথে বিভিন্ন স্থানে পথসভা করবেন তিনি। এসব সভায় হাজার হাজার সমর্থক যোগ দিবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শুক্রবার লাহোরে অংশ নিতে আসা মুহম্মদ মাজহার বলেন,  ‘আমাদের দেশকে লুটেরা ও চোরদের থেকে মুক্ত করতে হবে, যারা নিজেদের স্বার্থে দেশের অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে’।

তিনি বলেন. ‘আমাদের দেশকে বাঁচাতে হবে এবং এই ব্যবস্থার পরিবর্তন করতে হবে, তাই আমি ইমরান খানকে সমর্থন করছি।

রাজধানীতে ইতোমধ্যেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। মিছিলকারিদের বাধা প্রদানে গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা রাখা হয়েছে । মে মাসে একই ধরনের বিক্ষোভ চলাকালে ইমরান খানের সমর্থক ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

২০১৮ সালে ইমরান খান একটি দুর্নীতি-বিরোধী প্ল্যাটফর্মে অবস্থান নিয়ে রাজনীতিতে পরিবর্তনে বিশ্বাসী ভোটারদের ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছিলেন। তবে তার অর্থনীতির অব্যবস্থাপনা এবং তার উত্থানে সহায়তা করার জন্য অভিযুক্ত এক সামরিক শক্তির পতনে তার ভাগ্যে সিলমোহর এঁটে দেয়।

আগাম নির্বাচনের দাবিতে ইমরান খানের ‘লং মার্চ’

প্রকাশের সময় : ১০:৪৩:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২২

পাকিস্তানে আগাম নির্বাচনের দাবিতে গতকাল শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) রাজধানী ইসলামাবাদে ‘লং মার্চ’ শুরু করেছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ইমরান খানের নেতৃত্বে রাজপথের এই আন্দোলন সেদেশের সরকারকে বেশ চাপের মুখে ফেলেছে।

সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা ইমরান গত এপ্রিল মাসে তার জোটের কিছু অংশীদারদের দল ত্যাগের পর এক অনাস্থা ভোটে ক্ষমতাচ্যুত হন। তবে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটিতে এখনো নিজের ব্যাপক জনসমর্থন বজায় রাখতে পেরেছেন ইমরান।

আগামী সপ্তাহব্যাপী প্রায় ৩৮০ কিলোমিটার পথ লং মার্চ করে লাহোর থেকে ইসলামাবাদে যাবেন ইমরান। এ সময় পথে বিভিন্ন স্থানে পথসভা করবেন তিনি। এসব সভায় হাজার হাজার সমর্থক যোগ দিবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শুক্রবার লাহোরে অংশ নিতে আসা মুহম্মদ মাজহার বলেন,  ‘আমাদের দেশকে লুটেরা ও চোরদের থেকে মুক্ত করতে হবে, যারা নিজেদের স্বার্থে দেশের অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে’।

তিনি বলেন. ‘আমাদের দেশকে বাঁচাতে হবে এবং এই ব্যবস্থার পরিবর্তন করতে হবে, তাই আমি ইমরান খানকে সমর্থন করছি।

রাজধানীতে ইতোমধ্যেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। মিছিলকারিদের বাধা প্রদানে গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা রাখা হয়েছে । মে মাসে একই ধরনের বিক্ষোভ চলাকালে ইমরান খানের সমর্থক ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

২০১৮ সালে ইমরান খান একটি দুর্নীতি-বিরোধী প্ল্যাটফর্মে অবস্থান নিয়ে রাজনীতিতে পরিবর্তনে বিশ্বাসী ভোটারদের ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছিলেন। তবে তার অর্থনীতির অব্যবস্থাপনা এবং তার উত্থানে সহায়তা করার জন্য অভিযুক্ত এক সামরিক শক্তির পতনে তার ভাগ্যে সিলমোহর এঁটে দেয়।