রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বীর মুক্তিযোদ্ধারা স্কুলের শিক্ষার্থীদের শোনালেন যুদ্ধকালীন গল্প

জেলা তথ্য অফিস কর্তৃক আয়োজিত নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলার লোহাগড়া পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ‘এসো মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনি’ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

সোমবার (৩১ অক্টোবর) সকালে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার এস. এম. সায়েদুর রহমান, লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজগর আলী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে মূল আলোচকবৃন্দ হিসেবে মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযুদ্ধকালীন বিভিন্ন ঘটনা নিয়ে আলোচনা করেন লোহাগড়া মুক্তিযুদ্ধ সংসদ কমান্ডার (ভারপ্রাপ্ত) বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ, এবং নড়াইল মুক্তিযুদ্ধ সংসদ ও সম্মানিত জেলা পরিষদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ শামসুল আলম কচি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নড়াইল জেলা তথ্য অফিসার মো: ইব্রাহিম-আল-মামুন। উক্ত অনুষ্ঠান আয়োজনে সার্বিকভাবে আন্তরিকতার সাথে সহযোগিতা করেন লোহাগড়া পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সম্মানিত প্রধান শিক্ষক মোঃ হায়াতুজ্জামান হায়াত। অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধারা তাঁদের মুক্তিযুদ্ধের সময়কার অভিজ্ঞতা উপস্থিত শিক্ষার্থীদের সবিস্তারে তুলে ধরেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সবসময় হৃদয়ে ধারণ করে দেশ গড়ার জন্য উপস্থিত শিক্ষার্থীদের আহবান জানান।
বক্তারা বলেন, শিক্ষার্থীরাই আগামীর বাংলাদেশ নির্মাণের বুনিয়াদ। তাদের কাঁধের ওপর দাঁড়িয়ে থাকবে উন্নত বাংলাদেশ।

মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে । আর এ জন্য পড়া ও চিন্তার বিকল্প নেই। সঠিক ইতিহাস পরবর্তী প্রজন্মের মধ্যে ছড়ি়য়ে দেওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রস্তুত হওয়ার আহŸান জানান বক্তারা। অনুষ্ঠানে ছাত্র ছাত্রীদের অংশগ্রহণে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতা ও মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

অনুষ্ঠান শেষে কুইজ প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের হাতে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের লিখিত বই পুরস্কার হিসেবে তুলে দেন উপস্থিত বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

বার্তাকণ্ঠ/এন

বীর মুক্তিযোদ্ধারা স্কুলের শিক্ষার্থীদের শোনালেন যুদ্ধকালীন গল্প

প্রকাশের সময় : ০৮:৪৯:৫৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩১ অক্টোবর ২০২২

জেলা তথ্য অফিস কর্তৃক আয়োজিত নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলার লোহাগড়া পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ‘এসো মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনি’ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

সোমবার (৩১ অক্টোবর) সকালে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার এস. এম. সায়েদুর রহমান, লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজগর আলী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে মূল আলোচকবৃন্দ হিসেবে মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযুদ্ধকালীন বিভিন্ন ঘটনা নিয়ে আলোচনা করেন লোহাগড়া মুক্তিযুদ্ধ সংসদ কমান্ডার (ভারপ্রাপ্ত) বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ, এবং নড়াইল মুক্তিযুদ্ধ সংসদ ও সম্মানিত জেলা পরিষদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ শামসুল আলম কচি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নড়াইল জেলা তথ্য অফিসার মো: ইব্রাহিম-আল-মামুন। উক্ত অনুষ্ঠান আয়োজনে সার্বিকভাবে আন্তরিকতার সাথে সহযোগিতা করেন লোহাগড়া পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সম্মানিত প্রধান শিক্ষক মোঃ হায়াতুজ্জামান হায়াত। অনুষ্ঠানে বীর মুক্তিযোদ্ধারা তাঁদের মুক্তিযুদ্ধের সময়কার অভিজ্ঞতা উপস্থিত শিক্ষার্থীদের সবিস্তারে তুলে ধরেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সবসময় হৃদয়ে ধারণ করে দেশ গড়ার জন্য উপস্থিত শিক্ষার্থীদের আহবান জানান।
বক্তারা বলেন, শিক্ষার্থীরাই আগামীর বাংলাদেশ নির্মাণের বুনিয়াদ। তাদের কাঁধের ওপর দাঁড়িয়ে থাকবে উন্নত বাংলাদেশ।

মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে হবে । আর এ জন্য পড়া ও চিন্তার বিকল্প নেই। সঠিক ইতিহাস পরবর্তী প্রজন্মের মধ্যে ছড়ি়য়ে দেওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রস্তুত হওয়ার আহŸান জানান বক্তারা। অনুষ্ঠানে ছাত্র ছাত্রীদের অংশগ্রহণে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতা ও মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

অনুষ্ঠান শেষে কুইজ প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের হাতে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের লিখিত বই পুরস্কার হিসেবে তুলে দেন উপস্থিত বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

বার্তাকণ্ঠ/এন