সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শার্শায় আফিল জুট উইভিং মিলে ভয়াবহ আগুন, ব‍্যপক ক্ষতি

যশোরের শার্শায় আফিল জুট উইভিং মিলে ভয়াবহ আগুন লেগেছে। বৈদ‍্যতিক শর্টসার্কিটের কারণে এই ভয়াবহ আগুন লাগে বলে তাৎক্ষণিক ভাবে জানা গেছে। নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট।

শনিবার দুপুর ১টার সময় হঠাৎ আকর্ষিক ভাবে লাগে জুট মিলের পূর্ব পাশের দুটি গোডাউনে। আগুন নেভাতে যেয়ে আলী হোসেন নামে এক শ্রমিক মারাত্মক আহত হয়েছে।
অন্য দিনের মত শ্রমিকরা কাজ করছিল গোডাউনে। তারা হঠাৎ দেখতে পায় গোডাউনের পিছন দিকি আগুন লেগেছে। মুহূর্তের মধ্যেই ধোয়াই আচ্ছন্ন হয়ে যায় গোটা এলাকা। অবস্থা দেখে শ্রমিকরা দিক-বিদিক ছুটতে থাকে। খবর পেয়ে প্রথমে বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের কর্মিরা ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। কিন্তু আগুনের ভয়াবহতা বেশি হওয়ার করণে পরে ঝিকরগাছা এবং কলারোয়া থেকে ফায়ার সার্ভিসের ২টি ইউনিট যোগ দেয়।
বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা তপন কুমার দেবনাথ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আমরা ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট এসে দীর্ঘ ৩ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছি। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ‍্যতিক শর্টসার্কিটের কারণে আগুন লাগতে পারে। কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা এখন বলা সম্ভব না। #

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

ঢাকায় পৌঁছেছেন বেলজিয়ামের রানি

শার্শায় আফিল জুট উইভিং মিলে ভয়াবহ আগুন, ব‍্যপক ক্ষতি

প্রকাশের সময় : ০৭:০০:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২

যশোরের শার্শায় আফিল জুট উইভিং মিলে ভয়াবহ আগুন লেগেছে। বৈদ‍্যতিক শর্টসার্কিটের কারণে এই ভয়াবহ আগুন লাগে বলে তাৎক্ষণিক ভাবে জানা গেছে। নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট।

শনিবার দুপুর ১টার সময় হঠাৎ আকর্ষিক ভাবে লাগে জুট মিলের পূর্ব পাশের দুটি গোডাউনে। আগুন নেভাতে যেয়ে আলী হোসেন নামে এক শ্রমিক মারাত্মক আহত হয়েছে।
অন্য দিনের মত শ্রমিকরা কাজ করছিল গোডাউনে। তারা হঠাৎ দেখতে পায় গোডাউনের পিছন দিকি আগুন লেগেছে। মুহূর্তের মধ্যেই ধোয়াই আচ্ছন্ন হয়ে যায় গোটা এলাকা। অবস্থা দেখে শ্রমিকরা দিক-বিদিক ছুটতে থাকে। খবর পেয়ে প্রথমে বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের কর্মিরা ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। কিন্তু আগুনের ভয়াবহতা বেশি হওয়ার করণে পরে ঝিকরগাছা এবং কলারোয়া থেকে ফায়ার সার্ভিসের ২টি ইউনিট যোগ দেয়।
বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা তপন কুমার দেবনাথ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আমরা ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট এসে দীর্ঘ ৩ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছি। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ‍্যতিক শর্টসার্কিটের কারণে আগুন লাগতে পারে। কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা এখন বলা সম্ভব না। #