শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মোংলায় জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থানের সুযোগ

ইলিশ হলো মৎস্যজীবিদের সম্পদ।ইলিশ সম্পদের উন্নয়ন হলে মৎস্যজীবিদের উন্নয়ন হবে। দেশের উন্নয়ন হবে।তাই মৎস্যজীবিদের নিজেদের জীবনমান উন্নয়নের স্বার্থে মা ইলিশ ও ঝাটকা শিকার থেকে বিরত থাকতে হবে।ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের অর্থায়নের মোংলায় জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান হিসেবে বকনা বাছুর বিতরণ অনুষ্ঠানে মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দীপংকর দাশ’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বাংলাদেশ পরিবেশ,বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রলায়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার একথা বলেন।
বুধবার ( ৩০ নভেম্বর) দুপুর মোংলা উপজেলা পরিষদ মাঠ চত্বর মোংলা সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়ের বাস্তবায়নে ২২-২৩ অর্থবছরে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের অর্থায়নে জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে উপকরণ সহায়তা হিসেবে বকনা বাছুর বিতরণ করা হয়। এর আগে ২২-২৩ অর্থবছরের ১ম পর্যায়ের টিআর কাবিখা, কাবিটা, গম ও চালের ডিও বিতরণ করেন উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার।বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা মৎস কর্মকর্তা এ এস এম রাসেল, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার,প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ জাফর রানা,সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার মোঃ জাহিদুল ইসলাম,মোংলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম।অনুষ্ঠানে মোংলা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের মৎস্যজীবিদের মধ্য থেকে ২০ জনকে বকনা বাছুর বিতরণ করা হয়।

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

মোংলায় জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থানের সুযোগ

প্রকাশের সময় : ০৫:২৯:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২
ইলিশ হলো মৎস্যজীবিদের সম্পদ।ইলিশ সম্পদের উন্নয়ন হলে মৎস্যজীবিদের উন্নয়ন হবে। দেশের উন্নয়ন হবে।তাই মৎস্যজীবিদের নিজেদের জীবনমান উন্নয়নের স্বার্থে মা ইলিশ ও ঝাটকা শিকার থেকে বিরত থাকতে হবে।ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের অর্থায়নের মোংলায় জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান হিসেবে বকনা বাছুর বিতরণ অনুষ্ঠানে মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দীপংকর দাশ’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বাংলাদেশ পরিবেশ,বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রলায়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার একথা বলেন।
বুধবার ( ৩০ নভেম্বর) দুপুর মোংলা উপজেলা পরিষদ মাঠ চত্বর মোংলা সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়ের বাস্তবায়নে ২২-২৩ অর্থবছরে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের অর্থায়নে জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে উপকরণ সহায়তা হিসেবে বকনা বাছুর বিতরণ করা হয়। এর আগে ২২-২৩ অর্থবছরের ১ম পর্যায়ের টিআর কাবিখা, কাবিটা, গম ও চালের ডিও বিতরণ করেন উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার।বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা মৎস কর্মকর্তা এ এস এম রাসেল, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার,প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ জাফর রানা,সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার মোঃ জাহিদুল ইসলাম,মোংলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম।অনুষ্ঠানে মোংলা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের মৎস্যজীবিদের মধ্য থেকে ২০ জনকে বকনা বাছুর বিতরণ করা হয়।