শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মালয়েশিয়ায় ভুয়া ওয়ার্ক পারমিট বিক্রির দায়ে বাংলাদেশি আটক

ছবিঃ সংগৃহীত

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি পাসপোর্টসহ ভুয়া ওয়ার্ক পারমিটযুক্ত ভিসা তৈরি সিন্ডিকেটের মূল হোতাসহ তিন বাংলাদেশিকে আটক করেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে অভিবাসন বিভাগের পক্ষ থেকে এখনও আটক ব্যক্তিদের নাম-পরিচয় জানানো হয়নি। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দেশটির অভিবাসন বিভাগ তাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে এ তথ্য প্রকাশ করে।

সেলাঙ্গর রাজ্যের শাহ আলম জেলা পুলিশ প্রধান সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ ইকবাল ইব্রাহীম জানান, স্থানীয় সময় বুধবার (৩০ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শাহ আলম জেলার কাম্পুং বারু হাইকমের একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সী দুই বাংলাদেশিকে আটক করা হয়। দুজনই শাহ আলম এলাকার হাইকম-গ্লেনমারি ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে পরিচ্ছন্নতাকর্মী হিসেবে কাজ করতেন।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ভুয়া ১০টি ওয়ার্ক পারমিটযুক্ত পাস, একটি করে ল্যাপটপ ও প্রিন্টার এবং নির্দিষ্ট ওয়ার্ক পারমিট ইস্যুর উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত চারটি মোবাইল ফোনসহ বেশ কিছু সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে।

প্রথম অভিযানের পর সন্দেহভাজন ৩০ বছর বয়সী অপর বাংলাদেশি বুধবার রাতে শাহ আলম জেলা পুলিশ সদর দফতরে আত্মসমর্পণ করেন।

জেলা পুলিশ প্রধান বলেন, তদন্তে দেখা গেছে, তিন বছর ধরে তারা মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন এবং গত অক্টোবর থেকে এ এলাকায় নতুন করে এই কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন। এই সিন্ডিকেট বাংলাদেশসহ বিভিন্ন বিদেশি শ্রমিকের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে জাল ভিসা ও বিভিন্ন জাল নথিপত্র বিক্রির কাজে নিয়োজিত ছিল। এসব ভুয়া ওয়ার্ক পারমিট তৈরি করে নিরীহ শ্রমিকদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে বলেও তিনি জানান।

এদিকে, প্রথম অভিযানে আটক দুই সন্দেহভাজনকে শনিবার (৩ ডিসেম্বর) পর্যন্ত রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। তৃতীয় সন্দেহভাজনকে রিমান্ড আবেদনের জন্য বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) আদালতে হাজির করা হবে এবং প্রতারণার অভিযোগে দণ্ডবিধির ৪২০ ধারায় মামলাটি তদন্ত করা হবে।

অভিযান পরিচালনা করে শাহ আলম জেলা পুলিশ সদর (আইপিডি) ও শ্রী মুদা থানার কমার্শিয়াল ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের সদস্যদের একটি দল।

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

আশুলিয়ায় হেযবুত তওহীদ কর্মীদের উপর হামলা, নারীসহ আহত ১৩

মালয়েশিয়ায় ভুয়া ওয়ার্ক পারমিট বিক্রির দায়ে বাংলাদেশি আটক

প্রকাশের সময় : ০৫:৩৫:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি পাসপোর্টসহ ভুয়া ওয়ার্ক পারমিটযুক্ত ভিসা তৈরি সিন্ডিকেটের মূল হোতাসহ তিন বাংলাদেশিকে আটক করেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে অভিবাসন বিভাগের পক্ষ থেকে এখনও আটক ব্যক্তিদের নাম-পরিচয় জানানো হয়নি। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দেশটির অভিবাসন বিভাগ তাদের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে এ তথ্য প্রকাশ করে।

সেলাঙ্গর রাজ্যের শাহ আলম জেলা পুলিশ প্রধান সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ ইকবাল ইব্রাহীম জানান, স্থানীয় সময় বুধবার (৩০ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে শাহ আলম জেলার কাম্পুং বারু হাইকমের একটি বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সী দুই বাংলাদেশিকে আটক করা হয়। দুজনই শাহ আলম এলাকার হাইকম-গ্লেনমারি ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে পরিচ্ছন্নতাকর্মী হিসেবে কাজ করতেন।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ভুয়া ১০টি ওয়ার্ক পারমিটযুক্ত পাস, একটি করে ল্যাপটপ ও প্রিন্টার এবং নির্দিষ্ট ওয়ার্ক পারমিট ইস্যুর উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত চারটি মোবাইল ফোনসহ বেশ কিছু সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে।

প্রথম অভিযানের পর সন্দেহভাজন ৩০ বছর বয়সী অপর বাংলাদেশি বুধবার রাতে শাহ আলম জেলা পুলিশ সদর দফতরে আত্মসমর্পণ করেন।

জেলা পুলিশ প্রধান বলেন, তদন্তে দেখা গেছে, তিন বছর ধরে তারা মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন এবং গত অক্টোবর থেকে এ এলাকায় নতুন করে এই কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন। এই সিন্ডিকেট বাংলাদেশসহ বিভিন্ন বিদেশি শ্রমিকের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে জাল ভিসা ও বিভিন্ন জাল নথিপত্র বিক্রির কাজে নিয়োজিত ছিল। এসব ভুয়া ওয়ার্ক পারমিট তৈরি করে নিরীহ শ্রমিকদের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে বলেও তিনি জানান।

এদিকে, প্রথম অভিযানে আটক দুই সন্দেহভাজনকে শনিবার (৩ ডিসেম্বর) পর্যন্ত রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। তৃতীয় সন্দেহভাজনকে রিমান্ড আবেদনের জন্য বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) আদালতে হাজির করা হবে এবং প্রতারণার অভিযোগে দণ্ডবিধির ৪২০ ধারায় মামলাটি তদন্ত করা হবে।

অভিযান পরিচালনা করে শাহ আলম জেলা পুলিশ সদর (আইপিডি) ও শ্রী মুদা থানার কমার্শিয়াল ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের সদস্যদের একটি দল।