শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ইন্দোনেশিয়ার জাভায় শক্তিশালী ভূমিকম্প

  • বাসস
  • প্রকাশের সময় : ০১:১৮:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২

ইন্দোনেশিয়ার প্রধান জাভা দ্বীপে বৃহস্পতিবার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৮ ভাগ। একই প্রদেশে অপর একটি শক্তিশালী ভূমিকম্পে ৩০ জনেরও বেশি নিহত হওয়ার এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে এটি আঘাত হানলো। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা এ কথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র।

সংস্থাটি জানায়, চীনের সিয়ানজুর শহর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৫০মিনিটে (গ্রিনিচ মান সময় ০০৫০টা) ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।

ইউএসজিএস জানায়, ভূমিকম্পটি ভূপৃষ্টের ১২৩ কিলোমিটার গভীরে আঘাত হানায় এতে হতাহত বা ক্ষতির সম্ভাবনা কম। গত মাসে সিয়ানজুরে ভূপৃষ্টের একেবারে কম গভীরে রিখটার স্কেলে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে বিভিন্ন স্থানে ভূমিধসের ঘটনা ঘটে এবং অনেক ভবন ভেঙ্গে পড়ে।

২০১৮ সালের পর এটি ছিল ইন্দোনেশিয়ায় সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্পের ঘটনা। ২০১৮ সালে সুলাওয়েজি দ্বীপে শক্তিশালী ভূমিকম্পের ফলে সৃষ্ট সুনামির আঘাতে চার হাজারেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারায়। ইন্দোনেশিয়ার ভৌগলিক অবস্থান প্যাসিফিক ‘রিং অব ফায়ারে’ হওয়ার কারণে দেশটিতে মাঝে মধ্যেই ভূমিকম্প আঘাত হানতে দেখা যায়।

দীর্ঘ ২৪ বছর পর একই মঞ্চে লতিফ সিদ্দিকী ও কাদের সিদ্দিকী

রাহুল-আথিয়া সাত পাকে বাঁধা পড়লেন

বাংলাদেশ ও ভারত হচ্ছে অকৃত্রিম বন্ধু: ভারতীয় হাই কমিশনার

ইন্দোনেশিয়ার জাভায় শক্তিশালী ভূমিকম্প

প্রকাশের সময় : ০১:১৮:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২২

ইন্দোনেশিয়ার প্রধান জাভা দ্বীপে বৃহস্পতিবার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ৮ ভাগ। একই প্রদেশে অপর একটি শক্তিশালী ভূমিকম্পে ৩০ জনেরও বেশি নিহত হওয়ার এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে এটি আঘাত হানলো। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা এ কথা জানিয়েছে। খবর এএফপি’র।

সংস্থাটি জানায়, চীনের সিয়ানজুর শহর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৫০মিনিটে (গ্রিনিচ মান সময় ০০৫০টা) ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।

ইউএসজিএস জানায়, ভূমিকম্পটি ভূপৃষ্টের ১২৩ কিলোমিটার গভীরে আঘাত হানায় এতে হতাহত বা ক্ষতির সম্ভাবনা কম। গত মাসে সিয়ানজুরে ভূপৃষ্টের একেবারে কম গভীরে রিখটার স্কেলে ৫ দশমিক ৬ মাত্রার একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে বিভিন্ন স্থানে ভূমিধসের ঘটনা ঘটে এবং অনেক ভবন ভেঙ্গে পড়ে।

২০১৮ সালের পর এটি ছিল ইন্দোনেশিয়ায় সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্পের ঘটনা। ২০১৮ সালে সুলাওয়েজি দ্বীপে শক্তিশালী ভূমিকম্পের ফলে সৃষ্ট সুনামির আঘাতে চার হাজারেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারায়। ইন্দোনেশিয়ার ভৌগলিক অবস্থান প্যাসিফিক ‘রিং অব ফায়ারে’ হওয়ার কারণে দেশটিতে মাঝে মধ্যেই ভূমিকম্প আঘাত হানতে দেখা যায়।