শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চলতি বছর মন্দার কবলে পড়বে বিশ্ব অর্থনীতি

চলতি বছর বিশ্ব অর্থনীতির এক তৃতীয়াংশ মন্দার কবলে পড়বে বলে সতর্ক করেছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। সংস্থাটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা বলেছেন, গত বছরের চেয়ে ২০২৩ আরো ‘কঠিন’ হবে।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও চীন তাদের অর্থনীতিকে ধীরগতিতে দেখছে। বিবিসির খবর।

জর্জিয়েভা বলেন, আমরা ধারণা করছি বৈশ্বিক অর্থনীতির এক তৃতীয়াংশ মন্দার সম্মুখীন হবে। এমনকি যেসব দেশ মন্দার মুখোমুখি হয়নি, তারাও কয়েক লাখ মানুষের জন্য মন্দার সম্মুখীন হওয়ার মতো অনুভব করবে।

এর আগে ২০২২ সালের অক্টোবরে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি পূর্বাভাস কমিয়ে আনে আইএমএফ। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধে বিশ্বব্যাপী কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর সুদের হার বাড়ানো ও ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পূর্বাভাস কমিয়ে আনে আইএমএফ।

চীনের প্রসঙ্গে আইএমএফ ব্যবস্থাপনা পরিচালক সতর্ক করে বলেন, ২০২৩ সালে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ চীনও একটি কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে।

তিনি বলেন, আগামী কয়েক মাস চীনের জন্য এটি কঠিন হবে। চীনা প্রবৃদ্ধির ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

চলতি বছর মন্দার কবলে পড়বে বিশ্ব অর্থনীতি

প্রকাশের সময় : ০৮:২৬:১৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ জানুয়ারী ২০২৩

চলতি বছর বিশ্ব অর্থনীতির এক তৃতীয়াংশ মন্দার কবলে পড়বে বলে সতর্ক করেছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। সংস্থাটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা বলেছেন, গত বছরের চেয়ে ২০২৩ আরো ‘কঠিন’ হবে।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও চীন তাদের অর্থনীতিকে ধীরগতিতে দেখছে। বিবিসির খবর।

জর্জিয়েভা বলেন, আমরা ধারণা করছি বৈশ্বিক অর্থনীতির এক তৃতীয়াংশ মন্দার সম্মুখীন হবে। এমনকি যেসব দেশ মন্দার মুখোমুখি হয়নি, তারাও কয়েক লাখ মানুষের জন্য মন্দার সম্মুখীন হওয়ার মতো অনুভব করবে।

এর আগে ২০২২ সালের অক্টোবরে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি পূর্বাভাস কমিয়ে আনে আইএমএফ। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি রোধে বিশ্বব্যাপী কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর সুদের হার বাড়ানো ও ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে পূর্বাভাস কমিয়ে আনে আইএমএফ।

চীনের প্রসঙ্গে আইএমএফ ব্যবস্থাপনা পরিচালক সতর্ক করে বলেন, ২০২৩ সালে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ চীনও একটি কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে।

তিনি বলেন, আগামী কয়েক মাস চীনের জন্য এটি কঠিন হবে। চীনা প্রবৃদ্ধির ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।