শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বায়ার্ন কাছে হেরে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায় নিল পিএসজি

অ্যালিয়েঞ্জ অ্যারেনায় জার্মানির চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে দ্বিতীয় লেগে নেইমার জুনিয়রকে ছাড়াই নেমেছিল পিএসজি। কিন্তু থমাস মুলারদের বিপক্ষে দাঁড়াতেই পারেননি লিওনেল মেসিরা। ২-০ গোলের পরাজয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের এবারের আসর থেকে বিদায় নিলেন ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা।

চোটের কারণে পিএসজির পুরো মৌসুম থেকে ছিটকে গেছেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। তার অনুপস্থিতিতে বাড়তি দায়িত্ব ছিল কিলিয়ান এমবাপ্পে, লিওনেল মেসিদের কাঁধে। প্রথমার্ধে স্বাগতিক শিবিরে আতঙ্ক তৈরি করলেও কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি পিএসজি।

ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতেন ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু এমবাপ্পের শটের সামনে প্রতিরধের দেয়াল হয়ে দাঁড়ায় বায়ার্ন গোলরক্ষক ইয়ান সমের। শেষ কেউ-ই গোলের দেখা না পেলে গোলশূন্য ‘ড্র’ নিয়ে বিরতিতে যায় দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোল পেয়ে যায় স্বাগতিকরা। সাবেক পিএসজি ফরোয়ার্ড চুপো-মোটিং তার বর্তমান দল বায়ার্নের হয়ে প্রথম গোলটি করেন। লেয়ন গোরেটস্কার অ্যাসিস্টে ম্যাচের প্রথম গোলটি করেন ক্যামেরুনের এ তারকা।

পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে ফিরতে মরিয়া হওয়া পিএসজি বারবার আক্রমণ করেও বায়ার্ন দুর্গ ভাঙতে পারেনি। উল্টো ম্যাচের শেষ দিকে ৮৯তম মিনিটে সার্গে গ্যানাব্রির গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে মিউনিখ। আর তাতেই ২-০ গোলের জয় পায় জার্মান চ্যাম্পিয়নরা।

ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-০ গোলের হারে চ্যাম্পিয়নস লিগের এবারের আসর থেকে বিদায় নিল মেসির পিএসজি। শেষ আটে বায়ার্নের সঙ্গী হয়েছে এসি মিলান। দুই লেগ মিলিয়ে টটেনহ্যাম হটস্পারকে ১-০ গোলে হারিয়ে শেষ আটে উঠেছেন ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা।

বায়ার্ন কাছে হেরে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায় নিল পিএসজি

প্রকাশের সময় : ১০:৪৩:৪৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মার্চ ২০২৩

অ্যালিয়েঞ্জ অ্যারেনায় জার্মানির চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে দ্বিতীয় লেগে নেইমার জুনিয়রকে ছাড়াই নেমেছিল পিএসজি। কিন্তু থমাস মুলারদের বিপক্ষে দাঁড়াতেই পারেননি লিওনেল মেসিরা। ২-০ গোলের পরাজয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের এবারের আসর থেকে বিদায় নিলেন ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা।

চোটের কারণে পিএসজির পুরো মৌসুম থেকে ছিটকে গেছেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। তার অনুপস্থিতিতে বাড়তি দায়িত্ব ছিল কিলিয়ান এমবাপ্পে, লিওনেল মেসিদের কাঁধে। প্রথমার্ধে স্বাগতিক শিবিরে আতঙ্ক তৈরি করলেও কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি পিএসজি।

ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারতেন ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু এমবাপ্পের শটের সামনে প্রতিরধের দেয়াল হয়ে দাঁড়ায় বায়ার্ন গোলরক্ষক ইয়ান সমের। শেষ কেউ-ই গোলের দেখা না পেলে গোলশূন্য ‘ড্র’ নিয়ে বিরতিতে যায় দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোল পেয়ে যায় স্বাগতিকরা। সাবেক পিএসজি ফরোয়ার্ড চুপো-মোটিং তার বর্তমান দল বায়ার্নের হয়ে প্রথম গোলটি করেন। লেয়ন গোরেটস্কার অ্যাসিস্টে ম্যাচের প্রথম গোলটি করেন ক্যামেরুনের এ তারকা।

পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে ফিরতে মরিয়া হওয়া পিএসজি বারবার আক্রমণ করেও বায়ার্ন দুর্গ ভাঙতে পারেনি। উল্টো ম্যাচের শেষ দিকে ৮৯তম মিনিটে সার্গে গ্যানাব্রির গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে মিউনিখ। আর তাতেই ২-০ গোলের জয় পায় জার্মান চ্যাম্পিয়নরা।

ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৩-০ গোলের হারে চ্যাম্পিয়নস লিগের এবারের আসর থেকে বিদায় নিল মেসির পিএসজি। শেষ আটে বায়ার্নের সঙ্গী হয়েছে এসি মিলান। দুই লেগ মিলিয়ে টটেনহ্যাম হটস্পারকে ১-০ গোলে হারিয়ে শেষ আটে উঠেছেন ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা।