বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চীনের তৈরি ড্রোন ভূপাতিত করল ইউক্রেন

বাখমুত শহরে চলছে রুশ বাহিনীর সঙ্গে ইউক্রেনীয় বাহিনীর তুমুল লড়াই। এরই মধ্যে বনের গভীরে একটি চীনা ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করেছে ইউক্রেন।

বুধবার সুউচ্চ পাইনগাছ এবং পরিষ্কার নীল আকাশের মধ্যে বিস্ফোরণের শব্দে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে চীনা ড্রোন। খবর সিএনএনের।

সিএনএনের প্রতিবেক বলেন, ইউক্রেনীয় সেনারা বনের মধ্যে আমাদের একটি অস্ত্রসহ ড্রোনের ধ্বংসাবশেষ দেখিয়েছেন। ইউক্রেনীয় সেনাদের দাবি, চলতি সপ্তাহে তাদের বাহিনী গুলি করে ড্রোনটি ভূপাতিত করেছে।

ড্রোনটি ছিল- একটি মুগিন-৫, যেটি বাণিজ্যিক মানবহীন এরিয়াল ভেহিকল (ইউএভি) যা চীনের পূর্ব উপকূলে অবস্থিত বন্দর শহর জিয়ামেনে অবস্থিত একটি চীনা নির্মাতার তৈরি।

তবে কিছু প্রযুক্তি ব্লগার বলেছে, মেশিনগুলো ‘আলিবাবা ড্রোন’ নামে পরিচিত কারণ এগুলো আলিবাবা এবং তাওবাওসহ চীনা মার্কেটপ্লেস ওয়েবসাইটগুলোতে ১৫ হাজার ডলার পর্যন্ত বিক্রয় করা হয়ে থাকে।

মুগিন লিমিটেড সিএনএনকে নিশ্চিত করেছে- এটি তাদের এয়ারফ্রেম ছিল। ঘটনাটিকে গভীরভাবে দুর্ভাগ্যজনক বলে অভিহিত করেছে তারা।

ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এটি একটি বেসামরিক ড্রোনকে ভূপাতিত করার সর্বশেষ উদাহরণ, যা যুদ্ধের দ্রুত পরিবর্তনের নিদর্শনগুলোর একটি চিহ্ন উদাহরণ।

চীনের তৈরি ড্রোন ভূপাতিত করল ইউক্রেন

প্রকাশের সময় : ০৩:১০:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩

বাখমুত শহরে চলছে রুশ বাহিনীর সঙ্গে ইউক্রেনীয় বাহিনীর তুমুল লড়াই। এরই মধ্যে বনের গভীরে একটি চীনা ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করেছে ইউক্রেন।

বুধবার সুউচ্চ পাইনগাছ এবং পরিষ্কার নীল আকাশের মধ্যে বিস্ফোরণের শব্দে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে চীনা ড্রোন। খবর সিএনএনের।

সিএনএনের প্রতিবেক বলেন, ইউক্রেনীয় সেনারা বনের মধ্যে আমাদের একটি অস্ত্রসহ ড্রোনের ধ্বংসাবশেষ দেখিয়েছেন। ইউক্রেনীয় সেনাদের দাবি, চলতি সপ্তাহে তাদের বাহিনী গুলি করে ড্রোনটি ভূপাতিত করেছে।

ড্রোনটি ছিল- একটি মুগিন-৫, যেটি বাণিজ্যিক মানবহীন এরিয়াল ভেহিকল (ইউএভি) যা চীনের পূর্ব উপকূলে অবস্থিত বন্দর শহর জিয়ামেনে অবস্থিত একটি চীনা নির্মাতার তৈরি।

তবে কিছু প্রযুক্তি ব্লগার বলেছে, মেশিনগুলো ‘আলিবাবা ড্রোন’ নামে পরিচিত কারণ এগুলো আলিবাবা এবং তাওবাওসহ চীনা মার্কেটপ্লেস ওয়েবসাইটগুলোতে ১৫ হাজার ডলার পর্যন্ত বিক্রয় করা হয়ে থাকে।

মুগিন লিমিটেড সিএনএনকে নিশ্চিত করেছে- এটি তাদের এয়ারফ্রেম ছিল। ঘটনাটিকে গভীরভাবে দুর্ভাগ্যজনক বলে অভিহিত করেছে তারা।

ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এটি একটি বেসামরিক ড্রোনকে ভূপাতিত করার সর্বশেষ উদাহরণ, যা যুদ্ধের দ্রুত পরিবর্তনের নিদর্শনগুলোর একটি চিহ্ন উদাহরণ।