সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রিয়াঙ্কাকে অন্তর্বাস দেখাতে বলেছিলেন পরিচালক

ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ‘গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর’ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। পশ্চিমী দুনিয়ায় যে সাফল্য অর্জন করেছেন ‘দেশি গার্ল’, তা এককথায় ঈর্ষনীয়! মিস ওয়ার্ল্ডের মুকুট জয়ের মধ্য দিয়ে চর্চায় উঠে আসেন পিগি চপস। এরপর বলিউডে আত্মপ্রকাশ। কিন্তু রুপালি দুনিয়ায় তার সফর সহজ ছিল না।

জানেন কি, একবার এক ছবির শুটিংয়ে এক পরিচালক প্রিয়াঙ্কার ‘অন্তর্বাস দেখতে চেয়েছিলেন’।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেই তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী। প্রিয়াঙ্কার কথায়, ‘সেই মুহূর্তটা ‘অমানবিক’ ছিল। পরিচালকের নাম বা ছবির নাম ফাঁস করেননি নিক জোনাস ঘরণী। তবে জানান, ২০০২-০৩ সাল নাগাদ এই ঘটনার সম্মুখীন হয়েছিলেন তিনি।

ছবিতে ‘আন্ডারকভার এজেন্ট’-এর চরিত্রে অভিনয় করছিলেন পিগি চপস। ‘দ্য জো রিপোর্ট’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘সময়টা ছিল ২০০২-০৩, আমি আন্ডারকভারের চরিত্রর ছিলাম এবং একজন পুরুষকে সিডিউস (প্রলুব্ধ করা) করছিলাম—আন্ডারকভার থাকাকালীন তেমনটা করতে হয়, সেটা স্বাভাবিক।’

নায়িকা বলেন, ‘একটা মুহূর্ত ছিল যেখানে আমাকে পোশাক খুলতে হত। আমি চেয়েছিলাম বেশ কয়েকটি পোশাক পরতে। কিন্তু পরিচালক বললেন, আমি অন্তর্বাস (আন্ডারওয়ার) দেখতে চাই। না হলে কেউ ছবিটা দেখতে আসবে কেন?’

প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘উনি শুধু আমাকে এই কথা বলেননি। আমার স্টাইলিস্টকে এই নির্দেশ দেন উনি। ওই মুহূর্তটা খুব অমানবিক ছিল। মনে হয়েছিল, আমার শিল্পটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, আমাকে কীভাবে ব্যবহার করা যাবে সেটাই জরুরি। আমি কী কাজ করতে পারি সেটা না।’

দুই দিন কাজ করার পর ছবিটি ছেড়ে বেরিয়ে আসেন প্রিয়াঙ্কা। বাবা, অশোক চোপড়ার নির্দেশে ওই দুই দিনে তার পেছনে প্রযোজনা সংস্থার যা যা খরচ হয়েছে সেই সমস্ত টাকা ফেরত দেন অভিনেত্রী। পারিশ্রমিকের আগাম টাকাও ফিরিয়ে দেন।

প্রিয়াঙ্কাকে অন্তর্বাস দেখাতে বলেছিলেন পরিচালক

প্রকাশের সময় : ০৬:৫৮:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ‘গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর’ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। পশ্চিমী দুনিয়ায় যে সাফল্য অর্জন করেছেন ‘দেশি গার্ল’, তা এককথায় ঈর্ষনীয়! মিস ওয়ার্ল্ডের মুকুট জয়ের মধ্য দিয়ে চর্চায় উঠে আসেন পিগি চপস। এরপর বলিউডে আত্মপ্রকাশ। কিন্তু রুপালি দুনিয়ায় তার সফর সহজ ছিল না।

জানেন কি, একবার এক ছবির শুটিংয়ে এক পরিচালক প্রিয়াঙ্কার ‘অন্তর্বাস দেখতে চেয়েছিলেন’।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেই তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী। প্রিয়াঙ্কার কথায়, ‘সেই মুহূর্তটা ‘অমানবিক’ ছিল। পরিচালকের নাম বা ছবির নাম ফাঁস করেননি নিক জোনাস ঘরণী। তবে জানান, ২০০২-০৩ সাল নাগাদ এই ঘটনার সম্মুখীন হয়েছিলেন তিনি।

ছবিতে ‘আন্ডারকভার এজেন্ট’-এর চরিত্রে অভিনয় করছিলেন পিগি চপস। ‘দ্য জো রিপোর্ট’কে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘সময়টা ছিল ২০০২-০৩, আমি আন্ডারকভারের চরিত্রর ছিলাম এবং একজন পুরুষকে সিডিউস (প্রলুব্ধ করা) করছিলাম—আন্ডারকভার থাকাকালীন তেমনটা করতে হয়, সেটা স্বাভাবিক।’

নায়িকা বলেন, ‘একটা মুহূর্ত ছিল যেখানে আমাকে পোশাক খুলতে হত। আমি চেয়েছিলাম বেশ কয়েকটি পোশাক পরতে। কিন্তু পরিচালক বললেন, আমি অন্তর্বাস (আন্ডারওয়ার) দেখতে চাই। না হলে কেউ ছবিটা দেখতে আসবে কেন?’

প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘উনি শুধু আমাকে এই কথা বলেননি। আমার স্টাইলিস্টকে এই নির্দেশ দেন উনি। ওই মুহূর্তটা খুব অমানবিক ছিল। মনে হয়েছিল, আমার শিল্পটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, আমাকে কীভাবে ব্যবহার করা যাবে সেটাই জরুরি। আমি কী কাজ করতে পারি সেটা না।’

দুই দিন কাজ করার পর ছবিটি ছেড়ে বেরিয়ে আসেন প্রিয়াঙ্কা। বাবা, অশোক চোপড়ার নির্দেশে ওই দুই দিনে তার পেছনে প্রযোজনা সংস্থার যা যা খরচ হয়েছে সেই সমস্ত টাকা ফেরত দেন অভিনেত্রী। পারিশ্রমিকের আগাম টাকাও ফিরিয়ে দেন।