বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আলু রপ্তানি বন্ধ করল ভারত

পেঁয়াজের পর এবার ভারত থেকে বন্ধ হয়ে গেল আলু আমদানি। অনুমতিপত্রের (আইপি) মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় আলু পাঠানো বন্ধ করে দিয়েছে প্রতিবেশী দেশটি। এ অবস্থায় দেশের বাজারে আবারও আলুর মূল্য বৃদ্ধির আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা। দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে আরো ১৫ দিন আলু আমদানি চালু রাখার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।
গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টার পর থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আলু আমদানি বন্ধ হয়ে গেছে। নিয়ম অনুযায়ী আজ শুক্রবার আমদানিপত্রের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। কিন্তু সাপ্তাহিক বন্ধের কারণে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আমদানি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আর শেষ দিনে এই বন্দর দিয়ে রেকর্ড পরিমান ১৯৭ ভারতীয় ট্রাকে ৫ হাজার ২০৬ মেট্রিক টন আলু আমদানি হয়েছে।
বন্দর সংশ্লিষ্টরা জানায়,সরকারের দেওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী ১৫ ডিসেম্বর শুক্রবার পর্যন্ত আলু আমদানি করা অনুমতি ছিল। কিন্তু ১৫ ডিসেম্বর আজ শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি হওয়ায় একদিন আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টার পর থেকে আলু আমদানি বন্ধ হয়ে গেছে। সরকারের প থেকে আইপির মেয়াদ বাড়ানো না হলে পেঁয়াজের মতো আলুর বাজার অস্থির হয়ে পড়বে। তারা বলছেন, দেশে উৎপাদন নতুন আলু এখনো বাজারে পর্যাপ্ত সরবরাহ নেই।
পর্যাপ্ত সরবরাহ হতে আরো অন্তত ১৫ দিন সময় লাগবে। সেই দিন বিবেচনা আমদানির অনুমতি মেয়াদ আরো ১৫ দিন বাড়ানো হলে বাজার নিয়ন্ত্রণে থাকবে।
এর আগে আগস্ট মাসে দেশের বাজারে আলুর সংকট দেখা দেওয়ায় দাম নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়ে। তাই দাম নিয়ন্ত্রণে ৩০ অক্টোরব দেশে আলু আমদানির অনুমতি দেয় সরকার। এর পর ২ নভেম্বর থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আলু আমদানি শুরু করেন বন্দরের ব্যবসায়ীরা। ফলে কেজিতে ৮০ থেকে ৯০ দরে বিক্রি হওয়া আলুর দাম ৩৮ থেকে ৪২ টাকায় নেমে আসে।
হিলি স্থলবন্দরের আমদানি শহিদুল ইসলাম বলেন,বাজারে এখনো পর্যন্ত তেমন নতুন আলু উঠতে শুরু করেনি। যেটুকু পাওয়া যাচ্ছে তার দামও আকাশ ছোঁয়া। এমন অবস্থায় আলু আমদানি বন্ধ হয়ে গেলে দাম নিয়ন্ত্রহীন হয়ে পড়বে। তাই সরকারের কাছে দাবি আরো ১৫ দিন আমদানির মেয়াদ বাড়ানো হোক।
হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সহ-সভাপতি শাহিনুর ইসলাম বলেন, যে পরিমাণ আলু আমদানির আইপি জমা দিয়েছে ব্যবসায়ীরা তা এখনো আমদানি সম্পন্ন করতে পারেনি। তাই দাবি আমদানির মেয়াদ আরো বাড়ানো হোক।

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ২ নভেম্বর থেকে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৩৭৫ টি ভারতীয় ট্রাকে ৩৫ হাজার ৯৮১ মেট্রিক টন আলু আমদানি হয়েছে।

অবশেষে উচ্চ আদালতের নির্দেশে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী

অবশেষে উচ্চ আদালতের নির্দেশে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দিনাজপুর-৬ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন দিনাজপুর-৬ আসনের তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী মোফাজ্জল হোসেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে মোফাজ্জল দিনাজপুর জেলা রিটানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক শাকিল আহম্মেদের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন।
এর আগে মনোনয়নপত্র দালিখের শেষ দিন গত ৩০ নভেম্বর হাকিমপুর উপজেলা সহকারি রিটানিং অফিসার ও নির্বাহী অফিসার অমিত রায়ের কাছে ১ মিনিট পরে মনোনয়ন জমা দিতে গেলে জমা নেননি তিনি।
পরে মোফাজ্জল হোসেন মহামান্য হাইকোর্টে রিট পিটিশন করে। দুইজন বিচারপতির সম্বনয়ে আদালত মোফাজ্জল হোসেনের মনোনয়নপত্র জমা নেওয়ার নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশের প্রেক্ষিতে মোফাজ্জল হোসেন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। আগামী ১৭ ডিসেম্বর তার মনোনয়নপত্র যাচাই বাচাই করা হবে মর্মে রিটানিং অফিসার মোফাজ্জল হোসেনকে চিঠি দিয়েছেন। মোফাজ্জল হোসেন দিনাজপুর-৬ আসনে তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী।

হাকিমপুরে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ওসি’র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

দিনাজপুরের হাকিমপুরে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা করছেন হাকিমপুর থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: দুলাল হোসেন।
বৃহস্পতিবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত ৮ টায় থানায় ওসি’র কার্যালয়ে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন তিনি।
মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন থানার ইন্সপেক্টর ওসি (তদন্ত) এস এম জাহাঙ্গীর আলম,হাকিমপুর প্রেসকাবের সভাপতি গোলাম মোস্তাফিজার রহমান মিলন,নবনিবাচিত সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ,সাধারণ সম্পাদক মুরাদ ইমাম কবির,নবনিবাচিত সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বুলু,সিনিয়র সাংবাদিক মাসুদুল হক রুবেল।
এসময় সেখানে সাংবাদিক রমেন বসাক,রবিউল ইসলাম সুইট, হালিম রাজি, সাজ্জাদ হোসেন,মিজানুর রহমান, মোসলেম উদ্দিন, নুরুজ্জামান,তারিকুল সরকার,আবু মুসা মিয়া,তাছির উদ্দিন বাপ্পি,মোকছেদুল মমিন মোয়েজ্জম, গোলাম রব্বানী, লুৎফর রহমান,মোস্তাকিন হোসেন,ছামিউল ইসলামসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময় সভায় ওসি দুলাল হোসেন বলেন, হাকিমপুর থানা যেহেতু সীমান্তবর্তী থানা। তাই এই হাকিমপুর থানাকে শতভাগ মাদকমুক্ত করতে আমি বদ্ধ পরিকর। মাদকের বিষয়ে কারো সাথে কোন আপোষ নেই। যদি কোন পুলিশ সদস্য মাদকের সাথে জড়িত থাকে স্পষ্ট আমাকে জানাবেন। আমার একার পে মাদক নিয়ন্ত্রণ আনা সম্ভব নয়। আপনাদের সহযোগিতা আমার একান্ত কাম্য। আপনাদের সহযোগিতায় আমি হিলিকে মাদক মুক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাবো।
তাই মাদক ও এলাকার আইন-শৃঙ্খলা রায় বিভিন্ন তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার অনুরোধ জানান। সাংবাদিকদের পওে পেশাগত দায়িত্ব পালনে সহযোগিতা করার আহ্বান জানানো হয়।

মৌলভীবাজারে প্রতিপক্ষের হামলার শিকার শিশু মিনহাজ বাদ পড়েনি 

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আলু রপ্তানি বন্ধ করল ভারত

প্রকাশের সময় : ১০:৩৬:৫৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০২৩

পেঁয়াজের পর এবার ভারত থেকে বন্ধ হয়ে গেল আলু আমদানি। অনুমতিপত্রের (আইপি) মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় আলু পাঠানো বন্ধ করে দিয়েছে প্রতিবেশী দেশটি। এ অবস্থায় দেশের বাজারে আবারও আলুর মূল্য বৃদ্ধির আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা। দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে আরো ১৫ দিন আলু আমদানি চালু রাখার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।
গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টার পর থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আলু আমদানি বন্ধ হয়ে গেছে। নিয়ম অনুযায়ী আজ শুক্রবার আমদানিপত্রের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। কিন্তু সাপ্তাহিক বন্ধের কারণে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আমদানি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আর শেষ দিনে এই বন্দর দিয়ে রেকর্ড পরিমান ১৯৭ ভারতীয় ট্রাকে ৫ হাজার ২০৬ মেট্রিক টন আলু আমদানি হয়েছে।
বন্দর সংশ্লিষ্টরা জানায়,সরকারের দেওয়া নির্দেশনা অনুযায়ী ১৫ ডিসেম্বর শুক্রবার পর্যন্ত আলু আমদানি করা অনুমতি ছিল। কিন্তু ১৫ ডিসেম্বর আজ শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি হওয়ায় একদিন আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টার পর থেকে আলু আমদানি বন্ধ হয়ে গেছে। সরকারের প থেকে আইপির মেয়াদ বাড়ানো না হলে পেঁয়াজের মতো আলুর বাজার অস্থির হয়ে পড়বে। তারা বলছেন, দেশে উৎপাদন নতুন আলু এখনো বাজারে পর্যাপ্ত সরবরাহ নেই।
পর্যাপ্ত সরবরাহ হতে আরো অন্তত ১৫ দিন সময় লাগবে। সেই দিন বিবেচনা আমদানির অনুমতি মেয়াদ আরো ১৫ দিন বাড়ানো হলে বাজার নিয়ন্ত্রণে থাকবে।
এর আগে আগস্ট মাসে দেশের বাজারে আলুর সংকট দেখা দেওয়ায় দাম নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়ে। তাই দাম নিয়ন্ত্রণে ৩০ অক্টোরব দেশে আলু আমদানির অনুমতি দেয় সরকার। এর পর ২ নভেম্বর থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আলু আমদানি শুরু করেন বন্দরের ব্যবসায়ীরা। ফলে কেজিতে ৮০ থেকে ৯০ দরে বিক্রি হওয়া আলুর দাম ৩৮ থেকে ৪২ টাকায় নেমে আসে।
হিলি স্থলবন্দরের আমদানি শহিদুল ইসলাম বলেন,বাজারে এখনো পর্যন্ত তেমন নতুন আলু উঠতে শুরু করেনি। যেটুকু পাওয়া যাচ্ছে তার দামও আকাশ ছোঁয়া। এমন অবস্থায় আলু আমদানি বন্ধ হয়ে গেলে দাম নিয়ন্ত্রহীন হয়ে পড়বে। তাই সরকারের কাছে দাবি আরো ১৫ দিন আমদানির মেয়াদ বাড়ানো হোক।
হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সহ-সভাপতি শাহিনুর ইসলাম বলেন, যে পরিমাণ আলু আমদানির আইপি জমা দিয়েছে ব্যবসায়ীরা তা এখনো আমদানি সম্পন্ন করতে পারেনি। তাই দাবি আমদানির মেয়াদ আরো বাড়ানো হোক।

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ২ নভেম্বর থেকে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৩৭৫ টি ভারতীয় ট্রাকে ৩৫ হাজার ৯৮১ মেট্রিক টন আলু আমদানি হয়েছে।

অবশেষে উচ্চ আদালতের নির্দেশে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী

অবশেষে উচ্চ আদালতের নির্দেশে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দিনাজপুর-৬ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন দিনাজপুর-৬ আসনের তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী মোফাজ্জল হোসেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে মোফাজ্জল দিনাজপুর জেলা রিটানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক শাকিল আহম্মেদের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন।
এর আগে মনোনয়নপত্র দালিখের শেষ দিন গত ৩০ নভেম্বর হাকিমপুর উপজেলা সহকারি রিটানিং অফিসার ও নির্বাহী অফিসার অমিত রায়ের কাছে ১ মিনিট পরে মনোনয়ন জমা দিতে গেলে জমা নেননি তিনি।
পরে মোফাজ্জল হোসেন মহামান্য হাইকোর্টে রিট পিটিশন করে। দুইজন বিচারপতির সম্বনয়ে আদালত মোফাজ্জল হোসেনের মনোনয়নপত্র জমা নেওয়ার নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশের প্রেক্ষিতে মোফাজ্জল হোসেন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। আগামী ১৭ ডিসেম্বর তার মনোনয়নপত্র যাচাই বাচাই করা হবে মর্মে রিটানিং অফিসার মোফাজ্জল হোসেনকে চিঠি দিয়েছেন। মোফাজ্জল হোসেন দিনাজপুর-৬ আসনে তৃণমূল বিএনপি মনোনীত প্রার্থী।

হাকিমপুরে সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ওসি’র মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

দিনাজপুরের হাকিমপুরে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা করছেন হাকিমপুর থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: দুলাল হোসেন।
বৃহস্পতিবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত ৮ টায় থানায় ওসি’র কার্যালয়ে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন তিনি।
মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন থানার ইন্সপেক্টর ওসি (তদন্ত) এস এম জাহাঙ্গীর আলম,হাকিমপুর প্রেসকাবের সভাপতি গোলাম মোস্তাফিজার রহমান মিলন,নবনিবাচিত সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ,সাধারণ সম্পাদক মুরাদ ইমাম কবির,নবনিবাচিত সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বুলু,সিনিয়র সাংবাদিক মাসুদুল হক রুবেল।
এসময় সেখানে সাংবাদিক রমেন বসাক,রবিউল ইসলাম সুইট, হালিম রাজি, সাজ্জাদ হোসেন,মিজানুর রহমান, মোসলেম উদ্দিন, নুরুজ্জামান,তারিকুল সরকার,আবু মুসা মিয়া,তাছির উদ্দিন বাপ্পি,মোকছেদুল মমিন মোয়েজ্জম, গোলাম রব্বানী, লুৎফর রহমান,মোস্তাকিন হোসেন,ছামিউল ইসলামসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময় সভায় ওসি দুলাল হোসেন বলেন, হাকিমপুর থানা যেহেতু সীমান্তবর্তী থানা। তাই এই হাকিমপুর থানাকে শতভাগ মাদকমুক্ত করতে আমি বদ্ধ পরিকর। মাদকের বিষয়ে কারো সাথে কোন আপোষ নেই। যদি কোন পুলিশ সদস্য মাদকের সাথে জড়িত থাকে স্পষ্ট আমাকে জানাবেন। আমার একার পে মাদক নিয়ন্ত্রণ আনা সম্ভব নয়। আপনাদের সহযোগিতা আমার একান্ত কাম্য। আপনাদের সহযোগিতায় আমি হিলিকে মাদক মুক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাবো।
তাই মাদক ও এলাকার আইন-শৃঙ্খলা রায় বিভিন্ন তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার অনুরোধ জানান। সাংবাদিকদের পওে পেশাগত দায়িত্ব পালনে সহযোগিতা করার আহ্বান জানানো হয়।