বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কলকাতায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বৃদ্ধার মৃত্যু

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে| স্বাস্থ্য দফতরের সূত্র অনুযায়ী, ওই বৃদ্ধার বয়স ৭০ বছর। বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) কলকাতার ইকবালপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতাল সূত্রের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, হৃদযন্ত্র ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা হতে থাকায় বৃহস্পতিবার বৃদ্ধাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে তার করোনা পরীক্ষা হয়েছিলো। মৃত্যুর পর রিপোর্ট এলে দেখা যায়, বৃদ্ধা করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, এখানে করোনার নতুন ধরন জেএন.১-এর সন্ধান এখনো মেলেনি। তবে, রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। বাড়ছে আইসিইউতে রোগীও। ফলে করোনায় মৃত্যুর খবরে উদ্বেগ বেড়েছে।

চিকিৎসকদের মতে, করোনায় মৃত্যুর পরিসংখ্যান বৃদ্ধির প্রবণতা উড়িয়ে দেয়াটা বিপদ ডেকে আনবে। এখনই সতর্ক হতে হবে। তবে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

কেরালায় কোভিডের উপরূপ জেএন.১-এর খোঁজ মিলতেই প্রতিটি রাজ্যকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। শহরের একাধিক বেসরকারি হাসপাতালে করোনা আক্রান্তের ভর্তি থাকার কথা জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে শুরু হয়েছে বিভিন্ন সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলোতে পরিদর্শন।

মৌলভীবাজারে প্রতিপক্ষের হামলার শিকার শিশু মিনহাজ বাদ পড়েনি 

কলকাতায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বৃদ্ধার মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ০৪:০৫:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২৩

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে| স্বাস্থ্য দফতরের সূত্র অনুযায়ী, ওই বৃদ্ধার বয়স ৭০ বছর। বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) কলকাতার ইকবালপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

হাসপাতাল সূত্রের বরাতে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, হৃদযন্ত্র ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা হতে থাকায় বৃহস্পতিবার বৃদ্ধাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে তার করোনা পরীক্ষা হয়েছিলো। মৃত্যুর পর রিপোর্ট এলে দেখা যায়, বৃদ্ধা করোনায় আক্রান্ত ছিলেন।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, এখানে করোনার নতুন ধরন জেএন.১-এর সন্ধান এখনো মেলেনি। তবে, রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। বাড়ছে আইসিইউতে রোগীও। ফলে করোনায় মৃত্যুর খবরে উদ্বেগ বেড়েছে।

চিকিৎসকদের মতে, করোনায় মৃত্যুর পরিসংখ্যান বৃদ্ধির প্রবণতা উড়িয়ে দেয়াটা বিপদ ডেকে আনবে। এখনই সতর্ক হতে হবে। তবে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

কেরালায় কোভিডের উপরূপ জেএন.১-এর খোঁজ মিলতেই প্রতিটি রাজ্যকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। শহরের একাধিক বেসরকারি হাসপাতালে করোনা আক্রান্তের ভর্তি থাকার কথা জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে শুরু হয়েছে বিভিন্ন সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলোতে পরিদর্শন।