বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভূরুঙ্গামারীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ৭ টি বাড়ি ৯ গরু পুড়ে ছাই

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২ ব‍্যক্তির বাড়ির ৭ টি ঘর ও ৯টি গরু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। দুটি গরু আগনে দগ্ধ হলে জবাই করে এলাকাবাসী। এতে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়।
বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি ) রাত আনুমানিক ১০ ঘটিকার দিকে উপজেলার পাইকের ছড়া ইউনিয়নের  ৫ নং ওয়ার্ডের দুধকুমার নদীর তীরে মৃত কাজী সোনারুর ছেলে নছর দেওয়ানি এর বাড়িতে বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। মূহর্তেই আগুন বাড়ির চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। পরে প্রতিবেশী আতর আলী ও তার বোন মর্জিনা বেগম এর বাড়িতে আগুন লাগে। দুটি বাড়িতে মোট সাতটি ঘর, প্রায় ৭০ মণ ধান, চাল, অন‍্যান‍্য আসবাব পত্রসহ ২ জনের ৯ টি গরু পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়। এসময় ২ জনের ঘরে থাকা নগদ ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা পুড়ে যায়।
প্রত‍্যক্ষদর্শী বেলাল, রেজাউল, জহুরুল, মাইদুল ও বাদশা জানান, আমরা পাটেশ্বরী বাজারে ছিলাম। রাত নয়টার দিকে হঠাৎ প্রচণ্ড আগুনের শিখা ও চিৎকার শুনে এগিয়ে এসে দেখি আগুন বাড়ির চারপাশে ছড়িয়ে পড়েছে। আগুনের এতো তাপ যে কেউ কাছে ভীড়তে পারছি না। পরে নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিস ও এলাকাবাসির সহযোগিতায় প্রায় ঘন্টা খানিক পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।
ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিক আতর আলী জানান, গতকাল ব‍্যাংক থেকে ৭০ হাজার টাকা তুলেছি এবং  হাতে ছিলো নগদ ৩০ হাজার টাকা। সব টাকা ঘরের আলমারিতে ছিলো।  ঘর থেকে কিছুই বের করতে পারিনি। আগুনে পড়ে আমি নিঃস্ব হয়ে গেলাম।
পাইকের ছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত‍্যতা নিশ্চিত করে জানান, আগুনে পুড়ে পরিবার দুটি নিঃস্ব হয়ে গেলো। ঘটনাটি উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।
নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার ইমন মিয়া জানান, খবর পেয়ে আমাদের টিম ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ধারণা করা হচ্ছে বিদ‍্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণে কাজ চলছে।

ভূরুঙ্গামারীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ৭ টি বাড়ি ৯ গরু পুড়ে ছাই

প্রকাশের সময় : ১১:৫৬:৩৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৪
কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২ ব‍্যক্তির বাড়ির ৭ টি ঘর ও ৯টি গরু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। দুটি গরু আগনে দগ্ধ হলে জবাই করে এলাকাবাসী। এতে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়।
বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি ) রাত আনুমানিক ১০ ঘটিকার দিকে উপজেলার পাইকের ছড়া ইউনিয়নের  ৫ নং ওয়ার্ডের দুধকুমার নদীর তীরে মৃত কাজী সোনারুর ছেলে নছর দেওয়ানি এর বাড়িতে বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। মূহর্তেই আগুন বাড়ির চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। পরে প্রতিবেশী আতর আলী ও তার বোন মর্জিনা বেগম এর বাড়িতে আগুন লাগে। দুটি বাড়িতে মোট সাতটি ঘর, প্রায় ৭০ মণ ধান, চাল, অন‍্যান‍্য আসবাব পত্রসহ ২ জনের ৯ টি গরু পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়। এসময় ২ জনের ঘরে থাকা নগদ ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা পুড়ে যায়।
প্রত‍্যক্ষদর্শী বেলাল, রেজাউল, জহুরুল, মাইদুল ও বাদশা জানান, আমরা পাটেশ্বরী বাজারে ছিলাম। রাত নয়টার দিকে হঠাৎ প্রচণ্ড আগুনের শিখা ও চিৎকার শুনে এগিয়ে এসে দেখি আগুন বাড়ির চারপাশে ছড়িয়ে পড়েছে। আগুনের এতো তাপ যে কেউ কাছে ভীড়তে পারছি না। পরে নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিস ও এলাকাবাসির সহযোগিতায় প্রায় ঘন্টা খানিক পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।
ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির মালিক আতর আলী জানান, গতকাল ব‍্যাংক থেকে ৭০ হাজার টাকা তুলেছি এবং  হাতে ছিলো নগদ ৩০ হাজার টাকা। সব টাকা ঘরের আলমারিতে ছিলো।  ঘর থেকে কিছুই বের করতে পারিনি। আগুনে পড়ে আমি নিঃস্ব হয়ে গেলাম।
পাইকের ছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত‍্যতা নিশ্চিত করে জানান, আগুনে পুড়ে পরিবার দুটি নিঃস্ব হয়ে গেলো। ঘটনাটি উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।
নাগেশ্বরী ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার ইমন মিয়া জানান, খবর পেয়ে আমাদের টিম ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ধারণা করা হচ্ছে বিদ‍্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণে কাজ চলছে।