সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফিলিস্তিনি ১১ যোদ্ধাকে হত্যার দাবি ইসরায়েলের

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ দক্ষিণ গাজার প্রধান শহর খান ইউনিসে গত ২৪ ঘণ্টায় হামাসের ১১ যোদ্ধাকে হত্যার দাবি করেছে ইসরায়েল। শনিবার (২৭ জানুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী। খবর রয়টার্সের।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হামাস যোদ্ধারা ইসরায়েলি সেনাদের লক্ষ্য করে বিস্ফোরকদ্রব্য মোতায়েন এবং রাইফেল ও রকেটচালিত গ্রেনেড ছোড়ার সময় তাদের হত্যা করা হয়।

এর আগে গত ২৩ জানুয়ারি খান ইউনিস শহর ঘিরে ফেলার দাবি করে ইসরায়েল। দেশটির সামরিক বাহিনী বলেছে, কয়েকদিন ধরে খান ইউনিসে ব্যাপক হামলা চালাচ্ছে তাদের সেনারা। এখন তারা শহরটি ঘিরে ফেলেছে। বর্তমানে হামলা আরও জোরদার করা হয়েছে। এখানে হামাস যোদ্ধারা জোরালো অবস্থান নিয়েছে।

হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধের প্রথম দিকে ইসরায়েলি বাহিনী উত্তর গাজায় হামলা চালায়। ফলে ইসরায়েলি হামলা থেকে বাঁচতে অধিকাংশ ফিলিস্তিনি দক্ষিণ গাজায় এসে আশ্রয় নেন। খান ইউনিস শহরেও লাখ লাখ ফিলিস্তিনি আশ্রয় নেন।

শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরায়েলি হামলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮৩ জন নিহত হয়েছে। এ নিয়ে তিন মাসের বেশি সময়ে গাজা যুদ্ধে ২৬ হাজার ৮৩ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও ৬৪ হাজার ৪৮৭ জন ফিলিস্তিনি।

বিএনপির নেতাকর্মীদের কারাগারে প্রেরণ সরকারের প্রধান কর্মসূচি -মির্জা ফখরুল

ফিলিস্তিনি ১১ যোদ্ধাকে হত্যার দাবি ইসরায়েলের

প্রকাশের সময় : ০৩:২০:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৪

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ দক্ষিণ গাজার প্রধান শহর খান ইউনিসে গত ২৪ ঘণ্টায় হামাসের ১১ যোদ্ধাকে হত্যার দাবি করেছে ইসরায়েল। শনিবার (২৭ জানুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী। খবর রয়টার্সের।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হামাস যোদ্ধারা ইসরায়েলি সেনাদের লক্ষ্য করে বিস্ফোরকদ্রব্য মোতায়েন এবং রাইফেল ও রকেটচালিত গ্রেনেড ছোড়ার সময় তাদের হত্যা করা হয়।

এর আগে গত ২৩ জানুয়ারি খান ইউনিস শহর ঘিরে ফেলার দাবি করে ইসরায়েল। দেশটির সামরিক বাহিনী বলেছে, কয়েকদিন ধরে খান ইউনিসে ব্যাপক হামলা চালাচ্ছে তাদের সেনারা। এখন তারা শহরটি ঘিরে ফেলেছে। বর্তমানে হামলা আরও জোরদার করা হয়েছে। এখানে হামাস যোদ্ধারা জোরালো অবস্থান নিয়েছে।

হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধের প্রথম দিকে ইসরায়েলি বাহিনী উত্তর গাজায় হামলা চালায়। ফলে ইসরায়েলি হামলা থেকে বাঁচতে অধিকাংশ ফিলিস্তিনি দক্ষিণ গাজায় এসে আশ্রয় নেন। খান ইউনিস শহরেও লাখ লাখ ফিলিস্তিনি আশ্রয় নেন।

শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরায়েলি হামলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮৩ জন নিহত হয়েছে। এ নিয়ে তিন মাসের বেশি সময়ে গাজা যুদ্ধে ২৬ হাজার ৮৩ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও ৬৪ হাজার ৪৮৭ জন ফিলিস্তিনি।