বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মিয়ানমারের গৃহযুদ্ধ আমাদের দেশে বড় সংকট দানা বাঁধছে –জিএম কাদের

মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সংঘাত কেন্দ্র উদ্ভূত পরিস্থিতে বাংলাদেশের উদ্বিগ্ন ও উৎকণ্ঠিত হওয়ার মতো কারণ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারের গৃহযুদ্ধ আমাদের দেশে বড় সংকট দানা বাঁধছে। প্রতিদিন মিয়ানমারের সৈনিকরা পালিয়ে আশ্রয় নিচ্ছে। মিয়ানমার থেকে ছোড়া গোলাবারুদ এসে এখানে পড়ছে। সামনে কোন পর্যায়ে যাবে নিশ্চিত নই।’

শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রংপুর নগরীর সেনপাড়ায় স্কাই ভিউ বাসভবনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন জাপা চেয়ারম্যান।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, ‘জিনিষপত্রের লাগামহীন দাম বাড়ছে। সরকার অনেক পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বললেও আমরা সুফল পাচ্ছি না। মানুষ যা বেতন পাচ্ছে তা খরচের তুলনায় অনেক কম। মানুষের জীবিকা নির্বাহ করতে কষ্ট হচ্ছে।’

উপজেলা নির্বাচন নিয়ে জাপা চেয়াম্যান বলেন, ‘আওয়ামী লীগ তাদের নিজের ইচ্ছায় দলীয় প্রতীক ছাড়াই নির্বাচনের অংশগ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কারণ তাদের সব জায়গায় একাধিক প্রার্থী রয়েছে। তারা সেটাকে উৎসাহ দিচ্ছে। জাতীয় নির্বাচনেও তারা সেটি করেছে। আমরা দলীয় প্রতীক নিয়েই নির্বাচন করব।’

নতুন সংসদ সর্ম্পকে তিনি বলেন, ‘নতুন সংসদ গতানুগতিকভাবেই চলছে। বিরোধী দলের সদস্য কম, তাই সরকারের পক্ষেই বেশি কথা হচ্ছে। সংসদ সুন্দর ও কার্যকর তখনই হয়, যখন সংসদে উভয়পক্ষের কথায় উত্তপ্ত থাকে।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে জিএম কাদের বলেন, ‘বিরোধী দল থেকে মন্ত্রী হওয়াটি স্বাভাবিক নয়। যদি জাতীয় সরকার হয়, বিরোধী দল না থাকে, তখন সব দল থেকে মন্ত্রী করা হয়। বিরোধী দল হিসেবে থাকতে হলে মন্ত্রিসভায় থাকা উচিৎ নয়। তাহলে বিরোধী দলের ভূমিকা রাখা যায় না। আমরা সংসদে বিরোধী দল হিসেবে সরকারের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করব।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, ভাইস চেয়ারম্যান এসএম ইয়াসির, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাকসহ দলের স্থানীয় নেতারা।

মৌলভীবাজারে প্রতিপক্ষের হামলার শিকার শিশু মিনহাজ বাদ পড়েনি 

মিয়ানমারের গৃহযুদ্ধ আমাদের দেশে বড় সংকট দানা বাঁধছে –জিএম কাদের

প্রকাশের সময় : ০৮:৫১:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সংঘাত কেন্দ্র উদ্ভূত পরিস্থিতে বাংলাদেশের উদ্বিগ্ন ও উৎকণ্ঠিত হওয়ার মতো কারণ রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

তিনি বলেন, ‘মিয়ানমারের গৃহযুদ্ধ আমাদের দেশে বড় সংকট দানা বাঁধছে। প্রতিদিন মিয়ানমারের সৈনিকরা পালিয়ে আশ্রয় নিচ্ছে। মিয়ানমার থেকে ছোড়া গোলাবারুদ এসে এখানে পড়ছে। সামনে কোন পর্যায়ে যাবে নিশ্চিত নই।’

শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রংপুর নগরীর সেনপাড়ায় স্কাই ভিউ বাসভবনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন জাপা চেয়ারম্যান।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, ‘জিনিষপত্রের লাগামহীন দাম বাড়ছে। সরকার অনেক পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বললেও আমরা সুফল পাচ্ছি না। মানুষ যা বেতন পাচ্ছে তা খরচের তুলনায় অনেক কম। মানুষের জীবিকা নির্বাহ করতে কষ্ট হচ্ছে।’

উপজেলা নির্বাচন নিয়ে জাপা চেয়াম্যান বলেন, ‘আওয়ামী লীগ তাদের নিজের ইচ্ছায় দলীয় প্রতীক ছাড়াই নির্বাচনের অংশগ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কারণ তাদের সব জায়গায় একাধিক প্রার্থী রয়েছে। তারা সেটাকে উৎসাহ দিচ্ছে। জাতীয় নির্বাচনেও তারা সেটি করেছে। আমরা দলীয় প্রতীক নিয়েই নির্বাচন করব।’

নতুন সংসদ সর্ম্পকে তিনি বলেন, ‘নতুন সংসদ গতানুগতিকভাবেই চলছে। বিরোধী দলের সদস্য কম, তাই সরকারের পক্ষেই বেশি কথা হচ্ছে। সংসদ সুন্দর ও কার্যকর তখনই হয়, যখন সংসদে উভয়পক্ষের কথায় উত্তপ্ত থাকে।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে জিএম কাদের বলেন, ‘বিরোধী দল থেকে মন্ত্রী হওয়াটি স্বাভাবিক নয়। যদি জাতীয় সরকার হয়, বিরোধী দল না থাকে, তখন সব দল থেকে মন্ত্রী করা হয়। বিরোধী দল হিসেবে থাকতে হলে মন্ত্রিসভায় থাকা উচিৎ নয়। তাহলে বিরোধী দলের ভূমিকা রাখা যায় না। আমরা সংসদে বিরোধী দল হিসেবে সরকারের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করব।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, ভাইস চেয়ারম্যান এসএম ইয়াসির, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাকসহ দলের স্থানীয় নেতারা।