রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ইসলামাবাদে ১৪৪ ধারা জারি

  • ঢাকা ব্যুরো।।
  • প্রকাশের সময় : ০৮:১৭:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পাকিস্তানের নির্বাচন নিয়ে নিরাপত্তা শঙ্কায় রাজধানী ইসলামাবাদে ১৪৪ ধারা জারি করেছে দেশটির সরকার। আজ রবিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্স এ দেওয়া এক পোস্টে ইসলামাবাদ পুলিশ জানায়, শহরে ১৪৪ জারি করা হয়েছে। অবৈধ সমাবেশের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানে সাধারণ পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়। শুক্রবার ভোর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা শুরু করে দেশটির নির্বাচন কমিশন। ৬০ ঘণ্টা পর আসে সব আসনের ফল।

ফল ঘোষণার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ১৪৪ ধারা জারি করে ইসলামাবাদ পুলিশ। এক্স এ দেওয়া পোস্টে তারা জানায়, কিছু মানুষ নির্বাচন কমিশনসহ অন্যান্য সরকারি অফিসের সামনে উসকানিমূলক জমায়েত করছে। পরিষ্কারভাবে বলা হচ্ছে, গণজমায়েতের জন্য উসকানি দেওয়াও এক ধরনের অপরাধ।

পুলিশ জানায়, শান্তিপূর্ণ আন্দোলন সব নাগরিকের অধিকার। তবে অবৈধ যেকোনো পদক্ষেপের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইন মানা সবার কর্তব্য। নাগরিকদের সব ধরনের অবৈধ কার্যক্রম এড়িয়ে চলার অনুরোধ করা হচ্ছে। ইসলামাবাদে আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ইসলামাবাদে ১৪৪ ধারা জারি

প্রকাশের সময় : ০৮:১৭:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

পাকিস্তানের নির্বাচন নিয়ে নিরাপত্তা শঙ্কায় রাজধানী ইসলামাবাদে ১৪৪ ধারা জারি করেছে দেশটির সরকার। আজ রবিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্স এ দেওয়া এক পোস্টে ইসলামাবাদ পুলিশ জানায়, শহরে ১৪৪ জারি করা হয়েছে। অবৈধ সমাবেশের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানে সাধারণ পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়। শুক্রবার ভোর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা শুরু করে দেশটির নির্বাচন কমিশন। ৬০ ঘণ্টা পর আসে সব আসনের ফল।

ফল ঘোষণার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ১৪৪ ধারা জারি করে ইসলামাবাদ পুলিশ। এক্স এ দেওয়া পোস্টে তারা জানায়, কিছু মানুষ নির্বাচন কমিশনসহ অন্যান্য সরকারি অফিসের সামনে উসকানিমূলক জমায়েত করছে। পরিষ্কারভাবে বলা হচ্ছে, গণজমায়েতের জন্য উসকানি দেওয়াও এক ধরনের অপরাধ।

পুলিশ জানায়, শান্তিপূর্ণ আন্দোলন সব নাগরিকের অধিকার। তবে অবৈধ যেকোনো পদক্ষেপের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইন মানা সবার কর্তব্য। নাগরিকদের সব ধরনের অবৈধ কার্যক্রম এড়িয়ে চলার অনুরোধ করা হচ্ছে। ইসলামাবাদে আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।