রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোর পৌর কাউন্সিলর যুবলীগ নেতা”টাক মিলনকে” সাময়িক অব্যাহতি 

  • যশোর প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : ০২:৫৯:১৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ২৮

যশোরে জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক ও  কাউন্সিলর শেখ জাহিদ হোসেন মিলন সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপের সাময়িক দায়ে অব্যাহতি  দিয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটি।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মইনুল হোসেন খান নিখিল এমপি স্বাক্ষরিত এই অব্যাহতিপত্রে বলা হয়েছে,আপনি জাহিদ হোসেন মিলন গঠনতন্ত্র পরিপন্থী ও শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িয়েছেন যা সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন ও শৃঙ্খলা বিনষ্ট করেছে। গঠনতন্ত্রের ২২ এর ক ধারা মোতাবেক যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের নির্দেশক্রমে আপনাকে যশোর জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক পদসহ সংগঠন থেকে সাময়িক অব্যাহতি প্রদান করা হলো।

এ বিষয়ে জানতে সংগঠনের জেলা সভাপতি মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টুর মোবাইলফোনে কয়েক দফা চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি যশোর শহরের পালবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ তার অফিস থেকে মদ্যপ অবস্থায় যুবলীগ নেতা যশোর চার নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শেখ জাহিদ হোসেন মিলনকে আটক করেন। একই সাথে তার তিন সঙ্গীকে আটক ও বিদেশি মদ জব্দ করা হয়। পুলিশ তাকে হাসপাতালে নিয়ে ওয়াশ করায় এবং মাদক আইনে মামলা করে আদালতে পাঠায়।বর্তমানে তিনি যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে  আটক রয়েছেন।

তার এই আটকের ঘটনায় যশোর পৌরসভা ও সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কতিপয় জনপ্রতিনিধি লাগাতার কর্মবিরতির ডাক দেয়। কিন্তু তা পালনে তারা ব্যর্থ।

যশোর পৌর কাউন্সিলর যুবলীগ নেতা”টাক মিলনকে” সাময়িক অব্যাহতি 

প্রকাশের সময় : ০২:৫৯:১৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

যশোরে জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক ও  কাউন্সিলর শেখ জাহিদ হোসেন মিলন সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপের সাময়িক দায়ে অব্যাহতি  দিয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটি।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মইনুল হোসেন খান নিখিল এমপি স্বাক্ষরিত এই অব্যাহতিপত্রে বলা হয়েছে,আপনি জাহিদ হোসেন মিলন গঠনতন্ত্র পরিপন্থী ও শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িয়েছেন যা সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন ও শৃঙ্খলা বিনষ্ট করেছে। গঠনতন্ত্রের ২২ এর ক ধারা মোতাবেক যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের নির্দেশক্রমে আপনাকে যশোর জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক পদসহ সংগঠন থেকে সাময়িক অব্যাহতি প্রদান করা হলো।

এ বিষয়ে জানতে সংগঠনের জেলা সভাপতি মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টুর মোবাইলফোনে কয়েক দফা চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি যশোর শহরের পালবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ তার অফিস থেকে মদ্যপ অবস্থায় যুবলীগ নেতা যশোর চার নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শেখ জাহিদ হোসেন মিলনকে আটক করেন। একই সাথে তার তিন সঙ্গীকে আটক ও বিদেশি মদ জব্দ করা হয়। পুলিশ তাকে হাসপাতালে নিয়ে ওয়াশ করায় এবং মাদক আইনে মামলা করে আদালতে পাঠায়।বর্তমানে তিনি যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে  আটক রয়েছেন।

তার এই আটকের ঘটনায় যশোর পৌরসভা ও সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কতিপয় জনপ্রতিনিধি লাগাতার কর্মবিরতির ডাক দেয়। কিন্তু তা পালনে তারা ব্যর্থ।