রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গণতন্ত্র ফেরানোর আন্দোলনে সরকার পরিবর্তন হবে–নজরুল ইসলাম খান

  • ঢাকা ব্যুরো।।
  • প্রকাশের সময় : ০৮:১৫:৩৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ২৮

গণতন্ত্র ফেরানোর আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সরকার পরিবর্তন হবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। গতকাল শুক্রবার গোপীবাগে দলটির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ৩৯নং ওয়ার্ডের সদস্য কারাবন্দি অবস্থায় নিহত ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুলের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাতের পর সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আমরা পরিবর্তন চাই এবং বিশ্বাস করি এই পরিবর্তন অবশ্যম্ভাবী। স্বৈরাচারী এরশাদের পতনের আন্দোলনে আমরা বিজয়ী হয়েছি। জরুরি অবস্থার মধ্যে ওয়ান ইলেভেন সরকার নির্বাচন করতে চেয়েছিল, তবে আমাদের বাধার মুখে পারেনি। আমরা এখন গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য চেষ্টা করছি। বিএনপি আগামী দিনে আবারও বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও সুশাসন প্রতিষ্ঠা করবে।’

সরকার পরিবর্তনের এক দফার যুগপৎ আন্দোলন সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা যুগপৎ আন্দোলন করছি, সেই যুগপৎ আন্দোলন এখনো চলছে।’

বিরোধী নেতা-কর্মীর ওপর সরকারের দমন-পীড়নের কথা তুলে ধরে নজরুল ইসলাম বলেন, যারা মজলুম তাদের ওপর যে নিপীড়ন করা হয়েছে এর বিচার হবে।

এর আগে বুলবুলের মৃত্যুর ঘটনা তার এক ভাই ও দুই বোনের কাছ থেকে শোনেন নজরুল ইসলাম। বুলবুলের মৃত্যুকে হত্যাকা- বলে অভিহিত করে এই ঘটনার নিন্দা ও দায়ীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান তিনি। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে ব্লুবুলের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে এসেছেন বলেও তিনি জানান।

কাশিমপুর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে গত ২৪ নভেম্বর বুকের ব্যথায় পড়ে গেলে বুলবুলকে নেওয়া হয় সোহরাওয়ার্দী হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গণতন্ত্র ফেরানোর আন্দোলনে সরকার পরিবর্তন হবে–নজরুল ইসলাম খান

প্রকাশের সময় : ০৮:১৫:৩৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

গণতন্ত্র ফেরানোর আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সরকার পরিবর্তন হবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। গতকাল শুক্রবার গোপীবাগে দলটির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ৩৯নং ওয়ার্ডের সদস্য কারাবন্দি অবস্থায় নিহত ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুলের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাতের পর সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আমরা পরিবর্তন চাই এবং বিশ্বাস করি এই পরিবর্তন অবশ্যম্ভাবী। স্বৈরাচারী এরশাদের পতনের আন্দোলনে আমরা বিজয়ী হয়েছি। জরুরি অবস্থার মধ্যে ওয়ান ইলেভেন সরকার নির্বাচন করতে চেয়েছিল, তবে আমাদের বাধার মুখে পারেনি। আমরা এখন গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য চেষ্টা করছি। বিএনপি আগামী দিনে আবারও বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও সুশাসন প্রতিষ্ঠা করবে।’

সরকার পরিবর্তনের এক দফার যুগপৎ আন্দোলন সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা যুগপৎ আন্দোলন করছি, সেই যুগপৎ আন্দোলন এখনো চলছে।’

বিরোধী নেতা-কর্মীর ওপর সরকারের দমন-পীড়নের কথা তুলে ধরে নজরুল ইসলাম বলেন, যারা মজলুম তাদের ওপর যে নিপীড়ন করা হয়েছে এর বিচার হবে।

এর আগে বুলবুলের মৃত্যুর ঘটনা তার এক ভাই ও দুই বোনের কাছ থেকে শোনেন নজরুল ইসলাম। বুলবুলের মৃত্যুকে হত্যাকা- বলে অভিহিত করে এই ঘটনার নিন্দা ও দায়ীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান তিনি। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে ব্লুবুলের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে এসেছেন বলেও তিনি জানান।

কাশিমপুর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে গত ২৪ নভেম্বর বুকের ব্যথায় পড়ে গেলে বুলবুলকে নেওয়া হয় সোহরাওয়ার্দী হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।