বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জুয়েলার্স ব্যবসায়ীর ১৬০ ভরি স্বর্ণালংকার ছিনতাই

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে মিলন কর্মকার নামে এক জুয়েলার্স ব্যবসায়ীকে মারপিট করে, গলায় ফাঁস দিয়ে গুলি করে হত্যার ভয় দেখিয়ে ১৬০ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার, নগদ আড়াই লাখ টাকা ও মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বত্তরা। শুক্রবার রাত ৯ টার দিকে পৌরসভার সেরেস্তাদারবাড়ি এলাকায় ওই ব্যবসায়ীর বাড়ির অদূরে দুর্ধর্ষ এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

আহত ব্যবসায়ী মিলন কর্মকারকে হাসপাতাল ভর্তি করা হয়েছে। তিনি পৌরসভা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি। তিনি বলেন, দোকান বন্ধ করে বাসার কাছাকাছি পৌছানোমাত্র ৩—৪ জনের একটি দল তার গলায় ফাঁস লাগিয়ে মারপিট করে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে গুলি করে হত্যার হুমকি দিয়ে সবকিছু নিয়ে যায়।

গতকাল শনিবার বেলা ১০টার দিকে পানগুছি নদীর তীর থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ছিনতাই হওয়া স্কুটি মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে পুলিশ। তবে স্বর্ণলংকার ও টাকা এখনো উদ্ধার হয়নি। ছিনতাইকারীদেরকেও চিহ্নিত করা য়ায়নি। জেলা পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন(পিবিআই) ও গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পৃথক দুটি দল রাতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এর আগে, ২০২২ সালের ২৬ অক্টোবর নিউ প্রভাত জুয়েলার্সের মালিক দিপক কর্মকারকে মারপিট করে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। প্রায় দেড় বছরের মাথায় আবার দুর্ধর্ষ ছিনতাইয়ের ঘটনায় মোরেলগঞ্জের ৪৩ জন স্বর্ণ ব্যবসায়ী আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। তারা ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে থানার ওসি মোহাম্মদ সামসুদ্দীন বলেন, ছিনতাই হওয়া মোটরসাইকেলটি নদীতে পাওয়া গেছে। স্বর্ণ, টাকা ও ছিনতাইকারীদের সন্ধানে পুলিশ, ডিবি ও পিবিআইয়ের কয়েকটি দল কাজ করছে।

জুয়েলার্স ব্যবসায়ীর ১৬০ ভরি স্বর্ণালংকার ছিনতাই

প্রকাশের সময় : ১১:২০:৫৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে মিলন কর্মকার নামে এক জুয়েলার্স ব্যবসায়ীকে মারপিট করে, গলায় ফাঁস দিয়ে গুলি করে হত্যার ভয় দেখিয়ে ১৬০ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার, নগদ আড়াই লাখ টাকা ও মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নিয়েছে দুর্বত্তরা। শুক্রবার রাত ৯ টার দিকে পৌরসভার সেরেস্তাদারবাড়ি এলাকায় ওই ব্যবসায়ীর বাড়ির অদূরে দুর্ধর্ষ এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।

আহত ব্যবসায়ী মিলন কর্মকারকে হাসপাতাল ভর্তি করা হয়েছে। তিনি পৌরসভা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি। তিনি বলেন, দোকান বন্ধ করে বাসার কাছাকাছি পৌছানোমাত্র ৩—৪ জনের একটি দল তার গলায় ফাঁস লাগিয়ে মারপিট করে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে গুলি করে হত্যার হুমকি দিয়ে সবকিছু নিয়ে যায়।

গতকাল শনিবার বেলা ১০টার দিকে পানগুছি নদীর তীর থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় ছিনতাই হওয়া স্কুটি মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে পুলিশ। তবে স্বর্ণলংকার ও টাকা এখনো উদ্ধার হয়নি। ছিনতাইকারীদেরকেও চিহ্নিত করা য়ায়নি। জেলা পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন(পিবিআই) ও গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের পৃথক দুটি দল রাতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এর আগে, ২০২২ সালের ২৬ অক্টোবর নিউ প্রভাত জুয়েলার্সের মালিক দিপক কর্মকারকে মারপিট করে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। প্রায় দেড় বছরের মাথায় আবার দুর্ধর্ষ ছিনতাইয়ের ঘটনায় মোরেলগঞ্জের ৪৩ জন স্বর্ণ ব্যবসায়ী আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। তারা ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে থানার ওসি মোহাম্মদ সামসুদ্দীন বলেন, ছিনতাই হওয়া মোটরসাইকেলটি নদীতে পাওয়া গেছে। স্বর্ণ, টাকা ও ছিনতাইকারীদের সন্ধানে পুলিশ, ডিবি ও পিবিআইয়ের কয়েকটি দল কাজ করছে।