রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হিজবুল্লাহ ভূপাতিত করল ইসরায়েলের ড্রোন

ইসরায়েলের একটি দীর্ঘাকৃতির হেরমেস ড্রোন ভূপাতিত করেছে লেবাননের প্রতিরোধ গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। গোষ্ঠীটির দাবি লেবাননের আকাশসীমা লঙ্ঘন করার ড্রোনটিকে ভূপাতিত করা হয়। এরপরই লেবাননের অনেক গভীরে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে এবারই প্রথম লেবাননের ভূখণ্ডে এতো গভীরে হামলা চালাল দেশটি।
মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) পৃথক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এবং বার্তাসংস্থা রয়টার্স।
রয়টার্স বলছে, ইসরায়েলি যুদ্ধবিমান সোমবার লেবাননের বেকা উপত্যকায় হামলা চালিয়েছে। গত অক্টোবরে ইরান-সমর্থিত এই গোষ্ঠীর সাথে সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে লেবাননের ভূখণ্ডে চালানো গভীরতম আক্রমণে কমপক্ষে দুই হিজবুল্লাহ সদস্য নিহত হয়েছেন বলে লেবাননের বেশ কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে।
এদিকে ক্রমবর্ধমান ঝুঁকির কথা তুলে ধরে ইসরায়েল-অধিকৃত গোলান মালভূমিতে ইসরায়েলি সেনা সদর দপ্তরে ৬০টি রকেট নিক্ষেপ করে জবাব দিয়েছে হিজবুল্লাহ। ইরান-সমর্থিত এই শক্তিশালী সশস্ত্রগোষ্ঠীর আল-মানার টেলিভিশন এই তথ্য জানিয়েছে।
অন্যদিকে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র বলেছেন, লেবানন থেকে গোলান মালভূমিতে কয়েক ডজন রকেট ছোড়া হয়েছে।
ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বলেছে, ইসরায়েলি ড্রোনে হামলা চালিয়ে ভূপাতিত করার জবাবে তাদের ফাইটার জেট বেকা উপত্যকায় হিজবুল্লাহর আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় হামলা চালিয়েছে। এর আগে হিজবুল্লাহ বলেছিল, তারা সোমবার একটি সারফেস টু এয়ার ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ড্রোনটি ভূপাতিত করে।
লেবাননের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বলছেন, গত বছরের অক্টোবরে গাজায় যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর ইসরায়েল প্রথমবারের মতো লেবাননের পূর্বাঞ্চলে হামলা চালিয়েছে।
আল জাজিরা বলছে, সোমবার ইসরায়েল-লেবানন সীমান্ত থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার (৬২ মাইল) দূরে অবস্থিত বেকা উপত্যকায় হিজবুল্লাহর শক্ত ঘাঁটি বালবেকের কাছে বুদাই গ্রামের উপকণ্ঠে তিনটি বিমান হামলা চালায় ইসরায়েলি সামরিক বিমান। এতে কমপক্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন।
রয়টার্স বলছে, সিরিয়ার সীমান্তের কাছে বেকা উপত্যকা অঞ্চলে বিমান হামলা হয় যা শিয়া ইসলামপন্থি হিজবুল্লাহর একটি শক্ত রাজনৈতিক ঘাঁটি। টার্গেট করা এলাকাটি ছিল বালবেক শহর থেকে প্রায় ১৮ কিলোমিটার (১১ মাইল) দূরে। মূলত এই শহরটি তার প্রাচীন ধ্বংসাবশেষের জন্য পরিচিত।
বেশ কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, ইসরায়েল ওই এলাকায় একযোগে হামলা চালিয়েছে। লেবাননের একটি নিরাপত্তা সূত্র এবং বিষয়টি সম্পর্কে জানেন এমন একটি সূত্র জানিয়েছে, হামলায় দুই হিজবুল্লাহ সদস্য নিহত হয়েছেন।
লেবাননের টেলিভিশন স্টেশন আল-জাদেদ হামলার পর ওই এলাকা থেকে ধোঁয়ার কুন্ডলীর ছবি সম্প্রচার করেছে।
হিজবুল্লাহর একজন কর্মকর্তা বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ইসরায়েল একটি গুদামে হামলা চালিয়েছে, এতে দুইজন নিহত হয়। গুদামটি হিজবুল্লাহর সাজ্জাদ প্রকল্পের অংশ যা বাজারের চেয়ে কম দামে লোকদের কাছে খাদ্য পণ্য বিক্রি করে।
এছাড়া দক্ষিণ লেবাননের মাজাদেল শহরে একটি গাড়িকে লক্ষ্য করে হামলা চালায় ইসরায়েলি বিমান। এতে হিজবুল্লাহর ফিল্ড কমান্ডার নিহত হয় বলে লেবাননের তিনটি নিরাপত্তা সূত্র জানিয়েছে।
ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী হামলার একটি ভিডিও পোস্ট করেছে এবং বলেছে, তাদের টার্গেট ছিল হাসান হোসেন সালামি। তিনি ইসরায়েলে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপসহ অন্য আরও কর্মকাণ্ডের জন্য দায়ী।
হিজবুল্লাহর রাজনীতিবিদ হাসান ফাদলাল্লাহ বলেছেন, ইসরায়েল বালবেক এবং অন্যান্য অঞ্চলে হামলা চালিয়ে চলমান সংঘাতকে আরও প্রসারিত করেছে।
সাম্প্রতিক দিনগুলোতে নিহত হিজবুল্লাহ যোদ্ধাদের জানাজার সময় টেলিভিশনে দেওয়া বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘বালবেক বা অন্য কোনও অঞ্চলে হওয়া ইসরায়েলি আগ্রাসন কোনও ধরনের প্রতিক্রিয়া ছাড়া পার হতে দেওয়া হবে না।’
তবে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলেছে, তারা ‘লেবানিজ ভূখণ্ডে বিমান হামলা চালানোসহ হিজবুল্লাহর হুমকি থেকে ইসরায়েল রাষ্ট্রকে রক্ষা করার জন্য অভিযান চালিয়ে যাবে’।

হিজবুল্লাহ ভূপাতিত করল ইসরায়েলের ড্রোন

প্রকাশের সময় : ০৩:২৫:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ইসরায়েলের একটি দীর্ঘাকৃতির হেরমেস ড্রোন ভূপাতিত করেছে লেবাননের প্রতিরোধ গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। গোষ্ঠীটির দাবি লেবাননের আকাশসীমা লঙ্ঘন করার ড্রোনটিকে ভূপাতিত করা হয়। এরপরই লেবাননের অনেক গভীরে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে এবারই প্রথম লেবাননের ভূখণ্ডে এতো গভীরে হামলা চালাল দেশটি।
মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) পৃথক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এবং বার্তাসংস্থা রয়টার্স।
রয়টার্স বলছে, ইসরায়েলি যুদ্ধবিমান সোমবার লেবাননের বেকা উপত্যকায় হামলা চালিয়েছে। গত অক্টোবরে ইরান-সমর্থিত এই গোষ্ঠীর সাথে সংঘাত শুরু হওয়ার পর থেকে লেবাননের ভূখণ্ডে চালানো গভীরতম আক্রমণে কমপক্ষে দুই হিজবুল্লাহ সদস্য নিহত হয়েছেন বলে লেবাননের বেশ কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে।
এদিকে ক্রমবর্ধমান ঝুঁকির কথা তুলে ধরে ইসরায়েল-অধিকৃত গোলান মালভূমিতে ইসরায়েলি সেনা সদর দপ্তরে ৬০টি রকেট নিক্ষেপ করে জবাব দিয়েছে হিজবুল্লাহ। ইরান-সমর্থিত এই শক্তিশালী সশস্ত্রগোষ্ঠীর আল-মানার টেলিভিশন এই তথ্য জানিয়েছে।
অন্যদিকে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র বলেছেন, লেবানন থেকে গোলান মালভূমিতে কয়েক ডজন রকেট ছোড়া হয়েছে।
ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বলেছে, ইসরায়েলি ড্রোনে হামলা চালিয়ে ভূপাতিত করার জবাবে তাদের ফাইটার জেট বেকা উপত্যকায় হিজবুল্লাহর আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় হামলা চালিয়েছে। এর আগে হিজবুল্লাহ বলেছিল, তারা সোমবার একটি সারফেস টু এয়ার ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ড্রোনটি ভূপাতিত করে।
লেবাননের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বলছেন, গত বছরের অক্টোবরে গাজায় যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর ইসরায়েল প্রথমবারের মতো লেবাননের পূর্বাঞ্চলে হামলা চালিয়েছে।
আল জাজিরা বলছে, সোমবার ইসরায়েল-লেবানন সীমান্ত থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার (৬২ মাইল) দূরে অবস্থিত বেকা উপত্যকায় হিজবুল্লাহর শক্ত ঘাঁটি বালবেকের কাছে বুদাই গ্রামের উপকণ্ঠে তিনটি বিমান হামলা চালায় ইসরায়েলি সামরিক বিমান। এতে কমপক্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন।
রয়টার্স বলছে, সিরিয়ার সীমান্তের কাছে বেকা উপত্যকা অঞ্চলে বিমান হামলা হয় যা শিয়া ইসলামপন্থি হিজবুল্লাহর একটি শক্ত রাজনৈতিক ঘাঁটি। টার্গেট করা এলাকাটি ছিল বালবেক শহর থেকে প্রায় ১৮ কিলোমিটার (১১ মাইল) দূরে। মূলত এই শহরটি তার প্রাচীন ধ্বংসাবশেষের জন্য পরিচিত।
বেশ কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, ইসরায়েল ওই এলাকায় একযোগে হামলা চালিয়েছে। লেবাননের একটি নিরাপত্তা সূত্র এবং বিষয়টি সম্পর্কে জানেন এমন একটি সূত্র জানিয়েছে, হামলায় দুই হিজবুল্লাহ সদস্য নিহত হয়েছেন।
লেবাননের টেলিভিশন স্টেশন আল-জাদেদ হামলার পর ওই এলাকা থেকে ধোঁয়ার কুন্ডলীর ছবি সম্প্রচার করেছে।
হিজবুল্লাহর একজন কর্মকর্তা বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ইসরায়েল একটি গুদামে হামলা চালিয়েছে, এতে দুইজন নিহত হয়। গুদামটি হিজবুল্লাহর সাজ্জাদ প্রকল্পের অংশ যা বাজারের চেয়ে কম দামে লোকদের কাছে খাদ্য পণ্য বিক্রি করে।
এছাড়া দক্ষিণ লেবাননের মাজাদেল শহরে একটি গাড়িকে লক্ষ্য করে হামলা চালায় ইসরায়েলি বিমান। এতে হিজবুল্লাহর ফিল্ড কমান্ডার নিহত হয় বলে লেবাননের তিনটি নিরাপত্তা সূত্র জানিয়েছে।
ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী হামলার একটি ভিডিও পোস্ট করেছে এবং বলেছে, তাদের টার্গেট ছিল হাসান হোসেন সালামি। তিনি ইসরায়েলে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপসহ অন্য আরও কর্মকাণ্ডের জন্য দায়ী।
হিজবুল্লাহর রাজনীতিবিদ হাসান ফাদলাল্লাহ বলেছেন, ইসরায়েল বালবেক এবং অন্যান্য অঞ্চলে হামলা চালিয়ে চলমান সংঘাতকে আরও প্রসারিত করেছে।
সাম্প্রতিক দিনগুলোতে নিহত হিজবুল্লাহ যোদ্ধাদের জানাজার সময় টেলিভিশনে দেওয়া বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘বালবেক বা অন্য কোনও অঞ্চলে হওয়া ইসরায়েলি আগ্রাসন কোনও ধরনের প্রতিক্রিয়া ছাড়া পার হতে দেওয়া হবে না।’
তবে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলেছে, তারা ‘লেবানিজ ভূখণ্ডে বিমান হামলা চালানোসহ হিজবুল্লাহর হুমকি থেকে ইসরায়েল রাষ্ট্রকে রক্ষা করার জন্য অভিযান চালিয়ে যাবে’।